ফের উত্তপ্ত কোম্পানীগঞ্জ হামলা, গুলি, ৪৮ ঘণ্টা হরতালের ডাক

স্টাফ রিপোর্টার ও কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি

প্রথম পাতা ১৩ জুন ২০২১, রোববার

ফের উত্তপ্ত নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ। গতকাল উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান বাদলের গাড়িতে হামলার ঘটনা ঘটে। এরপরই শুরু হয় সংঘর্ষ। এ সময় উভয় পক্ষের ৬ জন গুলিবিদ্ধসহ ১৫ জন আহত হয়েছেন। গতকাল সকাল ৯টা ২০ মিনিটে বসুরহাট উত্তর বাজার ইসলামী ব্যাংকের দক্ষিণ পাশে এই হামলার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ৪৮ ঘণ্টার হরতালের ডাক দেয়া হয়েছে।
হামলার সময় গাড়িতে থাকা আহত হাসিব আহসান আলাল জানান, শনিবার সকালে বসুরহাট হয়ে ঢাকা যাচ্ছিলাম। এ সময় উত্তর বাজার ইসলামী ব্যাংকের দক্ষিণ পাশে সফি ট্রেডার্সের সামনে পৌঁছালে মেয়র আবদুল কাদের মির্জার নির্দেশে ও উপস্থিতিতে তার সন্ত্রাসী বাহিনী কেচ্ছা রাসেল, পিচ্ছি মাসুদ, শিহাব খান, রাসেল ও খান সাহেবের নেতৃত্বে ২৫-৩০ জনের একদল সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আমাদের ওপর আক্রমণ করে।
এ সময় সন্ত্রাসীরা আমাদের গাড়ি ভাঙচুর এবং আমাদেরকে মারধর করে। ৩ রাউন্ড গুলিও ছোড়ে তারা। আহতদেরকে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার গুরুতর আহত বাদলকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করেন। বাদলের অবস্থা আরও অবনতি হলে তাকে ঢাকার ট্রমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।   
এদিকে হামলার ঘটনায় বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আব্দুল কাদের মির্জাকে দায়ী করে দোষীদের শাস্তি দাবি করেছেন উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলের সমর্থকরা। গতকাল সকাল সাড়ে ১০টা থেকে উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে সড়কে ব্যারিকেড দিয়ে আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ থেকে বক্তারা কদের মির্জাকে গ্রেপ্তার ও বিচার দাবি করেন। সরজমিন দেখা যায়, অবরোধ করে রাখা হয়েছে বসুরহাট টু বাংলাবাজার-চাপরাশির হাটের প্রধান সড়ক এবং উপজেলার ৮ ইউনিয়নের প্রধান প্রধান সড়কগুলো। উপজেলার প্রধান বাণিজ্যিক শহর বসুরহাট থেকে বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়েছে। এর আগে, শনিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বসুরহাট বাজারের প্রেস ক্লাব- কোম্পানীগঞ্জের সামনে বসুরহাট টু দাগনভূঞা সড়কে এই ঘটনা ঘটে। অপরদিকে এ হামলার প্রতিবাদে কোম্পানীগঞ্জের বিভিন্ন ইউনিয়নে এখনো কাদের মির্জাবিরোধী মিছিল করছেন বাদল অনুসারীরা।
এদিকে হামলার প্রতিবাদে শনিবার দুপুরে ৪৮ ঘণ্টার হরতালের ডাক দেয় কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের একাংশ। সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ভাগ্নে ও উপজেলা আওয়ামী লীগের মুখপাত্র মাহবুব রশিদ মঞ্জু তার ফেসবুক আইডি থেকে লাইভে এসে এ হরতালের ডাক দেন। এ সময় তিনি বলেন, মেয়র আবদুল কাদের মির্জা ও তার দোসরদের গ্রেপ্তার করতে হবে। মঞ্জু সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনাদের দিন শেষ, আপনারা ডুয়েল স্ট্যান্ডবাজি বন্ধ করুন। মাস্তান, খুনি ও সন্ত্রাসী মির্জা এবং তার দোসরদের গ্রেপ্তার করতে হবে। না হলে কোম্পানীগঞ্জে লাগাতার হরতাল দেয়া হবে। এ নৃশংস ঘটনাগুলোর দৃষ্টান্তমূলক বিচার করতে হবে। ১০০টি লাশ পড়লেও আমরা রাস্তা থেকে সরে যাবো না। আমরা আন্ডারগ্রাউন্ডে চলে গিয়ে আমাদের এ কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাবো। হরতাল ঘোষণার করার পর দুপুর ২টার দিকে উপজেলার চরকাঁকড়া ইউনিয়নের টেকের বাজার নামকস্থানে বাদলের অনুসারী কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ফখরুল ইসলাম সবুজের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল করে। বিক্ষোভ মিছিল শেষে বসুরহাট-চাপরাশিরহাট সড়কে কাঠ, গাছের গুঁড়ি ফেলে ও টায়ার জ্বালিয়ে ব্যারিকেড দিয়ে অবরোধ সৃষ্টি করা হয়। পুলিশ ব্যারিকেড ভাঙতে গেলে পুলিশের সঙ্গে অবরোধকারীদের সংঘর্ষ বেধে যায়। এসময় অবরোধকারীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে, পুলিশ আত্মরক্ষার্থে ৩৩ রাউন্ড শটগানের গুলি চালায়। গুলিতে ফখরুল ইসলাম সবুজ ও তার ছেলে তরিকুল ইসলাম চয়নসহ ৬ জন গুলিবিদ্ধ হয়। অপরদিকে ইটপাটকেল নিক্ষেপে ওসি (তদন্ত) আবুল কালামসহ ৩ কনস্টেবল আহত হন।   
এব্যাপারে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি খিজির হায়াত খান জানান, কাদের মির্জা গত ৫ মাস যাবৎ কোম্পানীগঞ্জে অশান্তি সৃষ্টি করছে। তার মস্তিষ্কের বিকৃতি ঘটেছে। গত শুক্রবার বিকালেও পৌরহলে এক অনুষ্ঠানে সেতুমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে গালিগালাজ করেছে।  
হামলার ব্যাপারে মেয়র আবদুল কাদের মির্জার মোবাইলে ফোন করলে তার একান্ত সহকারী ও কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক স্বপন মাহমুদ ফোন রিসিভ করে জানান, নেতা ব্যস্ত। হামলার কথা জিজ্ঞেস করলে স্বপন বলেন, মির্জা ভাইয়ের নেতৃত্বে কেন হামলা হবে। সে সময় তিনি বসুরহাট পৌরসভা কার্যালয়ে ছিলেন।
কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ বলেন, বাদল ও আলাল শনিবার সকালে ঢাকা যাওয়ার পথে বসুরহাট উত্তর বাজার  কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা প্রেস ক্লাবের সামনে তার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষরা এ হামলা চালিয়েছে। এর বিচার দাবিতে রাস্তায় বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে বাদল সমর্থকেরা। এ সময়  পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ শুরু করে আন্দোলনকারীরা। ৩ জন পুলিশ সদস্য আহত হলে আত্মরক্ষার্থে ৩৩ রাউন্ড গুলি ছোড়ে পুলিশ। এ ঘটনায় পুলিশের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

