প্লেগ সংশ্লিষ্টতায় যুক্তরাষ্ট্রে বালকের মৃত্যু, সতর্কতা

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন (২ মাস আগে) জুলাই ২৫, ২০২১, রোববার, ১২:১১ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ৯:১০ অপরাহ্ন

যুক্তরাষ্ট্রের কলোরাডোতে প্লেগ সংশ্লিষ্ট জটিলতায় মারা গেছে ১০ বছর বয়সী একটি বালক। কলোরাডো স্বাস্থ্য ও পরিবেশ বিষয়ক বিভাগ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ওই বালকটি লা প্লাটা কাউন্টিতে বসবাস করতো। তার মৃত্যুর সঙ্গে যোগসূত্র আছে প্রাণিতে পাওয়া প্লেগ এবং কলোরাডোর ৬টি কাউন্টিতে পাওয়া ফুসফুসের জটিলতা। এ খবর দিয়েছে অনলাইন দ্য হিল। ডেপুটি স্টেট এপিডেমিওলোজিস্ট অ্যান্ড পাবলিক হেলথ ভেটেরিনারিয়ান জেনিফার হাউজ বলেছেন, মানুষে প্লেগ সংক্রমণ হওয়ার বিষয়টি বিরল। তবু এর লক্ষণ সম্পর্কে সবাইকে অবহিত করার বিষয়টি নিশ্চিত করতে চাই আমরা। যদি প্রথম দিকে প্লেগ শনাক্ত করা যায়, তাহলে তা এন্টিবায়োটিক ব্যবহার করে চিকিৎসা করা যায়। উচ্চ মাত্রার জ্বর এবং গ্রন্থি ফুলে যাওয়ার বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে লোকজনকে।
তিনি আরো বলেন, প্লেগ আরো পরিচিত বিউবোনিক প্লেগ অথবা ব্লাক ডেথ নামেও। পঞ্চদশ শতাব্দীতে ইউরোপিয়ান রেফারেন্স অনুযায়ী, এর এমন নাম ছিল। পতঙ্গের কামড়ে অথবা আক্রান্ত প্রাণির সরাসরি সংস্পর্শে এই প্লেগ মানুষে স্থানান্তরিত হতে পারে। ব্যাকটেরিয়া ইয়ারসিনিয়া পেস্টিস মানুষের শরীরে প্রবেশ করার পর গ্রন্থিগুলো ফুলে কালো হয়ে যায় বলে এর নামের সঙ্গে ‘ব্লাক’ শব্দ যোগ করা হয়েছে। ওয়াশিংটন পোস্টের তথ্যমতে, প্লেগে ইউরোপে লাখ লাখ মানুষ মারা গেছে। মানব ইতিহাসে এটা ছিল অন্যতম ভয়াবহ এক মহামারি।
এ ঘটনার প্রেক্ষিতে কলোরাডোর বাসিন্দাদেরকে সুরক্ষামূলক নিরাপত্তার বিষয়ে সতর্ক থাকতে বলেছেন জেনিফার হাউজ। বলা হয়েছে, এই ব্যাকটেরিয়া যাতে সংক্রমিত না হতে পারে এজন্য নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে হবে। অসুস্থ অথবা মৃত প্রাণির কাছে যাওয়া যাবে না। বন্য ইঁদুর জাতীয় প্রাণি যেখানে বসবাস করে সেই এলাকার বাইরে থাকতে হবে। যদি প্লেগের কোনো লক্ষণ দেখা দেয় তাহলে সঙ্গে সঙ্গে চিকিৎসা সেবাদানকারীদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। এক্ষেত্রে সচেতনতা ও পূর্ব সতর্কতা এই রোগ থেকে মানুষকে রক্ষায় সহায়ক হতে পারে।
 

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status