কলকাতা  কথকতা    

উত্তরপাড়ায় জয়ী কাঞ্চন বললেন, তৃণমূল ভবনের সামনে সব কান ধরে দাঁড়াবে

জয়ন্ত চক্রবর্তী,  কলকাতা

কলকাতা কথকতা (৫ দিন আগে) মে ৩, ২০২১, সোমবার, ১:৫৪ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ১১:২০ পূর্বাহ্ন

এবারের বিধানসভায় তাকে দেখেই  কি হাসির হুল্লোড় উঠবে?   উত্তরপাড়া বিধানসভা থেকে প্রায় ৩০ হাজার ভোটে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একসময়ের অনুগত সৈনিক,  বর্তমানে বিজেপি নেতা প্রবীর ঘোষালকে হারিয়ে সদ্য  বিধায়ক হওয়া কাঞ্চন মল্লিক জানালেন,  হাসুক না!  হাসলে লিভার ভালো থাকে।  বাংলা ছবি আর টেলিভিশনের এক নম্বর কমেডিয়ান তৃণমূলের প্রার্থী নির্বাচিত হওয়ার পর একটি কথাই ফাটা রেকর্ডের মত আউড়ে গেছেন-  দিদি দায়িত্ব দিয়েছেন।  দিদির মর্যাদা রাখতে হবে।  রেখেছেনও কাঞ্চন।  উত্তরপাড়ার এক লক্ষ ছ হাজার ৫৫৩ জন ভোটারের আনুকূল্য পেয়েছেন।  না পাওয়ার কারণও নেই।  কোন্নগর পুরসভার অতিথিনিবাস-এর একটি ঘর আঁকড়ে পড়ে ছিলেন দক্ষিণ কলকাতার বাসিন্দা কমেডিয়ান কাঞ্চন।  খেটেছেন প্রচুর।  বিশ্বাস করেন,  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সেবাব্রতী কাজই তৃণমূলকে জেতাতে  সাহায্য করেছে। বললেন,  কোভিড ভাইরাস এখনও যায়নি,  কিন্তু রাজনৈতিক ভাইরাস চলে গেছে।  দেখবেন,  ভোটের আগে যারা দিদির হাত ছেড়ে চলে গেছে  তারা তৃণমূল ভবনের সামনে কান ধরে দাঁড়িয়ে আছে আবার দিদির হাত ধরার জন্যে।  কাঞ্চনের জন্মদিন ছয় মে।  আর দিন তিনেক বাদে।  এই জয় কি নিজেকে নিজেরই দেয়া উপহার?   কাঞ্চন বললেন,  মানুষের দেয়া উপহার।  বড় দামি।  ভারও  বেশি।  মানুষকে এই উপহার ফেরত দেয়ার জন্য আগামী পাঁচ বছর কাজ করতে চান কাঞ্চন।   ২০০২ সালে জনতা এক্সপ্রেস নামে টিভির  একটা রিয়ালিটি নিউজ শোতে অংশ নিয়েছিলেন কাঞ্চন।  জানালেন,  তিনি জনতারই লোক।  জনতা জনার্দনের জন্যে কাজ করে যাবেন।  স্ত্রী পিঙ্কি এবং সাত বছরের ছেলে  ওশোকে  নিয়ে  তার সংসার।  প্লেন লিভিং-এ বিশ্বাসী বাংলা ছবির কমেডিয়ানের একটাই দুর্বলতা-  ডালের বড়া নিয়ে।

 বাংলাদেশেও কাঞ্চনের জনপ্রিয়তা আকাশছোঁয়া।  বাংলাদেশের মানুষের উদ্দেশ্যে কাঞ্চনের বার্তা-  এবার থেকে কাঞ্চনকে কমেডিতেও  পাবেন আবার রাজনীতিতেও পাবেন।  মানে ডাবল ইঞ্জিন আর কি!      

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

হাবিব

২০২১-০৫-০৩ ২৩:৪৭:০৯

মমতা দিদি আমাদের পানি না দিলেও তার প্রতি আমাদের বাংলাদেশের মানুষের মমতা কমেনি এক ফোটাও তার দৃর ও সেকুলারিজম মনোভাবের জন্য। দিদির জয়ে আমরা বাংলাদেশের মানুষ খুশি। জয় হোক আমাদের ওপার বাংলার ভাইদের। জয় বাংলা। ওপার বাংলার ভাই কাঞ্চন সাহেব এপার বাংলাতেও ভিষন জনপ্রিয়। তার জন্য শুভ কামনা রইল।

tanbir

২০২১-০৫-০৩ ০৭:৩৩:২৮

কাঞ্চন দা অনেক জনপ্রিয় অভিনেতা শূনে খুশি হলাম উনি জিতেছেন

Amirswapan

২০২১-০৫-০৩ ০৩:৫৮:২৩

আমার মনেহয়কোন ব্যাক্তিকেপছন্দ বা অপছন্দের কোন ব্যাপার নয় ।অপছন্দ করাউচিত মৌলবাদকে।

Mahmud

২০২১-০৫-০৩ ০২:১৬:১০

দিদির জয়ে আমরা বাংলাদেশের মানুষ খুব খুশী । মনে হচ্ছিল এটা আমাদের দেশেরই ভুটাভুটি । তিস্তার পানি পাবো না জানি , তারপরও খুশী । মোদিকে বাংলাদেশের মানুষ কতো ঘৃনা করে সেটা বুঝা যায় দিদির জয়ে আমাদের উল্লাস দেখে । জয় বাংলা ।

R Rahman

২০২১-০৫-০৩ ০১:৩৬:০৭

বাংলার বীর বাঙ্গালীদেরকে অনেক অনেক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন নির্বাচনে সচেতনভাবে গুরুত্বপূর্ণ রায় দেওয়ার জন‍্য। জয় বাংলা

Md. Fazle Rabbi

২০২১-০৫-০৩ ০১:৩৫:৫৬

BJP হারানোর জন্য কাঞ্চন দাদা ধন্যবাদ।

কাজি

২০২১-০৫-০৩ ০১:১৫:৫২

Congratulations. BJP nominees many stars failed. People chose this year candidates without emotion. They did not look glamorous stars, they chose real person who will work for them. Who has life experience of poverty and can feel the pain of poverty I hope kanchan will not deprive the voters

আপনার মতামত দিন

কলকাতা কথকতা অন্যান্য খবর



কলকাতা কথকতা সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status