দেশের স্বাস্থ্যের অবস্থা করুণ: ফখরুল

স্টাফ রিপোর্টার

অনলাইন (১ মাস আগে) জুন ২০, ২০২১, রোববার, ৪:০৮ অপরাহ্ন

সরকার পরিকল্পিতভাবে দেশের অর্থনীতিকে ধ্বংস করার পাশাপাশি লুটপাটের রাজত্ব কায়েম করেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। রোববার জাতীয় প্রেস ক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে ‘সমাজ উন্নয়নে মৃত্যুঞ্জয়ী জিয়া’ শীর্ষক গোলটেবিল আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন। জিয়াউর রহমানের ৪০তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে জিয়া পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটি এ সভার আয়োজন করে।
মির্জা ফখরুল বলেন, এই সরকার পরিকল্পিতভাবে, পরিকল্পিত ওয়েতে বাংলাদেশের অর্থনীতিকে ধ্বংস করছে। লুট করছে, লুটপাটের রাজত্ব কায়েম করেছে। এমন নয় যে তারা ইচ্ছে করে করছে।
তিনি বলেন, মেগা প্রজেক্টের সবচেয়ে বড় সমস্যা যেটা, সেটা হলো- গণলুট। ১০ হাজার কোটি টাকার প্রজেক্ট হয়ে যাচ্ছে ৫০ হাজার কোটি টাকার প্রজেক্ট। এভাবে তারা মেগা প্রজেক্টগুলোকে টাকা বানানোর প্রজেক্ট হিসেবে নিয়েছে। অন্যদিকে দেখুন প্রত্যেকটি জায়গায় এমন এমন কাজ করা হচ্ছে, সেখানে ওই কাজের কোনো দরকারই নেই।
গেট তৈরির জন্যে টাকা ব্যয় করা হচ্ছে।
স্বাস্থ্য খাত করুণ অবস্থায় রয়েছে মন্তব্য করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, এখন পর্যন্ত করোনার টিকার কোনো নিশ্চয়তা নেই। টিকার নিশ্চয়তা হবেও না। এই জন্যে যে যারা এই স্বাস্থ্যখাতের সঙ্গে জড়িত, টিকার সঙ্গে জড়িত, তারা সবাই দুর্নীতিতে জড়িত। এত বড় দুর্নীতি করছে, যে দুর্নীতির মাধ্যমে মানুষের জীবনকে মূল্যহীন করে তুলছে। আজকে বাংলাদেশের দিকে তাকিয়ে দেখলে দেখব- মানুষের জীবনের কোনো মূল্য নেই, কোনো নিরাপত্তা নেই। খবরের কাগজ খুললেই দেখতে পাবেন ভয়াবহ গুম, হত্যার ঘটনা।
তিনি বলেন, কৃষিপণ্যের মার্কেটিংয়ের জন্য কোনো ব্যবস্থা করা হচ্ছে না। কয়েকদিন আগে একজন কৃষক মাথায় হাত দিয়ে বলেছেন, এত সবজি উৎপাদন করলাম, কিন্তু বাজারজাত করতে পারছি না। সরকার কি পারে না আমাদের এ পণ্য বাজারজাত করতে?
দেশ যখন অন্ধকারের মধ্যে ছিল সেই সময় জিয়াউর রহমান জাতিকে আলোর পথ দেখিয়েছিলেন উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, দেশের অর্থনীতিতে বৈপ্লবিক পরিবর্তন নিয়ে এসেছিলেন জিয়াউর রহমান। একটা রাজনৈতিক সংস্কারেও অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছেন তিনি। গণমাধ্যমসহ সব বিষয়ে জিয়াউর রহমান অবদান রেখেছেন।
আয়োজক কমিটির চেয়ারম্যান ও বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুসের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান আলোচক ছিলেন অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক ড. মাহবুব উল্লাহ।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, জিয়াউর রহমান আমাদের মর্যাদা দিয়েছেন, কাজ দিয়েছেন। এমন কোনো কাজ নেই, যেখানে তিনি অবদান রাখেননি। যারা আজ ক্ষমতায় আছে, তারা কথায় কথায় তাকে (জিয়াউর রহমান) নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করে নিজেদের অসম্মানিত করছে, হাসির পাত্র হচ্ছে তারা।
সভায় বক্তারা শহীদ জিয়ার আদর্শ ও কর্মকা- বিশদভাবে তথ্য তুলে ধরেন। তারা বলেন, দেশ পরিচালনায় অগ্রণী ভূমিকা রেখেছিলেন জিয়াউর রহমান। তিনি বাংলাদেশের উন্নয়নে সব বিষয়ে কাজ করেছেন। তার আদর্শ ধারণ করে সামনের পথ চলা উচিত। তিনি অল্প সময়ে দেশকে সুসংগঠিত করে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে গেছেন।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Kazi

২০২১-০৬-২০ ২০:৩০:৫২

১৫ বছর যথেষ্ট লম্বা সময়। স্বাস্থ্যের কি উন্নতি করে রেখেছিলেন ? আজ দোষারোপ করছেন জনাব । বাংলাদেশে কেউ স্বাস্থ্য ব্যবস্থার উন্নতি করতে চায় না। টাকা আছে বিদেশ গিয়ে চিকিৎসা নিবে। আল্লাহ্ করোনা দিয়ে দেখিয়ে দিলেন টাকা থাকলে ও বিদেশি হাসপাতালে চিকিৎসার সুযোগ নাই। এটা চোখে আঙ্গুল দিয়ে শিক্ষা।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

লকডাউন ঢিলেঢালা!

২৭ জুলাই ২০২১

উপকূলে ঝড়ের আভাস

২৭ জুলাই ২০২১



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status