পেগাসাস আতঙ্ক, ফোন নম্বর পাল্টে ফেললেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট

নিজস্ব সংবাদদাতা

অনলাইন (১ মাস আগে) জুলাই ২৩, ২০২১, শুক্রবার, ৭:০১ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ১০:১৮ পূর্বাহ্ন

পেগাসাসের অপারেশন প্রকাশ্যে আসার পর ফরাসি মন্ত্রিসভা জরুরি বৈঠকে বসে। 'পেগাসাস জুজু' থেকে সুরক্ষিত থাকতে এবার নিজের মোবাইল ফোন পাল্টে ফেললেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ। নম্বরও বদলালেন। যদিও বিষয়টিকে বিশেষ গুরুত্ব দিতে নারাজ ফরাসি সরকার। মুখপাত্র গ্যাব্রিয়েল আত্তালের বক্তব্য, প্রেসিডেন্ট অনেক ফোন নম্বর ব্যবহার করেন। তাই নম্বর বদলানো কোনও বিষয় না। অর্থাৎ ফরাসি প্রশাসন বোঝাতে চাইছে, পেগাসাসকে তারা গুরুত্ব দিচ্ছেন না কোনোভাবেই। কিন্তু বাস্তব মোটেই তা নয়।
দিন দুই আগে ভারতে পেগাসাসের কীর্তি ফাঁস হওয়ার পরপরই লে-মন্ডে পত্রিকা এবং রেডিও ফ্রান্স জানিয়েছিল , মরক্কোর তরফে ওই ইসরায়েলী স্পাইওয়্যার কাজে লাগিয়ে আড়ি পাতা হচ্ছিল ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর ফোনেও। প্যারিস এ নিয়ে তদন্তের তোড়জোড় শুরু করলেই মরক্কো সেই অভিযোগ খারিজ করে দেয়। তবে সাবধানের তো মার নেই। তাই প্রেসিডেন্ট তড়িঘড়ি নিজের ব্যবহৃত ফোন পাল্টে নিয়েছেন। ব্যবহার করছেন নতুন নম্বরও। যদিও ফ্রান্স-ইন্টার রেডিওকে সরকারি মুখপাত্র গ্যাব্রিয়েল আত্তাল বলেছেন, 'উনি একটি নয়, নতুন বেশ কয়েকটি নম্বর নিয়েছেন। তবে তার সঙ্গে পেগাসাসের কোনও সম্পর্ক নেই। প্রেসিডেন্ট অনেক নম্বরই ব্যবহার করছেন। বাড়তি সুরক্ষার জন্যই এতগুলো নম্বর নেয়া।' সূত্রের আরও খবর, মরক্কো যতই ম্যাক্রোঁর ফোনে আড়ি পাতার কথা অস্বীকার করুক, ফ্রান্স কিন্তু অতি সাবধানী। পেগাসাসের স্পাইওয়্যারের রাডারে বিশ্বের যে ১৪ জন রাষ্ট্রনায়কের ফোনে আড়ি পাতা টার্গেট করা হয়েছে, তাঁদের মধ্যে তিনজন বর্তমান প্রেসিডেন্ট, তিনজন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী, সাতজন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ও একজন রাজপরিবারের সদস্য। বর্তমানের তিন প্রেসিডেন্ট ফ্রান্সের ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ, দক্ষিণ আফ্রিকার রামাফোসা ও ইরাকের প্রেসিডেন্ট বারহাম সালিহ। জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মার্কেল বার্লিনে সাংবাদিকদের বলেছেন যে, যে দেশগুলিতে কোনও বিচারিক তদারকি নেই সেখানে স্পাইওয়্যারকে অস্বীকার করা উচিত। বৃহস্পতিবার থেকে হাঙ্গেরিয়ান প্রসিকিউটররা প্রাপ্ত একাধিক অভিযোগের তদন্ত শুরু করেছেন। একাধিক অভিযোগ পাওয়ার পর ইসরাইল একটি আন্তঃমন্ত্রণালয় গঠন করে তদন্ত শুরু করেছে তাদের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ নিয়ে।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Anisur rahman

২০২১-০৭-২৩ ০৭:৪৬:১৫

The spyware device Pegasus are violating human rights as well as questionable for national security and sorventy. Honestly you don't know who is really controlling the device.

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

বৈঠকে বিএনপির স্থায়ী কমিটি

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

শনাক্তের হার ৬.০৫

করোনায় আরও ৩৫ জনের মৃত্যু

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

কুমিল্লা-৭ আসনে উপ-নির্বাচন

বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় এমপি হচ্ছেন ডা. প্রাণ গোপাল

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status