অস্ট্রেলিয়া আসার দুই ঘণ্টা আগে ফাঁকা হবে মাঠ

স্পোর্টস রিপোর্টার

খেলা ১ আগস্ট ২০২১, রোববার

করোনা মহামারির কারণে বাংলাদেশ সফরে আসার আগে থেকেই একের পর এক শর্ত দিয়ে যাচ্ছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। যার সবগুলোই পূরণ করে চলেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। ঢাকায় পা রেখেই তিনদিনের কোয়ারেন্টিন শেষ করেছে দুই দল। এর মধ্যে দুই দফায় কোভিড-১৯ পরীক্ষা হয়েছে তাদের। ফলাফল নেগেটিভ হওয়াতে আজই মাঠে শুরু করবে অনুশীলন। তবে এখানে অস্ট্রেলিয়ার কঠিন শর্ত। তারা  আসার দুই ঘণ্টা আগেই ফাঁকা করে ফেলতে হবে তাদের অনুশীলনের জন্য বরাদ্দ মিরপুর স্টেডিয়ামের জায়গা। শুধু তাই নয়, সেটি সঠিকভাবে করা হয়েছে কিনা তা দেখার জন্যও অজিদের বিশেষ এক পর্যবেক্ষক দল অনুশীলনের ৩ ঘণ্টা আগে থেকে মাঠে উপস্থিত থাকবে।
তারা সবুজ সংকেত দিলেই বিকাল ৪ টায় মাঠে আসবে অস্ট্রেলিয়া দল। বিষয়টি দৈনিক মানবজমিনকে নিশ্চিত করেছেন বিসিবি’র মেডিকেল বিভাগের প্রধান চিকিৎসক দেবাশিষ চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়া দলের দুই কোভিড-১৯ টেস্ট শেষ হয়েছে। তারা কাল (আজ) থেকে মাঠে অনুশীলণ করতে পারবে। তবে তাদের অনুশীলনের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ দিক হলো- সেই সময় সেখানে বাইরের কেউ থাকতে পারবে না। দুই ঘণ্টা আগে তাদের অনুশীলনের জন্য নির্ধারিত জায়গা থেকে সবাইকে সরিয়ে ফেলতে হবে। আর এই প্রক্রিয়াটি দেখার জন্য ওদেরই একটি বিশেষ প্রতিনিধিদল দুপুর থেকে মাঠে উপস্থিত থাকবে। আর খুব জরুরি যদি কোনো গ্রাউন্ডম্যানকে প্রবেশ করতে হয় তাহলে তাকে পাঁচ মিটার দূরত্ব রাখতেই হবে।’  
আজ  সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত নিজেদের প্রস্তুত করবে মাহমুদুল্লাহ  রিয়াদের দল। আর দিনের দ্বিতীয় ভাগে বিকাল চারটা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা পর্যন্ত ফ্লাড লাইটের আলোয় প্রস্তুতি সারবে সফরকারী অস্ট্রেলিয়া। গতকাল এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। বিসিবি’র দেয়া তথ্যমতে, ২রা আগস্ট দ্বিতীয় দিনের প্রস্ততির প্রথম পর্বে অর্থাৎ সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত অনুশীলন করবে অস্ট্রেলিয়া। আর বিকাল ৪টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা পর্যন্ত ফ্লাড লাইটের আলোয় ব্যাটে-বলে নিজেদের শানিয়ে নিবে বাংলদেশ। টাইগারদের জন্যও মাঠে অস্ট্রেলিয়ার মতোই নিরাপত্তা ব্যবস্থা রাখা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধান চিকিৎসক। দেবাশিষ চৌধুরী বলেন, ‘বাংলাদেশ দলের জন্যও অস্ট্রেলিয়ার মতো প্রটোকল। কারণ যদি তাদেরও নিরাপদে না রাখা হয় তাহলে অস্ট্রেলিয়ার জন্য হুমকি হবে। শুধু অনুশীলনই নয়, দুই দলের জন্য ম্যাচের সময়ও এক ঘণ্টা আগে থেকে মাঠের সবাইকে বের করে দেয়া হবে। ক্যামেরা, ক্রু এমনকি প্রয়োজন ছাড়া গ্রাউন্ডসম্যানরাও মাঠে প্রবেশ করতে পারবেন না। হ্যাঁ, বৃষ্টিতে হলে গ্রাউন্ডসম্যানরা যাবে কিন্তু সেই সময় মাঠে ক্রিকেটাররা কেউ থাকবে না।’
চোট ও ব্যক্তিগত কারণ মিলিয়ে এই সফরের বেশ আগেই নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন ডেভিড ওয়ার্নার, স্টিভেন স্মিথ, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, মার্কাস স্টয়নিস, প্যাট কামিন্স, জাই রিচার্ডসন, কেন রিচার্ডসনের মতো শীর্ষ কয়েকজন ক্রিকেটার। আর সদ্য সমাপ্ত ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে চোটের কারণে ছিটকে গেছেন সীমিত ওভারের ক্রিকেটের অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চও। এদিকে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে মহামারিকালের এই সিরিজের চুক্তি অনুযায়ী ক্রিকেটারদের ১০ দিনের জৈব সুরক্ষা বলয় নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডও নতুন করে কোনো স্কোয়াড ঘোষণা করছে না। জিম্বাবুয়ে সফরে টি-টোয়েন্টি দলই এই সফরের জন্য বলবৎ রাখা হয়েছে। বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার পাঁচ ম্যাচ সিরিজের টি- টোয়েন্টি শুরু হবে ৩রা আগস্ট। দ্বিতীয়টি ৪ঠা আগস্ট, তৃতীয়টি ৬ই আগস্ট, চতুর্থটি ৭ই আগস্ট এবং পঞ্চম ও শেষটি গড়াবে ৯ই আগস্ট। প্রতিটি ম্যাচই গড়াবে মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা ৬ টায়।

আপনার মতামত দিন

খেলা অন্যান্য খবর

পেছনে তাকাতে চান না আল আমিন

১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে এক ধাপ পেছালো বাংলাদেশ

১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের গত চার আসরে বাংলাদেশের নৈপুণ্য মোটেও ভালো নয়। একবারও পেরোতে পারেনি গ্রুপ পর্বের ...



খেলা সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status