পুঁজিবাজারে আসছে প্রথম সুকুক বন্ড

বেক্সিমকোর প্রস্তাবে বিএসইসি’র সায়

অর্থনৈতিক রিপোর্টার

প্রথম পাতা ২৪ জুন ২০২১, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:১০ অপরাহ্ন

পুঁজিবাজারের তালিকাভুক্ত কোম্পানি বাংলাদেশ এক্সপোর্ট-ইমপোর্ট কোম্পানি লিমিটেডের (বেক্সিমকো লিমিটেড) প্রস্তাবিত সুকুক বন্ড বা ইসলামী শরীয়াহ্‌সম্মত বন্ড ইস্যুতে অভিপ্রায়পত্র (Letter of Intent) তথা প্রাথমিক সম্মতি দিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি। এটি দেশে প্রথম গ্রিন সুকুক বন্ড।
বুধবার অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৭৭৯তম কমিশন সভায় এই অভিপ্রায় পত্রের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
এতে বলা হয়, অ্যাসেট ব্যাকড গ্রিন সুকুক ইস্যুর মাধ্যমে বেক্সিমকো ৩ হাজার কোটি টাকা সংগ্রহ করবে। এই বন্ডের মেয়াদ হবে ৫ বছর। এটি কনভার্টেবল অথবা রিডিমেবল হতে পারে। অর্থাৎ বন্ডের একটি অংশ সাধারণ শেয়ারে রূপান্তরের সুযোগ থাকতে পারে; আবার মেয়াদ শেষ সম্পূর্ণ অবসায়নের বিকল্পও থাকতে পারে এতে।
অভিপ্রায়পত্র পাওয়ার ৫ কার্যদিবসের মধ্যে সুকুকের প্রস্তাবিত ট্রাস্টির নিবন্ধন সনদ এবং কমিশন কর্তৃক অনুমোদিত ট্রাস্ট ডিডিসহ চূড়ান্ত সাবস্ক্রিপশন এগ্রিমেন্ট জমা দিতে হবে। এগুলো পাওয়ার পর কমিশন সম্মতিপত্র ইস্যু করবে।
বন্ডের ৩ হাজার কোটি টাকার মধ্যে ৭৫০ কোটি টাকা বিদ্যমান শেয়ারহোল্ডারদের কাছ থেকে। ১ হাজার ৫০০ কোটি টাকা শেয়ারহোল্ডার ব্যতিত অন্যান্য বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে সংগ্রহ করা হবে এবং বাকি ৭৫০ কোটি টাকার বন্ড প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে ইস্যু করা হবে।
সুকুকের প্রতি ইউনিটের অভিহিত মূল্য হবে ১০০ টাকা।
আর ৫০টি ইউনিট নিয়ে এর ন্যূনতম লট। এ হিসাবে এক লটের দাম ৫ হাজার টাকা। বন্ডের মেয়াদি পরিশোধের ন্যূনতম হার হবে ৯ শতাংশ।
সুকুকের মাধ্যমে সংগ্রহ করা অর্থ বেক্সিমকোর দু’টি সহযোগী প্রতিষ্ঠানে বিনিয়োগ করা হবে। কোম্পানি দু’টি হচ্ছে তিস্তা সোলার লিমিটেড ও করতোয়া সোলার লিমিটেড। এই দু’টি কোম্পানি সৌর বিদ্যুৎ উৎপাদন করবে এবং এর মাধ্যমে পরিবেশ উন্নয়ন ও সংরক্ষণে ভূমিকা রাখবে।
বেক্সিমকোর এই সুকুকের ইস্যু ম্যানেজার, অ্যারেঞ্জার ও অ্যাডভাইজার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছে সিটি ব্যাংক ক্যাপিটাল রিসোর্সেস লিমিটেড এবং অগ্রণী ইক্যুইটি অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড। আর ট্রাস্টি হিসেবে আছে রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশ (আইসিবি)।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Kazi

২০২১-০৬-২৩ ১৬:৩৭:৪৩

যে দেশে শতকরা ৯৯ জন ঘুষ খায়, বাজারে গিয়ে হালাল মাংস খোঁজে তদ্রূপ ইসলামী ভণ্ড বা ইসলামী ব্যাংক সব ভাঁওতা। কারণ হালাল রোজী না হলে ইসলামী ব্যাংক রাখলে হালাল হবে না ইসলামী ভণ্ড ও হালাল হবে না।

আপনার মতামত দিন

প্রথম পাতা অন্যান্য খবর

চিকিৎসকরা ক্লান্ত, স্বজনদের আহাজারি

সিট নেই, অক্সিজেন নেই

২৫ জুলাই ২০২১

কণ্ঠযোদ্ধার বিদায়

২৫ জুলাই ২০২১

সিলেট উপনির্বাচন-৩

শেষ মুহূর্তের সমীকরণ

২৫ জুলাই ২০২১

সরজমিন খুমেক হাসপাতাল

‘বহু চেষ্টা করেছি বাবাকে বাঁচাতে পারলাম না’

২৪ জুলাই ২০২১

অলিম্পিক লরেল গ্রহণ করলেন ড. ইউনূস

২৪ জুলাই ২০২১

ক্রীড়া জগতের সর্বোচ্চ পুরস্কার অলিম্পিক লরেল পেলেন নোবেল বিজয়ী বাংলাদেশি প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূস। শুক্রবার জাপানে ...



প্রথম পাতা সর্বাধিক পঠিত



৫০,০০০ ফোনে আড়ি, হিম আতঙ্ক

পেগাসাস রিপোর্টে বাংলাদেশও আছে

সিলেট উপনির্বাচন-৩

শেষ মুহূর্তের সমীকরণ

চিকিৎসকরা ক্লান্ত, স্বজনদের আহাজারি

সিট নেই, অক্সিজেন নেই

বিদেশে পড়াশোনা প্রকল্প

বাস্তবায়নে গণ্ডগোল

DMCA.com Protection Status