বায়ো বাবল নিয়েই অস্ট্রেলিয়ার যত ভাবনা

স্পোর্টস রিপোর্টার

খেলা ২৯ জুলাই ২০২১, বৃহস্পতিবার

আজ বাংলাদেশে আসছে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল। ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে বায়ো বাবলে থেকে সিরিজ শেষ করেছে। এবার ঢাকায় আসার আগে নিজেদের সঙ্গে বাংলাদেশেরও সিরিজ সংশ্লিষ্ট সকলের বায়ো বাবল নিশ্চিত করাতে বাধ্য করেছে তারা। আর এই কারণেই জিম্বাবুয়ে সফর শেষ করে দেশে ফিরে সরাসরি বাংলাদেশ দলকেও আজ উঠতে হচ্ছে হোটেলে। পাঁচ ম্যাচের এই সিরিজে মাঠের খেলার জন্য বড় আলোচনায় এখন করোনা সুরক্ষা নিয়ে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার একের পর এক কঠিন শর্ত।  বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজামুদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেন, ‘আমাদের প্রস্তুতি যেটা নেয়ার সেটা নিচ্ছি। ভেন্যু, হোটেলসহ সব বিষয়ে ওরা (ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া) যেভাবে চাচ্ছে, সেটার ভিত্তিতেই আমরা প্রস্তুতি নিচ্ছি। তাদের মূল কনসার্নটাই হচ্ছে বায়ো-বাবল নিশ্চিত করা। তাদের খেলোয়াড়দের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিতই মূল লক্ষ্য।’ ঘোষিত সূচিতে ক’টায় ম্যাচ শুরু হবে তা উল্লেখ ছিল না।
গতকাল সিইও জানিয়েছেন পাঁচটি ম্যাচই শুরু হবে সন্ধ্যা ৬টায়।
গেল বছর এই সময়ে দেশের করোনা পরিস্থিতি এতটা ভয়াবহ ছিল না । সেই সময় দৈনিক মৃত্যু একশ’র নিচে ছিল। তবুও বিসিবি মাঠে খেলা আয়োজনের কথা ভাবতেই পারছিল না। কিন্তু বছর পেরিয়ে এই মাসে করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রতিদিনেই মারা যাচ্ছে ২শ’র বেশি মানুষ। দিনে আক্রান্তের সংখ্যাও রেকর্ড ছাড়িয়ে যাচ্ছে। সিরিজ চলাকালে সংশ্লিষ্ট কেউ আক্রান্ত হলে কী হবে! এ বিষয়ে সিইও নিজামুদ্দিন সুজন বলেন, ‘এই কোভিড পরিস্থিতির মধ্যেই আমরা দুইটা আন্তর্জাতিক সিরিজ আয়োজন করেছি। আমাদের দলও বিদেশ সফর করেছে। যে কারণে আমাদের সেই অভিজ্ঞতাটা হয়ে গেছে কোন বিষয়গুলো কিভাবে সতর্কতা অবলম্বন করলে সফলভাবে একটা ইভেন্ট শেষ করা যাবে। তারপরও আমি বলি এ ক্ষেত্রে চ্যালেঞ্জিং যেটা সিরিজ চলাকালিন কোনো পজেটিভ কেস আসা। আমরা দুই বোর্ড আলোচনা করছি কিভাবে এরকম কিছু হলেও সিরিজ এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায়।’
বিসিবি জুড়েই চলছে অস্ট্রেলিয়া সিরিজের আগে বিশাল কর্মযজ্ঞ। তবে প্রতিটি ক্ষেত্রেই নজর দেয়া হচ্ছে করোনা সুরক্ষা। এরই মধ্যে জানা গেছে মিরপুর শেরেবাংলা মাঠের সদর দরজা ব্যবহার করতে পারবেন না খোদ বিসিবি’র কর্মকর্তারা। তাদের এই সিরিজ চলাকালে মাঠে আসতে হলে বিকল্প পথ ব্যবহার করতে হবে। প্রতি মুহূর্তেই ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে আয়োজন নিয়ে আলোচনা করতে হচ্ছে বিসিবিকে। এ বিষয়ে সিইও বলেন, ‘ওরকম কোনো বিষয় নাই। এখন শুধু ফাইন টিউনিং হচ্ছে। বেসিক চাহিদাগুলো, অনুশীলনে কি চায় এসব নিয়েই আসলে শেষ মুহূর্তের যোগাযোগটা হচ্ছে। আমাদের মেডিকেল বিভাগ, ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগ নিয়মিত তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করছে।’ আগেই ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার শর্ত ছিল বিমান থেকে নেমে সর্বসাধারণের জন্য নির্ধারিত উন্মুক্ত স্থানে ইগ্রেশন প্রক্রিয়াতে অংশ  নেবেন না অজি ক্রিকেটার, কোচ ও কর্মকর্তারা। বিসিবিও মেনে নিয়েছে তা। জানা গেছে বিমান থেকে নেমেই সরাসরি গাড়িতে উঠে বসবে সফরকারীরা। সেখানেই তাদের ইমেগ্রেসন কর্মকাণ্ড শেষ করে পাসপোর্ট নিয়ে সরাসরি হোটেলে চলে যাবে। এ বিষয়ে সিইও বলেন, ‘তারা আমাদের অনুরোধ করেছে যতটা সম্ভব পাবলিক কমিউনিকেশনটা এড়িয়ে ইমিগ্রেশনটা করতে চায়। আর সেভাবেই আয়োজন করা হচ্ছে।’ ৩রা শুরু হতে যাচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৫ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। সফরকারীদের শর্ত অনুসারে সব ম্যাচই হবে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে।

আপনার মতামত দিন

খেলা অন্যান্য খবর

‘মালদিনি ইজ ব্যাক’

২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

পিএসজি’র আটে আট

২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

যুব ফুটবল দলের প্রস্তুতি শুরু

২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

অনূর্ধ্ব-২৩ দল দিয়ে এবার দ্বিতীয় দফায় বাফুফের সঙ্গে কাজ করতে যাচ্ছেন কোচ মারুফুল হক। এর ...

মেসিকে হাসপাতাল থেকে পেলের অভিনন্দন

২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

প্রায় মাসখানেক হতে চললো হাসপাতালে ভর্তি ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি পেলে। কোলন টিউমারে অস্ত্রোপচারের পর লম্বা সময় ...



খেলা সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status