আপনার মতামত দিন

প্রথম পাতা অন্যান্য খবর

মানবজমিনকে বিশেষ সাক্ষাৎকার

জাতিসংঘ মোড়লদের, আমাদের জন্য নয় (ভিডিও)

২৯ জুলাই ২০২১

করোনা মোকাবিলা

একসঙ্গে লড়বে বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্র

২৯ জুলাই ২০২১

শনাক্তে রেকর্ড মৃত্যু ২০ হাজার ছাড়ালো

২৯ জুলাই ২০২১

দেশে করোনায় প্রতিদিনই নতুন রেকর্ড সৃষ্টি হচ্ছে। ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের শনাক্ত ও মৃত্যুর ঊর্ধ্বমুখী কোনোক্রমেই ঠেকানো ...

মুগদায় সিট খালি নেই

২৯ জুলাই ২০২১

কী হবে ৫ই আগস্টের পর

২৮ জুলাই ২০২১

যুক্তরাষ্ট্রে রোড শো’তে সালমান এফ রহমান

পরিকল্পিতভাবে এগোচ্ছে বাংলাদেশের অর্থনীতি

২৮ জুলাই ২০২১

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান বলেছেন, পরিকল্পিতভাবে এগোচ্ছে ...

২৪ ঘণ্টায় প্রাণহানি ২৫৮

২৮ জুলাই ২০২১

করোনা প্রতিদিনই ভাঙছে রেকর্ড। নতুন রেকর্ড সৃষ্টি হচ্ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ২৫৮ জনের ...

৭ই আগস্ট থেকে ইউনিয়ন কেন্দ্রে টিকাদান

২৮ জুলাই ২০২১

আগামী ৭ই আগস্ট থেকে ইউনিয়ন পর্যায়ে করোনার টিকা দেয়া শুরু হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান ...



প্রথম পাতা সর্বাধিক পঠিত

DMCA.com Protection Status