যুক্তরাষ্ট্রে পৌঁছাল আফগান দোভাষীদের প্রথম দল ও তাদের পরিবার

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন (১ মাস আগে) জুলাই ৩০, ২০২১, শুক্রবার, ৫:০৮ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ১০:৩০ পূর্বাহ্ন

আফগান দোভাষীদের প্রথম দল ও তাদের পরিবারের সদস্যরা যুক্তরাষ্ট্রে আশ্রয় পেয়েছেন। বিদেশি সেনাদের প্রত্যাহার শুরুর পর রাজধানী কাবুলের দিকে ক্রমাগত অগ্রসর হচ্ছে তালেবান মিলিশিয়ারা। দখলকৃত এলাকাগুলোতে চালু করেছে নিজস্ব বর্বর নিয়ম কানুন। তবে তাদের প্রধান টার্গেটে পরিণত হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনীর জন্য দোভাষী হিসেবে কাজ করা আফগান নাগরিকরা। সম্প্রতি এক দোভাষীকে গাড়ি থেকে নামিয়ে নৃশংসভাবে শিরশ্ছেদ করার খবর বিশ্ব গণমাধ্যমে প্রচারিত হয়। যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট জর্জ বুশও আফগান দোভাষী ও তাদের পরিবারের সদস্যদের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ জানিয়েছেন।

এসব আলোচনার মধ্যে ২০০ দোভাষী এবং তাদের পরিবারের সদস্যরা যুক্তরাষ্ট্রে পৌছালেন। পুরো দলে ছিল ২৫০০ আফগান নাগরিক।
শুক্রবার সকালে তারা যুক্তরাষ্ট্রে পৌঁছান এবং তাদেরকে ভার্জিনিয়ার ফোর্ট লি সামরিক ঘাটিতে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তারা প্রায় এক সপ্তাহ অবস্থান করবেন। এরইমধ্যে তাদের আনুসাঙ্গিক কাজ সমাপ্ত করা হবে।

বিবিসির খবরে জানানো হয়েছে, তালেবান মিলিশিয়ারা আফগানিস্তানের বিভিন্ন অঞ্চলে কাবুলের দিকে অগ্রসর হচ্ছে। দখল করে নিয়েছে শতাধিক জেলা। আফগান বাহিনীও পাল্টা যুদ্ধ করছে, যদিও তাদের সফলতার হার বেশ কম। আগস্ট মাসের মধ্যে সকল মার্কিন সেনা আফগানিস্তান ছেড়ে যাচ্ছে। আশঙ্কা রয়েছে, এরপরই পুরো দেশ দখলে নেমে পড়বে তালেবান। তাই এর আগে সকল দোভাষীকে আফগানিস্তান ছাড়তে হবে। গত ২০ বছরের যুদ্ধে অনেক আফগান যুক্তরাষ্ট্রকে সন্ত্রাস দমনে সহায়তা করেছেন। তাদেরকেই এখন টার্গেট করেছে তালেবান। ২০০৮ সাল থেকে প্রায় ৭০ হাজার আফগানকে বিশেষ ভিসায় যুক্তরাষ্ট্রে আশ্রয় দেয়া হয়েছে।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

পচন ধরা বিবেক ই কেবল

২০২১-০৭-৩০ ০৪:৫৩:১৬

পচন ধরা বিবেক ই কেবল ২০ বৎসর যাবৎ যুদ্ধ করে বিজয় লাভ কারী তালেবান কে সন্ত্রাসী এবং বর্বর বলতে পারে।

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর

গুয়ান্তানামোয় শুনানি স্থগিত

১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status