গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই নকআউট পর্বে নেদারল্যান্ডস

স্পোর্টস ডেস্ক

খেলা ২২ জুন ২০২১, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:১৪ অপরাহ্ন

শেষ ষোলো নিশ্চিত হয়েছিলো আগেই। তারপরেও নর্থ মেসিডোনিয়াকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে হয়েই নকআউট পর্বে নেদারল্যান্ডস। সোমবার রাতে ইউরোর গ্রুপ সি এর ম্যাচে আমস্টারডমে ইয়োহেন ক্রুইফ অ্যারেনায় মুখোমুখি হয়েছিল দুই দল। প্রথমার্ধে মেম্ফিস ডিপাই ও দ্বিতীয়ার্ধে জর্জিনিও উইজনালডমের জোড়া গোলে তিন গোলের বড় জয় পেয়েছে স্বাগতিকরা।
যার ফলে সি গ্রুপে নিজেদের সবগুলো ম্যাচই জিতল নেদারল্যান্ডস আর উত্তর মেসিডোনিয়া হারল নিজেদের সবকয়টি ম্যাচ। পূর্ণ ৯ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে নকআউট পর্বে ডাচরা আর মেসিডোনিয়ানদের বিদায় নিতে হলো তিন ম্যাচে ৮ গোল হজমের গ্লানি নিয়ে।
ইউরো কাপে প্রথমবারের মতো খেলতে এসে গ্রুপের তিন ম্যাচ হেরে বিদায় নেয়া তৃতীয় দল উত্তর মেসিডোনিয়া। সর্বপ্রথম ১৯৮৪ সালে অভিষেক আসরের সব ম্যাচ হেরেছিল ডেনমার্ক। পরে ১৯৯৬ সালের আসরে প্রথমবার অংশ নিয়ে তুরস্ক হেরেছিল সব ম্যাচ। এর ২৫ বছর পর তৃতীয় দল হিসেবে এ তালিকায় নাম তুলল উত্তর মেসিডোনিয়া।
অন্যদিকে নেদারল্যান্ডস ফেরাল নিজেদের ১৩ বছর আগের স্মৃতি।
ইউরো কাপের ইতিহাসে এ নিয়ে তৃতীয়বার গ্রুপের সব ম্যাচ জিতেছে তারা। এর আগে ২০০০ সালের প্রথমবার সব ম্যাচ জিতেছিল দলটি। আর সবশেষ ২০০৮ সালে গড়েছিল একই কীর্তি।
এদিন ম্যাচের ১০ মিনিটের মধ্যেই জালে বল ঢুকিয়েছিলেন ইভান ট্রিকোভস্কি। কিন্তু অফসাইডে বাতিল হয়ে যায় সেটি। ফলে আসরে প্রথমবারের মতো লিড নেয়া হয়নি উত্তর মেসিডোনিয়ার।
ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে আরও একবার নেদারল্যান্ডসের জালের ঠিকানা খুঁজে নিয়েছিল উত্তর মেসিডোনিয়া। এবারও উঠে যায় লাইন্সম্যানের অফসাইডের পতাকা, বাতিল হয় গোল। এ যাত্রায় নেদারল্যান্ডসের সাজানো অফসাইড ফাঁদে পড়েন বদলি খেলোয়াড় ডার্কো কার্লিনভ।
এর বাইরে সারা ম্যাচে তেমন একটা ভালো খেলতে পারেনি উত্তর মেসিডোনিয়া। ম্যাচের ২৪ মিনিটের সময় প্রথম গোল করেন সম্প্রতি স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনায় যোগ দেয়ার ঘোষণা দেয়া মেম্ফিস ডিপাই। ডনিয়েল মালেনের পাস থেকে ঠা-া মাথায় বাম পায়ের শটে বল জালে জড়ান তিনি।
বিরতিতে যাওয়ার আগে আর ব্যবধান দ্বিগুণ করতে পারেনি ডাচরা। তবে ম্যাচের ৫১ ও ৫৮ মিনিটে জোড়া গোল করে মেসিডোনিয়াকে ম্যাচ থেকে ছিটকে দেন জর্জিনিও উইজনালডম। তার প্রথম গোলের এসিস্ট করেন মেম্ফিস ডিপাই আর দ্বিতীয়টি ছিল বার পোস্টে ফেরত লেগে আসা বল থেকে।
এটি ছিল উত্তর মেসিডোনিয়ার কিংবদন্তি খেলোয়াড় গোরান পান্দেবের শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ। তাকে সেরা উপহার দেয়া সর্বোচ্চ চেষ্টাই করেছিল মেসিডোনিয়ার খেলোয়াড়রা। দুইবার বল জালে জড়ালেও সেগুলো হয় অফসাইড। ফলে ০-৩ গোলের পরাজয় নিয়েই শেষ করতে হয়েছে পান্দেবকে।
এ জয়ের সুবাদে তিন ম্যাচে ৯ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই নকআউট পর্বে নাম লেখাল নেদারল্যান্ডস। একই সময়ে হওয়া অন্য ম্যাচে ইউক্রেনকে ১-০ গোলে হারিয়ে গ্রুপের দ্বিতীয় দল হিসেবে শেষ ষোলোর টিকিট পেয়েছে অস্ট্রিয়া।
আর তিন ম্যাচে ৩ পয়েন্ট পাওয়া ইউক্রেনেরও সম্ভাবনা মিলিয়ে যায়নি। কারণ এবারের ইউরোর ফরম্যাট অনুযায়ী চারটি গ্রুপ থেকে তৃতীয় দলকেও দেয়া হবে নকআউটের টিকিট।
সেক্ষেত্রে ছয় গ্রুপেরই তৃতীয় হওয়া দলগুলোর পয়েন্ট ও গোল ব্যবধান আনা হবে বিবেচনায়। সেই হিসেবে যে ৪ দল এগিয়ে থাকবে তারাই যাবে নকআউটে। তাই গ্রুপে তৃতীয় হলেও আশা টিকে রয়েছে ইউক্রেনের।

আপনার মতামত দিন

খেলা অন্যান্য খবর



খেলা সর্বাধিক পঠিত



বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া টি-টোয়েন্টি সিরিজ

কোয়ারেন্টিনে আক্রান্ত দু’জন, আরও সতর্ক বিসিবি

DMCA.com Protection Status