সংসদে ভাণ্ডারীর বক্তব্যের প্রতিবাদে ৩১৩ আলেমের বিবৃতি

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম থেকে

এক্সক্লুসিভ ২০ জুন ২০২১, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ৯:৪৫ পূর্বাহ্ন

জাতীয় সংসদে গত ১৭ই জুন তরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান নজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারীর প্রদত্ত বক্তব্য উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও উস্কানিমূলক দাবি করে বিবৃতি দিয়েছেন দেশের ৩১৩ শীর্ষ আলেম। গতকাল সাবেক হেফাজত নেতা মাওলানা মাইনুদ্দিন রুহি কর্তৃক প্রেরিত বিবৃতিতে বলা হয়, গত ১৭ই জুন মহান জাতীয় সংসদে নজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারীর উস্কানিমূলক বক্তব্য আমাদেরকে হতাশ করেছে। ভাণ্ডারী গ্রামের মহিলাদের মতো ‘সতীন্যা’ ঝগড়ায় লিপ্ত হয়ে মহান জাতীয় সংসদকে অপবিত্র করেছেন। মূলত তার বক্তব্যে তিনি যে একজন নিচু মনের মানুষ, ভণ্ড ও প্রতারক তা প্রকাশ পেয়েছে।
বিবৃতিতে আলেমরা বলেন, ভাণ্ডারী একজন মাজার পূজারী ব্যবসায়ী। তার সব সময় নজর থাকে মানুষের গোয়াল ঘরের দিকে। কখন তাদের কাছ থেকে তাদের গরু, ছাগল, মহিষ নিয়ে ভণ্ডামীতে শরিক করবে-তিনি এটাই ভাবেন। জাতীয় সংসদের রীতিনীতি, মান-সম্মান নিয়ে ভাববার সময় তার নেই। ‘কাঠবিড়ালি কর্তৃক বাগান ভাগ করার মতো আল্লামা শফী ও বাবুনগরীর গ্রুপ ভাগ করার ভাণ্ডারী কেউ নয়।
ভাণ্ডারী এলাকার জামায়াত-শিবির ও মাদক ব্যবসায়ীদের নিয়ে রাজনীতি করেছেন। তিনি ভিন্নমতাদর্শের ক্যাডারদের সংগঠিত করে ফটিকছড়িতে ত্রাসের রাজনীতি কায়েম করেছেন। সমপ্রতি গড়ে ওঠা মামা-ভাগিনার ফটিকছড়ি সমিতির ছায়ায় নিজের শেষ রক্ষার কৌশল নিয়েছেন তিনি। আলেমরা বলেন, এই নজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারী একজন সুযোগ সন্ধানী ও পল্টিবাজ মানুষ। তিনি ফটিকছড়িতে জামায়াত ও বিএনপি’র সঙ্গে লিয়াজোঁ করে চলেন। কিছুদিন বিএনপিতে যোগদান আবার তওবা করে আওয়ামী লীগে যোগদান। আপাদমস্তক দুর্নীতিতে নিমজ্জিত নজিবুলের সম্পদ পাঁচ বছরে বেড়েছে দশগুণ। ক্ষমতালোভী ভাণ্ডারীর ক্ষমতার অপব্যবহার করে মাইজভাণ্ডারকেও কয়েক গ্রুপে বিভক্ত করে রেখেছেন। হেফাজত নিয়ে তার বক্তব্য প্রত্যাহারের দাবিও জানান তারা। বিবৃতিদাতাদের মধ্যে আছেন মুফতি সাঈদ আহমদ মিরপুর, মাওলানা মুফতি নাসির উদ্দীন, মাওলানা আবু তুরাব নদভী, মাওলানা আবুল কাসেম নুমানী, মাওলানা সাব্বির আহমদ উসমানী, মাওলানা কাজী বশিরুল্লাহ জীলানী, মাওলানা মাহমুদুল হাসান ফতেহপুর, মাওলানা মুফতি জমির উদ্দিন, মাওলানা আতা উল্লাহ (পীর সাহেব উজানী), মাওলানা নুরুল ইসলাম (পীর সাহেব আগারগাঁও), মাওলানা আবু মুসা হাটহাজারী, মাওলানা আনওয়ার শাহ বি.বাড়িয়া, মাওলানা উবাইদুল্লাহ মুন্সীগঞ্জ, মাওলানা নিয়ামতুল্লাহ আমিনী প্রমুখ।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

শাজিদ

২০২১-০৭-০৭ ১৯:১৩:৩৩

ভান্ডারী হচ্ছে একটি ঘুন্নিত শব্দ। ভান্ডারী মানেই কবর মাজার পুঁজারী। কবর মাজার পুঁজা মানেই ধাঁন্ধাবাজী।

আপনার মতামত দিন

এক্সক্লুসিভ অন্যান্য খবর

ডাক্তার হয়েও আন্তর্জাতিক মহাপ্রতারক

২ আগস্ট ২০২১

ইসরাত রফিক ঈশিতা (৩৪)। ২০১৩ সালে ময়মনসিংহের একটি বেসরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে এমবিবিএস সম্পন্ন ...

৫৫ বছর পর...

২ আগস্ট ২০২১

খুলনা বিভাগ

করোনায় আরও ৪১ জনের মৃত্যু শনাক্ত ১০১৯

৩০ জুলাই ২০২১

বিলিয়ন ডলারের রণতরী

বাংলাদেশের বিবেচনায় এগিয়ে তুরস্কের প্রস্তাব

২৮ জুলাই ২০২১

বাংলাদেশ নৌবাহিনী তার বহু বিলিয়ন ডলারের ফ্রিগেট বা রণতরী নির্মাণ কর্মসূচি চূড়ান্ত করার উদ্দেশ্যে আরও ...

সরজমিন মুগদা হাসপাতাল

রোগী ফিরিয়ে দেয়া হচ্ছে মুগদায়

২৭ জুলাই ২০২১

বরগুনায় সাবেক ইউপি সদস্যকে পিটিয়ে হত্যা

ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৩৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা

২৫ জুলাই ২০২১



এক্সক্লুসিভ সর্বাধিক পঠিত



সরজমিন মুগদা হাসপাতাল

রোগী ফিরিয়ে দেয়া হচ্ছে মুগদায়

বরগুনায় সাবেক ইউপি সদস্যকে পিটিয়ে হত্যা

ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৩৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা

DMCA.com Protection Status