কলকাতা কথকতা

বন্দি অবস্থায় স্টান স্বামীর মৃত্যু ঘিরে কলকাতা উত্তাল, মোদি-শাহ এর কুশপুতুল দাহ

জয়ন্ত চক্রবর্তী, কলকাতা

কলকাতা কথকতা (২ মাস আগে) জুলাই ৬, ২০২১, মঙ্গলবার, ৭:৩৮ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ১১:০৭ পূর্বাহ্ন

বন্দি অবস্থায় জেসুইট পাদ্রী ৮৪ বছরের স্টান স্বামীর মৃত্যু নিয়ে উত্তাল হল কলকাতা। রাষ্ট্রযন্ত্র ও দেশের আইন বিভাগের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে উঠলো মহানগরী। বাম, কংগ্রেস, তৃণমূল কংগ্রেস এই বিক্ষোভে সামিল হয় সবাই। স্টান স্বামীকে আরও কয়েকজনের সঙ্গে মাওবাদী তকমা দিয়ে গ্রেপ্তার করে ন্যাশনাল সিকিউরিটি এজেন্সি। ভীমা করেগাও কান্ড ও এলগার পরিষদ মামলায় তাদের অভিযুক্ত করা হয়। ৮৪ বছরের ফাদার স্টান স্বামী সম্পর্কে অভিযোগ ছিল যে এই জেসুইট পাদ্রী আদিবাসীদের রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে খেপাচ্ছেন। দু'বছর আগে ৮২ বছরের বৃদ্ধ স্টান স্বামী সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতির কাছে দু হাত জোর করে আবেদন জানান, তিনি অসুস্থ। তাঁকে চিকিৎসার জন্যে জামিন দেওয়া হোক।
কিন্তু পার্কিংশন্স ডিজিজ এ আক্রান্ত, দৃষ্টিশক্তিহীন স্টান স্বামী সম্পর্কে এন আই এর অভিমত হল, তিনি রাষ্ট্রের পক্ষে বিপজ্জনক। তাঁকে জামিন দেওয়া উচিত নয়। দু'বছর জেলে ভুগে ভুগে অবসন্ন স্টান স্বামী কদিন আগেই জেল এ অচৈতন্য হয়ে পড়েন। তাঁকে জেল থেকে নিয়ে গিয়ে হোলি হাসপাতালে ভেন্টিলেশন এ রাখা হয়। কোমা অবস্থায় সোমবারই স্টান স্বামীর মৃত্যু হয়। এই মৃত্যুতে রাষ্ট্রসংঘ থেকে শুরু করে আমনিষ্টি এবং বিশ্ব মানবাধিকার সংগঠন পর্যন্ত সরব হয়েছে। কিন্তু হেলদোল নেই নরেন্দ্র মোদি-অমিত শাহদের। সরকারের পক্ষ থেকে কোনও বিবৃতি পর্যন্ত জারি করা হয়নি। যাদবপুরে বামেরা কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখায়। কুশপুতুল দাহ হয় মোদি-শাহর। তৃণমূল কংগ্রেস বিক্ষোভে সামিল হয়। তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ওব্রায়েন টুইট করেন যে রাষ্ট্র ঠান্ডা মাথায় খুন করেছে স্টান স্বামীকে। আন্তর্জাতিক দুনিয়ায় দেশ কলংকিত হল।

আপনার মতামত দিন

কলকাতা কথকতা অন্যান্য খবর

কলকাতা কথকতা

নুসরাত আত্মঘাতী হতে চেয়েছিলেন!

২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১



কলকাতা কথকতা সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status