নগ্ন করে হাঁটানো হলো যুবতীকে

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন (২ মাস আগে) জুলাই ১৫, ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১১:০০ পূর্বাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ৮:১০ অপরাহ্ন

ঘটনাটি এ মাসের শুরুর দিকের। ভারতের গুজরাটের এক গ্রাম। সেখানে ২৩ বছর বয়সী এক উপজাতি যুবতীকে পুরো নগ্ন করে ফেলা হলো। এরপর তাকে সেই অবস্থায় মানুষের সামনে দিয়ে হাঁটতে বাধ্য করা হলো। ঘটনা এখানেই শেষ নয়। এই দৃশ্য ভিডিও করে ছড়িয়ে দেয়া হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। ফলে তা রাতারাতি ভাইরাল হয়ে গেছে। বিষয়টি পুলিশের নজরে যাওয়ার পর মঙ্গলবার একটি মামলা করা হয়েছে।
এ খবর দিয়েছে অনলাইন এনডিটিভি।  

ওই যুবতী যে কাজ করেছেন, তাও সমাজ মেনে নিতে পারে না। তিনি বিবাহিত। তার স্বামী আছেন। তা সত্ত্বেও তিনি অন্য এক পুরুষের সঙ্গে পালিয়ে গিয়েছিলেন। এ জন্য গ্রামের লোকজন ও তার স্বামী শাস্তি হিসেবে তাকে নগ্ন করে ফেলে। সবার সামনে সে অবস্থায় হাঁটতে বাধ্য করে। এ ঘটনা ঘটেছে গুজরাটের দাহোড জেলার একটি গ্রামে।

সাব ইন্সপেক্টর বিএম প্যাটেল বলেছেন, ৬ই জুলাই এ ঘটনা ঘটেছে উপজাতি অধ্যুষিত একটি এলাকায়। ওই সময়কার ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। ফলে মঙ্গলবার পুলিশ মামলা করেছে। এরই মধ্যে ওই যুবতীর ওপর অমানবিকতার জন্য তার স্বামী ও অন্য ১৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ভিডিওতে দেখা যায়, ওই যুবতীর স্বামী, তার আত্মীয়রা সহ আরো কিছু পুরুষ ওই যুবতীকে টেনেহিঁচড়ে নিচ্ছে মানুষের সামনে দিয়ে। এরপর তাকে প্রহার করছে। এক পর্যায়ে সবার সামনে জোর করে তার পোশাক খুলে নগ্ন করে ফেলে। এ ঘটনা ঘটে অন্য নারী ও শিশুদের উপস্থিতিতে। এই শাস্তির সঙ্গে ওই নারীকে বাধ্য করা হয় তার স্বামীকে কাঁধে নিয়ে হাঁটতে। উপস্থিত অন্য নারীরা এগিয়ে যান ওই যুবতীর সম্ভ্রম রক্ষা করতে। তারা তাকে চারদিক থেকে ঘিরে রাখেন। কেউ একজন তার জন্য পোশাক নিয়ে গেলে, তার স্বামী তাও কেড়ে নেয়।

ওই পুলিশ কর্মকর্তা আরো বলেছেন, সম্প্রতি অন্য এক পুরুষের সঙ্গে পালিয়ে গিয়েছিলেন এই যুবতী। তার স্বামী ও গ্রামের অন্যরা দ্রুততার সঙ্গে তাদেরকে শনাক্ত করে এবং গ্রামে নিয়ে যায়। ৬ই জুলাই তাকে হাজির করা হয় সবার সামনে। পুলিশ বলেছে, ওই ভিডিওতে যাদেরকে অপরাধী হিসেবে দেখা গেছে, তাদের সবাইকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে দাঙ্গা, অবমাননা, ক্রিমিনাল ভীতি প্রদর্শন ও একজন নারীর মর্যাদাকে ভূলুণ্ঠিত করার অভিযোগে।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মোঃ হজরত আলী। ইসলামী

২০২১-০৭-১৫ ০৪:১১:৩৩

১৯৯৫১৭৮৩৮ চালানের মাধ্যমে TV র অর্ডার দেয়া হয়েছিল গত জুনের প্রথম সপ্তাহে। এখনো পাইনি। দয়া করে জানাবেন।দেরি হওয়ার কারণ কি?

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status