আলাপন

ভুলে যাচ্ছি আমি একজন শিল্পী -নাসরিন

মাজহারুল তামিম

বিনোদন ২২ জুন ২০২১, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ২:২০ অপরাহ্ন

সোহানুর রহমান সোহান পরিচালিত ‘লাভ’ ছবির মধ্য দিয়ে ১৯৯২ সালে চলচ্চিত্রে যাত্রা শুরু করেন অভিনেত্রী নাসরিন আক্তার। নৃত্য সহশিল্পী হিসেবে যাত্রাটা শুরু হলেও দেশের প্রথম সারির অনেক নায়কের বিপরীতেও অভিনয় করেছেন তিনি। পাঁচ শতাধিক চলচ্চিত্রে অভিনয় করা হয়েছে তার। তবে এখন তাকে সিনেমা অঙ্গনে খুব একটা দেখা যায় না। কেমন আছেন? নাসরিন বলেন, আল্লাহর রহমতে ভালোই আছি। কাজের খবর কী? এ অভিনেত্রী বলেন, একদম কাজ নেই। ঘরে থাকতে থাকতে ভুলে যাচ্ছি আমি একজন শিল্পী। দু-এক বছর এইভাবে চললে দেখা যাবে নিজেকে আর শিল্পী হিসেবে উপস্থাপন করতে পারবো না।
কেউ ডাকলেও আগ্রহ থাকবে কিনা জানি না। সবশেষ শুটিং করেছেন কোন সিনেমার? নাসরিন বলেন, দেড় বছর আগে মোস্তাফিজুর রহমান মানিকের পরিচালনায় 'আনন্দ অশ্রু' সিনেমায় অভিনয় করেছি। এরপর আর কাজ করা হয়নি। আপনার সময় কাটে কীভাবে? নাসরিন বলেন, পরিবারের সঙ্গেই। দীর্ঘদিন অভিনয় করি না। তবে চলচ্চিত্রের খবর ঠিকই রাখি। টেলিভিশন দেখে, পত্রিকা পড়ে জানার চেষ্টা করি। আপনাদের সময় সিনেমার রমরমা একটা অবস্থা ছিল। এখন অবস্থা নাজুক। এমন অবস্থার পেছনের কারণ কী মনে হয়? উত্তরে নাসরিন বলেন, কারও দোষও দেয়া যাবে না। সবকিছু মিলিয়ে অবস্থাটা এমন হয়ে গেছে। এখান থেকে উত্তরণের উপায় আছে বলে  মনে হয়? এ অভিনেত্রী বলেন, সবাই মিলে যদি এগিয়ে আসে, সবাই সবার জায়গায় সৎ থাকে তাহলে আবার ইন্ডাস্ট্রি ঘুরে দাঁড়াতেও পারে। টাকা-পয়সাটাই বড় কথা না। এটা একটা শিল্পের জায়গা। জায়গাটা ধরে রাখা উচিত। এটা আমাদের ঐতিহ্য। বাংলাদেশে চলচ্চিত্র ধ্বংস হয়ে গেছে। এটা অন্যান্য দেশের লোকজন শুনবে। ধিক্কার দিবে। হাস্যকর হবে বিষয়টা। শুধু শিল্পীদেরই না। সমস্ত নাগরিকেরই দায়িত্ব আছে চলচ্চিত্র নিয়ে ভাবার। যেহেতু সিনেমা দেশের সম্পদ। আমরা কাজ না করি। অন্তত পক্ষে আমাদের  চলচ্চিত্র বেঁচে থাক আজীবন। মানুষ যাতে বলতে না পারে, সিনেমা তো শেষ! শুনতেও খুব কষ্ট লাগে এসব। এমন না যে চলচ্চিত্রের অবস্থা ভালো হলেই কাজ করবো। নতুনরা অসুক। ভালো করুক। নতুন যারা আসবে ভালোভাবে মাথা উঁচু করে কাজ করুক। মানুষজন যদি বলে, বাংলাদশের চলচ্চিত্র ঘুরে দাঁড়িয়েছে। ভালো হচ্ছে। এটাই পাওয়া ও গৌরবের। যে কষ্টটা আছে সেটা থাকবে না।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

KAYES

২০২১-০৬-২২ ০১:১০:৪২

One of my favorite actress. She has the potential to be a main character, but our so called top directors didn't paid attention. Also she was the target of few actresses back then. Could be better.

আপনার মতামত দিন

বিনোদন অন্যান্য খবর

ফারিণের সিদ্ধান্ত

২৯ জুলাই ২০২১



বিনোদন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status