ধুঁকতে থাকা মোহামেডানের সামনে উড়ন্ত আবাহনী

স্পোর্টস রিপোর্টার

খেলা ১১ জুন ২০২১, শুক্রবার

টানা তিন জয়ে ঢাকা লীগ শুরু করেছিল মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। কিন্তু এরপর টানা তিন ম্যাচে হার দেখেছে সাকিব আল হাসানের নেতৃত্বে সাদাকালো শিবির। গতকাল তারা মিরপুর শেরেবাংলা মাঠে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের কাছে হেরেছে ৯ উইকেটের বড় ব্যবধানে। ব্যাট করতে নেমে এদিনও দলটির অধিনায়ক দেশের সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান ব্যর্থ। টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে ২৭ রানে ৬ উইকেট হারায় মোহামেডান। দলের প্রথম পাঁচ ব্যাটসম্যানের মধ্যে সাকিবসহ তিন জন সাজঘরে ফেরেন শুন্যতে। আসরে ছয় ম্যাচে দ্বিতীয়বার ডাক মারলেন সাকিব।  ৩২ বলে ৫২ রান করে দলের মান রক্ষা করেন লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যান শুভাগত হোম। এতে ৯ উইকেটে ১১৩ রানে থামে মোহামেডানের ইনিংস।
জবাব দিতে নেমে তরুণ ব্যাটসম্যান পিনাক ঘোষ চলতি আসরে নিজের প্রথম ম্যাচেই দলের জয়ে অপরাজিত ৫১ রানের অবদান রাখেন। তার সঙ্গে ৮৯ রানের ওপেনিং জুটিতে মেহেদী মারুফ ৪১ রান করে আউট হন। তবে এরপর আর কোনো উইকেট না হারিয়ে ১৮.১ ওভারে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে নাঈম ইসলামের দল। এমন বিপর্যস্ত অবস্থায় আজ  চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আবাহনীর মুখোমুখি হবে মোহামেডান। মুশফিকুর রহীমের নেতৃত্বে এরই মধ্যে আবাহনী ছয় ম্যাচে ৫ জয়ে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে উঠে এসেছে। গতকাল বিকেএসপি-৪ মাঠে শাইনপুকুর স্পোর্টিং ক্লাবকে বৃষ্টি আইনে ২৫  রানে হারায় বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।
ঢাকা লীগে ৩ জয় ও ৩ হারে ৪ পয়েন্ট নিয়ে সাকিবের মোহামেডানের অবস্থান তালিকার ৬ষ্ঠ স্থানে। তবে পরিসংখ্যান দিয়ে দুই দলের ভাগ্য নির্ধারণ করা কঠিন। আবাহনী- মোহামেডান ম্যাচের উত্তেজনা আগের মতো না থাকলেও চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বলে কথা। গতকাল বিকেএসপিতে আবাহনী শাইনপুকুরের বিপক্ষে ৫ উইকেট হারিয়ে চলতি আসরের সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ ১৮৫ রান করে। জবাব দিতে নেমে ১৭ ওভারে শাইন পুকুর ১২৩ রান তুলতেই শুরু হয় বৃষ্টি। এর পর আর খেলা হয়নি। তাই বৃষ্টি আইনে নিষ্পত্তি হয় ম্যাচের।
আবাহনী-মোহামেডান লড়াই হলেও মূলত চোখ থাকবে জাতীয় দলের দুই তারকা দুই দলের অধিনায়ক মুশফিক ও সাকিবের দিকেই। তবে চলতি আসরে এই দু’জনের পারফরম্যান্সে বড় পার্থক্য। মুশফিক ব্যাট হাতে ৬ ম্যাচে ৫ ইনিংসে করেছেন ১৪২ রান। হাঁকিয়েছেন একটি ফিফটিও। গতকাল শাইনপুকুরের বিপক্ষে আবাহনীর ইনিংসে বড় ভূমিকা রেখেছেন নাঈম শেখ। ৪টি করে চার ও ছয়ের মারে ৫০ বলে ৭০ রানের ইনিংস খেলেন নাঈম। অন্যদিকে আফিফ হোসেনকে গতকালই প্রথম একাদশে ওপেন করার সুযোগ দেয়া হয়। এই সুযোগ দারুণভাবে কাজে লাগিয়েছেন এই তরুণ ব্যাটসম্যান। ৩ চার ও ৪টি ছয়ের মারে ৪২ বলে ৫৪ রান করেন আফিফ। দুজনের ওপেনিং জুটিতে আসে ১১১ রান। এর পর অধিনায়ক নিজে আর ব্যাট হাতে মাঠে নামেননি। মোহামেডানের বিপক্ষে ম্যাচের আগে দলের ব্যাটিং শক্তি দেখে নিতে নাজমুল হোসেন শান্ত, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, স্বাধীন ও মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতদের সুযোগ দেন।
অন্যদিকে মোহামেডানের অধিনায়ক সাকিব ব্যাট হাতে ব্যর্থতার জালেই বন্দি। ৬ ম্যাচে সংগ্রহ সাকুল্যে ৭৩ রান। তার ব্যাট থেকে এসেছে সর্বোচ্চ ২৯ রানের ইনিংস। গতকাল সাকিব বল হাতেও থাকেন উইকেটশূন্য। রূপগঞ্জের বিপক্ষে দলের তিন ব্যাটসম্যানই মাত্র স্পর্শ করতে পেরেছে দুই অঙ্ক। এর মধ্যে শুভাগত হোম হঠাৎ করেই জ্বলে ওঠেন।  সাত নম্বরে ব্যাট হাতে ৩২ বলের ইনিংসে ১টি চারের সঙ্গে হাঁকান ৫টি ছক্কা। অন্যদিকে বল হাতেও  মোহামেডানের বোলাররা গতকাল ছিলেন একেবারেই ব্যর্থ। দলের পক্ষে একমাত্র শিকার মাহমুদুল হাসানের।

আপনার মতামত দিন

খেলা অন্যান্য খবর

ছোট পর্দায় আজকের খেলা

১৯ জুন ২০২১

ঢাকা প্রিমিয়ার লীগদোলেশ্বর-গাজী গ্রুপ সকাল ৯টাপ্রাইম ব্যাংক-শেখ জামাল দুপুর ২টাআবাহনী-মোহামেডান সন্ধ্যা ৬:৩০



খেলা সর্বাধিক পঠিত



আর্জেন্টিনা-উরুগুয়ে দ্বৈরথ

বন্ধু মেসিকে ছাড় দেবেন না সুয়ারেজ

DMCA.com Protection Status