কী ভাবছেন, কতদূর ভেবেছেন?

মাওলানা আবদুল হাই মুহাম্মদ সাইফুল্লাহ

ফেসবুক ডায়েরি ২৬ এপ্রিল ২০২১, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:২২ অপরাহ্ন

আজকে দুটি ছবি নেটে ব্যাপকভাবে ছড়িয়েছে। যেখানে উঠে এসেছে- দিল্লিতে গতবছর ঘটে যাওয়া চরম উগ্রতা, মসজিদে আগুনদেয়া আর এবছর সেই মসজিদেই চরম করোনা পরিস্থিতিতে হিন্দু-মুসলিম সবার জন্য অস্থায়ী করোনা আইসোলেশন সেন্টার হিসাবে ব্যবহারের উপযুক্ত করা হচ্ছে।

এই ঘটনায় ইসলামের মাহাত্ম্য আর মাসজিদের বড়ত্ব তুলে ধরার আপাত দরকার নেই, বরং আরো একধাপ এগিয়ে মানুষের শিক্ষা নেয়া উচিৎ এক আল্লাহর সৃষ্টিজীব হিসেবে আমরা কেউ কারো উপর জোদ্দারী আর জুলুম করার অধিকার রাখিনা। গতবছর যে আকাশ- সহিংসতা, আগুন, ক্রন্দন আর ধোঁয়ায় আচ্ছাদিত হয়েছিল আজ একই আকাশ চিতার আগুনের ধোঁয়া আর মানুষের স্বজন হারাবার আহাজারিতে ভার হয়ে উঠেছে!

মানুষ হিসেবে আমাদের সতর্ক আর দায়িত্বশীল মানবিক আচরনের আজীবন পাঠ গ্রহণের দীক্ষা আছে এই কঠিন পরিস্থিতিতে। অনেকে আবার ভারতের ঘটনাকে রিভেঞ্জ ভেবে খুব তৃপ্ত হয়ে খুশিভরা বয়ান দিচ্ছেন! খবরদার! অপরের ব্যাথা-বেদনা নিয়ে নিজে খুশি হওয়া আর বিচারিক দায়িত্ব আল্লাহর থেকে নিয়ে অনুমানে -ওটা করেছিল বলে এটা হচ্ছে- এরকম কথা বলা ইসলামে কঠিনভাবে নিষিদ্ধ। মনেরাখবেন - আপনার ভুলচর্চা যেনো ইসলাম ও তার সৌন্দর্য্যের গায়ে কালিমা না মাখে।

আর এইযে যারা গাছাড়া দিয়ে উমুক তুমুক নিয়ে ভাবছেন, আসুন নিজেরা সতর্ক হই। নিজেদের দেশ ও তার মানুষ নিয়ে ভাবি। হুমড়ি খেয়ে বাজারে, ঈদ শপিংয়ে, অপ্রয়োজনীয় ঘোরাফেরা, সাস্থ্য সচেতনতায় অবহেলা, এগুলি ভালো লক্ষ্মণ নয়।
রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহিস সালাম উট আগে বেঁধে তারপর আল্লাহর উপর তাওয়াক্কুল করতে বলেছেন। আর আমরা যা ইচ্ছা তাই করে, আল্লাহ-রাসূলের নির্দেশনা অমান্যকরে, অপরের বিপদে বগল বাজিয়ে, শিক্ষা না নিয়ে, বলছি আল্লাহ ভরসা! এটি কিন্তু ইসলামের শিক্ষা নয়!

প্রিয় ভাই ও বোনেরা! আকাশ ভারী হওয়া, অজস্র আক্রান্ত, বহুমৃত্যুর ঘটনা কিন্তু খুব দুরের নয়। একই জমীন! শুধু একটি বর্ডার রেখা মাঝে। আসুন সাধ্যের মাঝে সর্বোচ্চ সতর্ক হয়ে আল্লাহর সাহায্যের ভিখারি হই!

