কোচ জেমিকে ছাড়ছে না বাফুফে

স্পোর্টস রিপোর্টার

খেলা ২২ জুন ২০২১, মঙ্গলবার

কোচের সঙ্গে বাফুফের তিক্ততা শুরু কাতার ম্যাচ খেলতে যাওয়া নিয়ে। এতো অল্প প্রস্তুতিতে কাতারের বিপক্ষে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচ খেলতে রাজি ছিলেন না জেমি ডে। এ নিয়ে সংবাদ মাধ্যমে খোলামেলা কথাও বলেছিলেন এই বৃটিশ কোচ। যা মোটেও পছন্দ হয়নি বাফুফে সভাপতি কাজী মোহাম্মদ সালাউদ্দিনের। এরপর নেপালে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে জেমি ডে অতিমাত্রায় পরীক্ষা নিরীক্ষাও ভালোভাবে নেননি বাফুফে বস। নেপালে সিরিজ হারার ব্যাখ্যাতেও মন গলেনি বাফুফের সভাপতির। পরে জানিয়ে দেন বিশ্বকাপ বাছাই পর্যন্ত দেখবেন তাকে। বিশ্বকাপ বাছাইয়ের শেষ পর্বে এক আফগানিস্তানের ম্যাচ ছাড়া জাতীয় দলের খেলায় সন্তুষ্ট হওযার কোনো কারণ নেই।
তারপরেও চাকরিচ্যুত হচ্ছেন না জেমি ডে। ভাগ্যগুণে এশিয়ান বাছাই দ্বিতীয় পর্বের বাধা টপকে যাওয়ায় আপাতত পার পাচ্ছেন এই ইংলিশ কোচ। গতকাল কোচের সঙ্গে সভা শেষে সে কথাই বলেছেন বাফুফে সভাপতি। যদিও বাফুফের একটা পক্ষ এখনো জেমি ডে’কে ছাঁটাই করার পক্ষে। তাদের দাবি, তৃতীয় রাউন্ডে উতরে গেলেও কাতারে বাংলাদেশ ভালো খেলেনি। তার অতিমাত্রায় রক্ষণাত্মক কৌশলও পছন্দ নয় অনেকের।
তিন বছর আগে বছরের মাঝামাঝি সময়ে জেমিকে প্রধান কোচ হিসেবে দায়িত্ব দেয় বাফুফে। পরে তার সঙ্গে আরও দুই বছরের নতুন চুক্তি নবায়ন করা হয়। চুক্তি শেষ হবে ২০২২ সালের মাঝামাঝিতে। তবে বাফুফের একটি পক্ষ চাইলেই তাকে এখনই বিদায় করা সম্ভব নয়। কারণ তার চুক্তির শর্ত। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বাফুফের অন্যতম এক শীর্ষ কর্মকর্তা জানান, চুক্তিতে কিছু ঝামেলা আছে। তাই অতটা সহজ হবে না তাকে বহিষ্কার করাটা। বহিষ্কার করলে বিপুল অর্থ দিতে হবে।’ এ কারণেই কোয়ারেন্টিন পর্ব শেষে গতকাল কোচের সঙ্গে বসেন বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন। তাকে বহিষ্কারের চিন্তা বাদ দিয়ে আলোচনা করেন কাতারের পারফরমেন্স, আগামীর পরিকল্পনা ও ফেডারেশনের চাহিদা নিয়ে। মূলত এশিয়ান কাপ বাছাই শুরু হওয়ার আগে দুই পক্ষের পরিকল্পনা নিয়েই বেশি আলোচনা হয় এই সভাতে।
জেমি ডের অধীনে এখনো কোনো শিরোপা জেতেনি বাংলাদেশ। অর্জন বলতে ২০১৮ এশিয়ান গেমসে কাতারকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো দ্বিতীয় রাউন্ডে ওঠা। সেটাও অনূর্ধ্ব-২৩ দলের খেলায়। এ ছাড়া সাফ ফুটবলের গ্রুপ পর্বেই বিদায় ও বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে সেমি থেকে ছিটকে যাওয়াসহ খেলার ধরন নিয়েও অখুশি অনেকে। সবশেষ বিশ্বকাপ বাছাইয়ে আট ম্যাচে দুই পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপে পঞ্চম হয় বাংলাদেশ। যদিও এই দুই পয়েন্টই এশিয়ান কাপের মূল বাছাইয়ে জায়গা পায় জামাল-জিকুরা। এরপরও বিশ্বকাপ বাছাইয়ের তৃতীয় রাউন্ড পর্যন্ত জেমি ডের ওপর আস্থা রাখতে চলেছে ফেডারেশন। এই কারণ ব্যাখ্যা করে সালাউদ্দিন বলেন, আমরা চেষ্টা করছি। হয়তো কোচের চাহিদার পুরোটা হচ্ছে না। আমরা সামনের দিনগুলোতে কোচের চাহিদার পুরোটা দিয়ে চেষ্টা করতে চাই। কাতারের পারফরমেন্স নিয়ে কোচের ব্যাখ্যায় সন্তুষ্ট হতে পেরেছেন কিনা জানতে চাইলে বাফুফে বস বলেন, কোচ আমাকে বলেছে প্রস্তুতি ম্যাচের ঘাটতির কথা। সেটা আমিও মানছি। এ ছাড়া ইনজুরির কারণে সেরা একাদশ গড়তে না পারাটাও একটা কারণ হতে পারে। তবে এসব সামনের দিনগুলোতে কোনো কারণ যাতে না হয় সেটা ওকে বলে দেয়া হয়েছে।

আপনার মতামত দিন

খেলা অন্যান্য খবর



খেলা সর্বাধিক পঠিত



বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া টি-টোয়েন্টি সিরিজ

কোয়ারেন্টিনে আক্রান্ত দু’জন, আরও সতর্ক বিসিবি

DMCA.com Protection Status