ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের খবর

পেগাসাস ইস্যুতে পার্লামেন্ট অধিবেশনের মেয়াদ কমাবে ভারত সরকার!

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন (১ মাস আগে) জুলাই ৩১, ২০২১, শনিবার, ২:০৩ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ৮:২৭ অপরাহ্ন

পেগাসাস নিয়ে বিরোধীদের টানা প্রতিবাদের মুখে ভারতের পার্লামেন্টের বর্ষাকালীন অধিবেশনের মেয়াদ কমিয়ে আনার জন্য ‘সিরিয়াসলি’ বিবেচনা করছে সরকার। শুক্রবার বিভিন্ন সূত্র এ বিষয়ে জানিয়েছে অনলাইন ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে। টানা ৯ দিন ধরে পেগাসাস ইস্যুতে পার্লামেন্ট অধিবেশনে বিঘ্ন সৃষ্টি করছে বিরোধী দলগুলো। ১৯ শে জুলাই শুরু হয় এই অধিবেশন। শেষ হওয়ার কথা ১৩ই আগস্ট। একজন মন্ত্রী বলেছেন, পার্লামেন্টে প্রতিটি মানুষের জীবন সংক্রান্ত ইস্যুতে আলোচনার জন্য প্রস্তুত। কিন্তু বিরোধীরা তা চায় না। ফলে অর্থ ও সময়ের অপচয় হচ্ছে।
তিনি আরো বলেছেন, করোনা ভাইরাসের হুমকি দেখা দিয়েছে অনেক এলাকায়। এ কারণে সরকার এই অধিবেশনকে খর্ব করার সিদ্ধান্ত নিচ্ছে। তা সত্ত্বেও পার্লামেন্টের উভয় কক্ষকে মসৃণভাবে কার্যকর রাখার জন্য বিরোধী নেতাদের সম্মত করাতে আরো চেষ্টা চালিয়ে যাবে সরকার।

উল্লেখ্য, বিরোধী দলগুলো দাবি করে আসছে যে, পেগাসাস স্পাইওয়্যার ইস্যুতে বিতর্ক এড়িয়ে যাচ্ছে সরকার। তারা এই ইস্যু বাদে যেকোনো ইস্যুতে আলোচনা করতে চায়। এ দাবিতে তারা পার্লামেন্টে হট্টগোল করছেন। কিন্তু সরকার তাদের কথা শুনছে না। এ অবস্থার মধ্যেই কিছু বিল পাস করিয়েছে সরকার। বিরোধী দলগুলোর সূত্র বলেছেন, বিরোধীরা পেগাসাস ইস্যুতে অভিন্ন অবস্থান নিয়েছেন। তা হলো এই ইস্যুর সমাধান না হওয়া পর্যন্ত পূর্ণাঙ্গ আলোচনা হতে হবে। কংগ্রেসের এক সিনিয়র নেতা বলেছেন, পেগাসাস ইস্যুতে আমাদের দাবিতে বিরোধীরা ঐকবদ্ধ। এ অবস্থান থেকে আমরা ফিরে যাবো না।

পেগাসাস ইস্যুতে উত্তেজনার ফলে অধিবেশনের শুরুতেই পার্লামেন্টের কূপের কাছে গিয়ে বিক্ষোভ করছেন কংগ্রেস, তার মিত্র তৃণমূল কংগ্রেস, এসএডি-বিএসপি সহ বিভিন্ন দলের এমপিরা। এক পর্যায়ে কংগ্রেস নেত্রী সোনিয়া গান্ধী ও তার ছেলে রাহুল গান্ধীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তারপর বৃহস্পতিবারের পর বিরোধীদের মধ্যে সমন্বয় আরো জোরালো হয়েছে। শুক্রবার পার্লামেন্ট অধিবেশন শুরু হলে কংগ্রেস নেতা অধীর রঞ্জন চক্রবর্তী পয়েন্টআউট করেন যে, বিরোধীরা পেগাসাস ইস্যুতে আলোচনার জন্য প্রস্তুত। তার ভাষায়, বিরোধীরা পেগাসাস নিয়ে আলোচনা করতে চায়। কৃষি বিল, করোনা পরিস্থিতিসহ প্রতিটি ইস্যুতে আমরা আলোচনা করতে প্রস্তুত। কিন্তু সরকার প্রস্তুত নয়।

পেগাসাস ইস্যুতে বিতর্কে অনিচ্ছা প্রকাশ করে পার্লামেন্ট বিষয়ক মন্ত্রী প্রহ্লাদ যোশী এই ইস্যুকে ‘নন ইস্যু’ এবং ‘নন সিরিয়াস’ ইস্যু বলে আখ্যায়িত করেন। তিনি বলেন, যেসব ইস্যু সরাসরি জনগণের সঙ্গে সম্পৃক্ত তা নিয়ে আলোচনার জন্য প্রস্তাত সরকার।

শুক্রবারও কংগ্রেস, ডিএমকে, বাম দলগুলো, বিএসপি, এসএডি, তৃণমূল কংগ্রেসের সদস্যরা পার্লামেন্টের কূপের কাছে গিয়ে স্লোগান দিতে থাকেন। কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে প্লাকার্ড প্রদর্শন করেন। পেগাসাস ইস্যুতে আলোচনা দাবি করেন। এ সময় পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষে তুমুল উত্তেজনা দেখা দেয়। ফলে স্থানীয় সময় সকাল ১১টা ৩৫ মিনিটে প্রথমে অধিবেশন মুলতবি করা হয়। এরপর দুপুর ১২ টা ১৫ মিনিটে আবার অধিবেশন মুলতবি হয়ে যায়।

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status