লেখকের ফেসবুক টাইমলাইন থেকে নেয়া

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

LISA

২০২১-০৪-২৬ ১৩:১৬:৪৭

তিনিই (আল্লাহ) তার বান্দাদের তওবা কবুল করেন এবং পাপসমূহ ক্ষমা করে দেন।’ (সুরা শুরা : ১৫) তবে কিছু মুসলিম মোনাফেকের তওবা কবুল হয় না ষারা আল্লাহর নেক্কার বান্দাকে কষ্ট দেয় বা অপমানিত করে। মহান রাব্বুল আলামিন আমাদের দ্বীন জানা ও মানার তৌফিক দান করুক।

LISA

২০২১-০৪-২৬ ১৩:১৩:৫৫

তিনিই (আল্লাহ) তার বান্দাদের তওবা কবুল করেন এবং পাপসমূহ ক্ষমা করে দেন।’ (সুরা শুরা : ১৫) তবে কিছু মুসলিম মোনাফেকের তওবা কবুল হয় না ষারা আল্লাহর নেক্কার বান্দাকে কষ্ট দেয় বা অপমানিত করে। মহান রাব্বুল আলামিন আমাদের দ্বীন জানা ও মানার তৌফিক দান করুক।

LISA

২০২১-০৪-২৬ ১৩:১৩:০৯

তিনিই (আল্লাহ) তার বান্দাদের তওবা কবুল করেন এবং পাপসমূহ ক্ষমা করে দেন।’ (সুরা শুরা : ১৫) তবে কিছু মুসলিম মোনাফেকের তওবা কবুল হয় না ষারা আল্লাহর নেক্কার বান্দাকে কষ্ট দেয় বা অপমানিত করে। মহান রাব্বুল আলামিন আমাদের দ্বীন জানা ও মানার তৌফিক দান করুক।

LISA

২০২১-০৪-২৬ ১৩:১৩:০৫

তিনিই (আল্লাহ) তার বান্দাদের তওবা কবুল করেন এবং পাপসমূহ ক্ষমা করে দেন।’ (সুরা শুরা : ১৫) তবে কিছু মুসলিম মোনাফেকের তওবা কবুল হয় না ষারা আল্লাহর নেক্কার বান্দাকে কষ্ট দেয় বা অপমানিত করে। মহান রাব্বুল আলামিন আমাদের দ্বীন জানা ও মানার তৌফিক দান করুক।

Narayan Chandra Somo

২০২১-০৪-২৬ ১১:৫৪:২৭

You are great ! I salute you. Which you said is my opinion. May Allah help you to talk like this.

Md. Harun al-Rashid

২০২১-০৪-২৬ ১১:৩৬:১৫

প্রিয় খতিব, মসজিদের মিম্বর থেকে এমন মানবিক আহবানই বাঞ্চনীয়। কল্প কাহিনীর বয়ান, হাত বুকে বাঁধা না নিচে বাঁধা, শাহাদাৎ আঙ্গুল নাড়ানো , সন্মিলিত দোয়া, ২০ রাকাত না আট রাকাত, নূরের তৈরী না মাটির তৈরী, কবরে জীবিত না মৃত ইত্যাদি ফতোয়ার বেসাতি করতে করতে প্রিয় পিতা ইব্রাহীম আঃ এর সন্তানগন যখন আজরের অনুসারি হয়ে যায় তখন আপনাদের এমন উপলব্ধি উম্মাহর জন্য সুভ বার্তা বয়ে আনবে। আপনাকে মোবারকবাদ।

ক্ষুদিরাম

২০২১-০৪-২৬ ১১:১০:৪৮

মানুষটারে কেন যে এতো ভাল লাগে !! আহা সবাই যদি এমন হত !! সবাই যদি এভাবেই ভাবতো !!

আপনার মতামত দিন

ফেসবুক ডায়েরি অন্যান্য খবর



ফেসবুক ডায়েরি সর্বাধিক পঠিত



পিতার জন্মদিনে মেয়ের আবেগঘন স্ট্যাটাস

‘মির্জা আলমগীরের সারাজীবনের রাজনীতি বৃথা যাবে না’

DMCA.com Protection Status