৪ বারের ব্যর্থতার পর সফল স্পেসএক্সের রকেট

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন (১ মাস আগে) মে ৬, ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৫:৪৮ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ১১:৩০ পূর্বাহ্ন

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসের বেজ থেকে স্টারশিপ প্রোটোটাইপের পরীক্ষায় সফল হয়েছে স্পেসএক্স। ধনকুবের ইলন মাস্কের এই প্রচেষ্টা পরপর চারবার ব্যর্থতার পর সফলতার মুখ দেখলো। এর আগের ৪ বারেই রকেটে আগুন ধরে গিয়েছিল। স্টারবেজ ফ্লাইট কন্ট্রোল জানিয়েছে, স্টারশিপ ল্যান্ড করেছে। স্টারশিপের স্টেইনলেস স্টিলের রকেট এসএন১৫ গালফ অফ মেক্সিকোর ১০ কিলোমিটার উপরে উঠে তারপর ফিরে এসে ল্যান্ড করে। সব মিলিয়ে ছয় মিনিটের এই উড্ডয়ন সফল হয়েছে।

ডয়চে ভেলের খবরে বলা হয়েছে, ল্যান্ডিংয়ের পর বেজ-এ ছোট আগুন লেগেছিল। এটি স্বাভাবিক একটি বিষয়। স্পেসএক্স জানিয়েছে, এটা একেবারেই কোনো অস্বাভাবিক বিষয় নয়।
মিথেন ফুয়েলকে জ্বালানি হিসাবে ব্যবহার করা হচ্ছে। তাই এটি হয়েছে। ইঞ্জিনিয়াররা বিষয়টি খতিয়ে দেখছেন। তবে আগুন সঙ্গে সঙ্গেই নিয়ন্ত্রণে আনা হয়।
গত মাসে নাসা স্পেসএক্সের সঙ্গে ৩০০ কোটি ডলারের চুক্তি করেছে। তারা স্পেসএক্সের স্টারশিপ করে চাঁদে মহাকাশচারীদের পাঠাবে। ইলন মাস্ক চাইছেন, সৌরজগতের বিভিন্ন গ্রহে যাওয়ার জন্য সুপার হেভি রকেটে করে স্টারশিপকে পাঠাতে। সেই রকেট বারবার ব্যবহার করা যাবে। তিনি চাঁদে ও মঙ্গলে মানুষও পাঠাতে চান। মঙ্গলে কলোনি তৈরি করতে চান। চাঁদে একটি লুনার স্টেশনও তৈরি করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Taufiqul Pius

২০২১-০৫-০৭ ০২:৫৯:৪৯

স্পেসএক্সের সংগে নাসার ৩০০ মিলিয়ন নয়, ২.৯ বিলিয়ন ডলারের চুক্তি হয়েছে চাঁদে মহাকাশচারীদর পাঠানোর জন্য।

ঊর্মি

২০২১-০৫-০৬ ২১:৪০:৩৬

ইলন মাস্ক! সবার আগে করোনাকে জয় করো, তার পরে শুধু মঙ্গলে কেনো- শনি, বৃহস্পতি, ইউরেনাস, নেপচুন সবগুলোতেই কলোনী তৈরী করতে পারবে নিশ্চয়। আর হ্যা, কলোনীগুলো থেকে ভাড়া আদায়কারী সুপারভাইজারের একমোডেশনের জন্য প্লুটোতেও একটি ছোটো ফ্লাট তৈরীর ব্যবস্থাটাও করিয়ে নিয়ো।

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status