আলেম-ওলামা দেখে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে না

স্টাফ রিপোর্টার

শেষের পাতা ২১ এপ্রিল ২০২১, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:০৫ পূর্বাহ্ন

হেফাজতের তাণ্ডবে যারা সরাসরি জড়িত ভিডিও ফুটেজ দেখে তাদেরই গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এখানে আলেম-ওলামা বা বিএনপি কোনো বিষয় না বলেও তিনি জানান। গতকাল ওবায়দুল কাদের রাজশাহী সড়ক জোন, বিআরটিসি ও বিআরটিএ’র কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় একথা জানান। তিনি তার সরকারি বাসভবন থেকে সভায় ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত হন। তিনি বলেন, হেফাজতের তাণ্ডবে বিএনপি যে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িত, তা আজ সবাই জানে। হেফাজত সমপ্রতি যে তাণ্ডবলীলা চালিয়েছে তার শুধু পৃষ্ঠপোষকতাই নয়, বরং এসব সহিংস ঘটনায় জড়িত ছিল বিএনপি। কোনো দল বা আলেম-ওলামা দেখে কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, যারা এ তাণ্ডবলীলার সঙ্গে সরাসরি জড়িত, বাড়িঘরে হামলা ও আগুন দিয়েছে, তাদের ভিডিও দেখে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বিএনপি’র নেতা মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের গত কয়েকদিনের কথা শুনলে মনে হয় হেফাজতের তাণ্ডবলীলায় তারা শুধু পৃষ্ঠপোষকতাই করেনি, এই তাণ্ডবে জড়িত ছিল।
ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি নেতারা বলছেন সরকার নাকি গণবিচ্ছিন্ন। গত ১৩ বছর যাবৎ ধারাবাহিক ব্যর্থতার গ্লানিবোধ থেকে বিএনপি এসব কথা বলে। প্রকৃতপক্ষে সরকার নয়, বিএনপিই জনগণ থেকে প্রত্যাখ্যাত ও গণবিচ্ছিন্ন। বিএনপি এক যুগের বেশি সময় ধরেই আন্দোলনের হাঁকডাক দিয়ে যাচ্ছে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, তারা শুধু আন্দোলনই নয়, জাতীয় ও স্থানীয় নির্বাচন এবং উপনির্বাচনে তাদের নির্লজ্জ ভরাডুবিই প্রমাণ করে জনগণ থেকে কারা জনবিচ্ছিন্ন। করোনার এ সময়ে রাজনৈতিক বিরূপ মন্তব্য করা সমীচীন নয়। পারস্পরিক দোষারোপ করোরই এ সময় করা উচিত নয়। কিন্তু নিত্যদিন বিএনপি’র মিথ্যাচার ও অন্ধ সমালোচনার জবাব দিতে হয়। জন্মলগ্ন থেকে যে দল অগণতান্ত্রিক পথরেখা ধরে হেঁটেছে তারা আজ গণতন্ত্রের ফেরিওয়ালা সেজেছে এবং সবক দিচ্ছে দেশ ও জাতিকে। ওবায়দুল কাদের বলেন, গণতন্ত্রে বন্ধুর পথ ধরে হাঁটছেন শেখ হাসিনা, বাধা-বিপত্তি অতিক্রম করে গণতন্ত্রকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপদানে অত্যন্ত আন্তরিক বর্তমান সরকার। কিন্তু বিএনপি এ পথে বড় বাধা, তাদের অসহযোগিতা ও বাধার কারণেই গণতন্ত্রের মসৃণ যাত্রা বারবার হোঁচট খেয়েছে। সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের গ্রাহকদের কাছে বিআরটিএকে গ্রহণযোগ্য করার জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়ে বলেন, এ প্রতিষ্ঠানে হয়রানি আগের তুলনায় কমলেও কিছু কিছু এলাকায় অভিযোগ রয়েছে, সেগুলো বন্ধ করতে হবে। বর্ষার আগেই নির্মাণাধীন কাজ এগিয়ে নিতে হবে।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

এ কে এম মহীউদ্দীন

২০২১-০৪-২১ ০৯:২৫:২৪

এই ভদ্রলোকের কথায় মনে হয় এদেশে আলিমরাই সবচেয়ে খারাপ মানুষ।

আপনার মতামত দিন

শেষের পাতা অন্যান্য খবর

এবার ঈদে ওরা নেই

১২ মে ২০২১

বক্সারের পর গাজীপুর

গঙ্গায় ভেসে আসছে লাশ

১২ মে ২০২১

‘করোনার কমপক্ষে ৬,৬০০ বার রূপান্তর ঘটেছে’

১২ মে ২০২১

করোনাভাইরাসের যে রূপটি করোনা মহামারি সৃষ্টি করেছে তা কমপক্ষে ৬,৬০০ বার রূপান্তরিত হয়েছে। সিঙ্গাপুরের এজেন্সি ...

একদিনে আরো ৩৩ জনের প্রাণহানি

মৃত্যু ১২০০০ ছাড়ালো

১২ মে ২০২১

দেশে করোনায় আরো ৩৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ১২ হাজার ৫ ...

যুক্তরাষ্ট্রে ১২ বছরের বেশিদের জন্য ফাইজারের ভ্যাকসিন অনুমোদন

১২ মে ২০২১

যুক্তরাষ্ট্রে এখন থেকে কিশোররাও করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন গ্রহণ করতে পারবে। সোমবার দেশটির ফুড অ্যান্ড ড্রাগ এডমিনিস্ট্রেশন ...

করোনায় আরো ৩৮ জনের মৃত্যু

১১ মে ২০২১

দেশে কমেছে মৃত্যু, বেড়েছে করোনার শনাক্ত। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরো ৩৮ জনের ...



শেষের পাতা সর্বাধিক পঠিত



বক্সারের পর গাজীপুর

গঙ্গায় ভেসে আসছে লাশ

বিশিষ্ট নাগরিকদের সংবাদ সম্মেলন

ঈদের আগে কারাবন্দি ছাত্রদের মুক্তি দাবি

DMCA.com Protection Status