ইন্দিরা গান্ধীর যে চিঠি ভাইরাল

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন (১ মাস আগে) জুলাই ২৪, ২০২১, শনিবার, ১২:১০ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ৮:২৪ অপরাহ্ন

ভারতের প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর একটি চিঠি টুইটারে ভাইরাল। ১৯৭৩ সালের ৫ই জুলাই তিনি এই চিঠিটি লিখেছিলেন শিল্পপতি জেআরডি টাটাকে। আরপিজি গ্রুপের চেয়ারম্যান হর্ষ গোয়েনকা এই চিঠির একটি ছবি শেয়ার করেছেন ক্ষুদ্র বার্তার ওয়েবসাইট টুইটারে। এ খবর দিয়ে অনলাইন এনডিটিভি বলছে, ইন্দিরা গান্ধীকে সুগন্ধি উপহার দিয়েছিলেন জেআরডি টাটা। এ জন্য তাকে ধন্যবাদ জানিয়ে ওই চিঠি লিখেছিলেন ইন্দিরা। তিনি লিখেছেন- এই সুগন্ধীতে আমি শিহরিত। আপনাকে অনেক ধন্যবাদ। সাধারণত আমি সুগন্ধী ব্যবহার করি না।
তাই পরিপাটিময় বিশ্ব থেকে আমি বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছি। এমনকি এসব জিনিস আমি চিনিই না। কিন্তু অবশ্যই এগুলো দিয়ে পরীক্ষা চালাবো। যখনই আমার পক্ষে বা সমালোচনামূলক কোনো দৃষ্টিভঙ্গি থাকে তা আমাকে জানানোর জন্য লিখতে বা আমার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে কখনো দ্বিধা করবেন না। চিঠির শেষে জেআরডি টাটা এবং তার স্ত্রী তেলমা ভিকাজি টাটার প্রতি শুভ কামনা জানান ইন্দিরা গান্ধী।

তার এই চিঠি টুইটারে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। হাজার হাজার লাইক পড়ছে পোস্টে। ইন্দিরা গান্ধীকে স্মরণ করে অসংখ্য মানুষ মন্তব্য লিখছেন। টুইটারের একজন ব্যবহারকারী ড. নীলিমা শ্রীবাস্তব ইন্দিরা গান্ধীর একটি সাদাকালো ছবি শেয়ার করেছেন। এই ছবিতে এক সংবাদ সম্মেলনের সময় ইন্দিরা গান্ধী বসে ছিলেন। সঙ্গে মন্তব্য লিখেছেন তিনি। লিখেছেন, একজন যুবতী হিসেবে আমি তার সঙ্গে একটি খোলা জিপে করে লক্ষেèৗতে বেড়াতে গিয়েছিলাম। তিনি ছিলেন সাধারণ একটি তুষার সিল্ক শাড়ি পরা। তার চিবুক ছিল এমনিতেই গোলাপী এবং উষ্ণ। আমাকে তিনি ধরে রেখেছিলেন, যাতে পড়ে না যাই।

আরেকজন লিখেছেন, জেআরডি টাটা ছিলেন ভাল চিঠি লেখক। তিনি পরিবারের সদস্য, সহকর্মী, সহযোগী এবং সমসাময়িক নেতা যেমন জওয়াহারলাল নেহরু, ইন্দিরা গান্ধী সহ অনেককে নিয়মিত চিঠি লিখতেন। আরেকজন লিখেছেন, জেআরডি টাটা একবার এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, অর্থনৈতিক নীতি নিয়ে গান্ধীর সঙ্গে তিনি আলোচনার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু তা বিনীতভাবে প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে। ১৯৮৬ সালে ইন্ডিয়া টুডেকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে জেআরডি টাটা বলেছিলেন, যখনই তিনি এমন কোনো ইস্যু আলোচনায় আনার চেষ্টা করতেন এবং তা পছন্দ করতেন না ইন্দিরা গান্ধী, তখন তিনি বিরক্তি প্রকাশ করতেন। তিনি এনভেলাপ তুলে নিতেন হাতে। তারপর একটি একটি করে কেটে নিতেন। ভিতর থেকে চিঠি বের করতেন। এটা ছিল এক বিনয়ী ভাব, যা থেকে বোঝা যায় তিনি বিরক্তি প্রকাশ করছেন। তবে ইন্দিরা গান্ধীর সঙ্গে তিনি নিজের সম্পর্ককে খুবই বন্ধুত্বপূর্ণ বলে বর্ণনা করেছেন।

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর

গুয়ান্তানামোয় শুনানি স্থগিত

১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status