অক্সিজেন সঙ্কটে এক হাসপাতালে ২ ঘন্টায় কমপক্ষে ২৪ মৃত্যু

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন (১ সপ্তাহ আগে) মে ৩, ২০২১, সোমবার, ২:০৮ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ১০:৪১ পূর্বাহ্ন

প্রতীকী ছবি
একের পর এক ট্রাজেডি ভারতে। এসব ঘটনা ঘটছে জীবন বাঁচানোর আশা জাগায় যে হাসপাতাল, সেখানেই। কয়েকদিন আগে মুম্বই, গুজরাটসহ আরো দু’একটি স্থানে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের চিকিৎসা দেয়া কয়েকটি হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ড হয়েছে। জীবন বাঁচাতে যেসব মানুষ হাসপাতালে ঠাঁই নিয়েছিলেন, এখানেই সাঙ্গ হয়েছে তাদের জীবন। এরই মধ্যে কর্নাটকের চামারাজনগরে একটি সরকারি হাসপাতালে রোববার ঘটে গেছে আরেক ট্রাজেডি। সেখানে অক্সিজেন সরবরাহ কমে যাওয়ার কারণে মাত্র ২ ঘন্টায় মারা গেছেন কমপক্ষে ২৪ জন করোনা রোগী। ওই হাসপাতালটির নাম উল্লেখ না করে এ খবর দিয়েছে অনলাইন এনডিটিভি। এতে বলা হয়েছে, হাসপাতালটির একজন সিনিয়র কর্মকর্তা বলেছেন, রোববার দিবাগত রাত ১২টা থেকে ২টার মধ্যে অক্সিজেন সরবরাহ কমে যাওয়ার কারণে এসব মৃত্যু হয়েছে।
হাসপাতালটিতে কমপক্ষে ১৪৪ জন রোগীকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পা ঘটনা তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন জেলা কর্মকর্তাদের। রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বসবরাজ বোম্মাই ডিজিপি-আইজিপি প্রবীণ সূদ’কে ঘটনা তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। পরবর্তী করণীয় কি সে বিষয়ে সবিস্তারে রিপোর্ট দেয়ার নির্দেশও দিয়েছেন তিনি। ওদিকে মহীশূরের এমপি প্রতাপ সিনহা বলেছেন, রোববার রাতে মিডিয়ার লোকজন চামারাজনগর জেলায় অক্সিজেন সঙ্কট পরিস্থিতি নিয়ে আমার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। সঙ্গে সঙ্গে আমি ডিসি রবির সঙ্গে যোগাযোগ করি এবং এডিসির সঙ্গে একটি কনফারেন্স কল করি। কারণ, অক্সিজেন বিষয়ে ইনচার্জ হলেন এডিসি। একই রাতে আমি সাউদার্ন গ্যাস-এর সঙ্গে যোগাযোগ করি। তারা ১৫ সিলিন্ডার অক্সিজেন গ্যাস সরবরাহ দেয়। এর আগে আমরা কোটা করে এটা বরাদ্দ দিয়ে যাচ্ছিলাম। এতসব চেষ্টা সত্ত্বেও এই বিয়োগান্তক ঘটনা ঘটে গেছে। চামারাজনগর আমাদের থেকে দূরে নয়। মনে হচ্ছে তারা আমাদেরই অংশ। তাদের এই বেদনা আমাদেরও। ওদিকে করোনা সঙ্কট যেভাবে সরকার মোকাবিলা করছে তার কড়া সমালোচনা জানিয়ে টুইট করেছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী।

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status