যেভাবে ডায়ানা এওয়ার্ড জিতলেন সাফি

পিয়াস সরকার

ষোলো আনা ১৩ জুলাই ২০২১, মঙ্গলবার

চট্রগ্রামের ছেলে আফজাল সুলতান সাফি। পড়াশোনার পাশাপাশি ছোট থেকেই স্বপ্ন সুবিধা বঞ্চিত মানুষদের পাশে দাঁড়ানো। ২০১৫ সাল থেকে সামাজিক কাজের সঙ্গে যুক্ত। ২০১৯ এ এসে নিজ উদ্যোগে করে ফেলেন 'দূরবীন ফাউন্ডেশন' এরপর আর পেছনে তাকানোর সুযোগ ছিলো না।

গত বছর করোনায় পাশে দাঁড়িয়েছেন প্রায় ২০০০ পরিবারের। এরপর করোনায় এক রোজার মাসেই ৩০০০ এর অধিক মানুষের খাদ্যের ব্যবস্থা করেছে সাফির দূরবীন ফাউন্ডেশন। এ আয়োজনে তাদের ট্যাগ লাইন ছিলো 'শেয়ারে হোক সুন্দর সম্পর্ক'। বছরের শেষ দিকে সাফির চিন্তা দাড়ায় ত্রিপুরা জনগোষ্ঠীর পিছিয়ে পড়া শিশুদের শিক্ষা নিশ্চিত করা।

মাত্র ১ বছরের মধ্যে পাহাড়ি জনপদে স্কুল তৈরির পাশাপাশি সেখানে পাঠদান শুরু হয়। এবং প্রায় ৫০ জন শিশু সেখানে নিয়মিত পড়াশোনা করছেন।
এ নিয়ে সাফি বলেন, আসলে আমার ইচ্ছে ছিলো সমাজে বড় একটা পরিবর্তন আনা,আমি এর আগেও চেষ্টা করেছি। কাজ শেষে হয়তো মজা পেয়েছি, মানুষের ভালোবাসা পেয়েছি,তবে এবার আমার স্বপ্নটা ছিলো অনেক বড়। আলহামদুলিল্লাহ সেটা পূরন করতে পেরেছি,এটা পরিবর্তন আনতে পেরেছি।

সমাজের এমন পরিবর্তন আনার ফলে সাফি জিতেছেন ইংল্যান্ডের 'ডায়ানা এওয়ার্ড'। সাফি বলেন, এ এওয়ার্ড আমার কাজ করার অনুপ্রেরণা বাড়াবে, সামনে ইনশাআল্লাহ আরো ভালো কাজ করতে পারবো। সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন তিনি।

এ ছাড়াও সাফি বর্তমানে বাল্যবিবাহ রোধ,প্রতিবন্ধী শিশু, পিছিয়ে পড়া মানুষের কর্মসংস্থান এবং সমাজের অবহেলিত নারী ও শিশুদের নিয়ে কাজ করছেন।

আপনার মতামত দিন

ষোলো আনা অন্যান্য খবর

থমকে গেছে কুমারপাড়া

১৬ এপ্রিল ২০২১



ষোলো আনা সর্বাধিক পঠিত



করোনা মোকাবিলায় দক্ষিণ কোরিয়া

সচেতনতার প্রয়োজন ছিল শুরু থেকেই

DMCA.com Protection Status