মাদক নিয়ে রিপোর্ট করার পর ‘মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায়’ সাংবাদিকের মৃত্যু

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন (১ মাস আগে) জুন ১৪, ২০২১, সোমবার, ১২:২২ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ৯:২৯ অপরাহ্ন

মাদক মাফিয়াদের বিরুদ্ধে রিপোর্ট করেছিলেন ভারতের উত্তর প্রদেশের প্রতাপগড় জেলার টেলিভিশন সাংবাদিক সুলভ শ্রীবাস্তব। এর ফলে তিনি জীবন নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন। এর বিরুদ্ধে তিনি সিনিয়র পুলিশ কর্মকর্তাদের কাছে হুমকির বিষয়টি লিখিতভাবে জানিয়েছিলেন। এরপরই তিনি রোববার রাতে ‘মোটর সাইকেল দুর্ঘটনায়’ নিহত হয়েছেন। পুলিশ একে দুর্ঘটনা বললেও সাংবাদিকরা এবং বিরোধী কংগ্রেস এর বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছে। ভারতের কংগ্রেস দলের নেত্রী প্রিয়াংকা গান্ধী ভদ্র এ ঘটনায় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ ও তার সরকারের কড়া সমালোচনা করেছেন। এ খবর দিয়েছে অনলাইন এনডিটিভি।

এতে বলা হয়েছে, সাংবাদিক সুলভ শ্রীবাস্তব কাজ করতেন আনন্দবাজার গ্রুপের এবিপি নিউজ এবং এর আঞ্চলিক শাখা এবিপি গঙ্গা’য়।
সম্প্রতি তিনি জেলার মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে রিপোর্ট করেন। এ জন্য তিনি জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছিলেন। তা জানিয়েছিলেন পুলিশকে। তার মৃত্যুর ঘটনায় প্রতাপগড়ের সিনিয়র পুলিশ কর্মকর্তা সুরেন্দ্র দ্বিবেদী এক বিবৃতিতে বলেছেন, পেশাগত দায়িত্ব পালন শেষে রোববার স্থানীয় সময় রাত ১১টার দিকে মোটারসাইকেলে করে বাসায় ফিরছিলেন শ্রীবাস্তব। কিন্তু একটি ইটভাটার কাছে মোটরসাইকেল থেকে পড়ে যান তিনি। রাস্তা থেকে তাকে তুলে আনেন কয়েকজন শ্রমিক। তারা তার ফোন দিয়ে তার কয়েকজন বন্ধুকে ফোন দেন। তারাই এম্বুলেন্সে ফোন করেন। হাসপাতালে নেয়া হয় তাকে। এ সময় দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। প্রাথমিক তদন্তে দেখা যাচ্ছে ঘটনার সময় মোটরসাইকেলে একাই ছিলেন শ্রীবাস্তব। রাস্তায় একটি ‘হ্যান্ডপাম্পের’ সঙ্গে ধাক্কা লেগে দুর্ঘটনায় পড়েন তিনি। অন্যভাবেও আমরা তদন্ত করে দেখছি। তার মৃতদেহের ছবিতে দেখা যায়, তিনি মাটিতে পড়ে ছিলেন। এতে মুখে আঘাত পেয়েছেন। তার পোশাক খুলে নেয়া হয়েছে। তার শার্ট প্রায় খোলা। তার ট্রাউজার খুলে নেয়া হয়েছে।

অন্যদিকে পুলিশের কাছে লেখা চিঠিতে তিনি বলেছিলেন, জীবন নিয়ে শঙ্কিত তিনি। তার সেই চিঠি এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। টেলিভিশন চ্যানেলের সিনিয়র কর্মকর্তারা এ নিয়ে টুইট করেছেন। শ্রীবাস্তব তার চিঠিতে লিখেছিলেন, জেলায় মাদকের মাফিয়াদের একটি রিপোর্ট আমার চ্যানেলে ৯ই জুন প্রচার করা হয়েছে। এ রিপোর্টটি ব্যাপক সাড়া ফেলে। বাসা থেকে বের হলেই মনে হয় কেউ আমাকে ফলো করছে। আমার সূত্রের মাধ্যমে জানতে পেরেছি যে, মাদকের মাফিয়ারা আমার রিপোর্টের কারণে ক্ষুব্ধ এবং তারা আমার ক্ষতি করতে পারে। এ নিয়ে আমার পরিবারও উদ্বিগ্ন।

তার এই চিঠির বিষয়ে অবহিত বলে এবিপি নিউজকে ফোনে জানিয়েছেন সিনিয়র পুলিশ কর্মকর্তা প্রেম প্রকাশ। তিনি হুমকির বিষয়টি খতিয়ে দেখার নির্দেশ দিয়েছেন স্থানীয় কর্মকর্তাদের।

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status