বৃটেনে বিয়ের সর্বনিম্ন বয়স ১৬ থেকে ১৮ করতে সচেষ্ট সাজিদ জাভিদ

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন (১ মাস আগে) জুন ১২, ২০২১, শনিবার, ৮:৪৮ অপরাহ্ন

বৃটেনে মেয়েদের জন্য বিয়ের সর্বনিম্ন বয়স ১৬ থেকে ১৮ তে উন্নিত হওয়ার সম্ভাবনা সৃষ্টি হয়েছে। বৃটেনের সাবেক স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী সাজিদ জাভিদ এ নিয়ে একটি বিল উত্থাপনের কথা বলেন। ধর্মীয় ও সাংস্কৃতিক কারণে মেয়েদের অল্প বয়সে বিয়ে করতে হয়। এ থেকে তাদের বাঁচাতেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন সাজিদ জাভিদ। গণমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, এ বিল নিয়ে তিনি আশাবাদী। সরকার একে সমর্থন দেবে এবং এটি আইনে পরিণত হবে বলেও তার দৃঢ় বিশ্বাসের কথা জানান সাজিদ।

মেইল অনলাইনের খবরে জানানো হয়েছে, বর্তমানে বৃটেনে মেয়েদের ক্ষেত্রে বিয়ের সর্বনিম্ন বয়স ১৬ বছর। সাজিদের মতে, এটি একটি বৈধ ফাঁদ, যেটি ব্যাবহার করে তরুণীদের বিয়েতে বাধ্য করা হচ্ছে।
একে তিনি শিশু নির্যাতন বলেও আখ্যায়িত করেন। তিনি বলেন, বৃটিশ সরকার অনুন্নত দেশগুলোতে অক্লান্তভাবে বাল্য বিয়ে বন্ধে কাজ করে যাচ্ছে। অথচ নিজের দেশেই বাল্য বিয়ে অনুমোদন দিয়ে রেখেছে। তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ যখন বিয়ের সর্বনিম্ন বয়স ১৮ থেকে ১৬ তে নামিয়ে নিয়ে আসে, তখন তারা বৃটেনের আইনের অযুহাত দিয়ে নিজেদের অবস্থান সমর্থন করে। তাই এটি ¯পষ্ট যে আমাদেরকে অবশ্যই এই সুযোগ বন্ধ করতে হবে যাতে করে শিশুদেরকে সঠিক বয়স হওয়ার আগেই গুরুতর এবং জীবন পরিবর্তনকারী সিদ্ধান্ত নিতে না হয়।

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের ব্রিফিং-

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের আহবান

২৬ জুলাই ২০২১



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status