বক্সারে গঙ্গায় ভাসছে ৩০ কোভিড রোগীর মৃতদেহ, দাহ করার সুযোগ মেলেনি স্বজনদের

বিশেষ সংবাদদাতা, কলকাতা

ভারত (১ মাস আগে) মে ১১, ২০২১, মঙ্গলবার, ৯:৫২ পূর্বাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ৯:৫৫ পূর্বাহ্ন

১০১ বছর আগে দুর্দম স্প্যানিশ ফ্লু এর সময় বিহারের মুঙ্গেরে গঙ্গায় ভাসতে দেখা গিয়েছিল অগণিত লাশ। সোমবার ফের একই দৃশ্য প্রতক্ষ্য করল বিহারের বক্সার। উত্তরপ্রদেশের সীমান্তে অবস্থিত বক্সারের গঙ্গায় ভেসেছে ৩০টি মৃতদেহ। অনেকগুলোই বিকৃত। কোভিডে মৃত রোগীদের সৎকারের ব্যবস্থা করতে না পেরে স্বজনরা এই দেহগুলি ভাসিয়ে দিয়েছেন গঙ্গায়, এমনটাই অনুমান। বক্সারের চৌসায় মহাদেব ঘাটে মৃতদেহগুলি ভেসে উঠেছিল। চৌসার বি ডি ও অশোক কুমার জানিয়েছেন, প্রশাসন ১৫টি মৃতদেহ উদ্ধার করেছে। স্থানীয় গ্রামবাসীরা অবশ্য দাবি করেছেন যে তারা ১৫০টি শবদেহ ভাসতে দেখেছেন।
কোভিডে আক্রান্তদের দেহের সৎকার এখন দুরূহ হয়ে পড়েছে। শ্মশান কম, মৃত্যু বেশি। এই অবস্থায় ঝুঁকি না নিয়ে অনেকে মরদেহ গঙ্গায় ভাসিয়ে দিচ্ছেন। বক্সারে এমন ঘটনাই ঘটেছে বলে মনে করছে প্রশাসন।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

কাজি

২০২১-০৫-২৩ ২৩:০৮:০৬

মাটি খুঁড়ে মাটি চাপা তো দেওয়া যেত । জলে ভাসিয়ে পরিবেশ ও পানীয় জল দুষিত করার প্রয়োজন ছিল কি ? হিন্দু বলে কি মাটি চাপা নিষিদ্ধ ?

Professor Dr.Mohamme

২০২১-০৫-১২ ১৪:২৮:৫৯

ভারতিয়দের মরা পানিতে ফেলে দেয়ার অভ্যাস ১০১ বছর আগে ছিল যা ১০১ বছর পরে এতটুকুও পরিবরতন হয়নি। অর্থাৎ তারা বদলায়নি বা বদলাবেনা। কিন্তু স্বীকার করতে বাঁধা নেই , ভারত শুধু পরমাণু শক্তিধর দেশ নয়, তাদের মহা শক্তিধর নৌ বাহিনী রয়েছে, যা শক্তির দিক দিয়ে পৃথিবীতে ৫ম । আমি আসা করি নদীতে ভাসমান লাশ গুলোকে তারা চক্ষের পলকে একত্রিত করতে পারে এবং মাটীতে পুতে বা পুড়ে ফেলতে পারে ।

আপনার মতামত দিন

ভারত অন্যান্য খবর



ভারত সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status