ডয়েচে ভেলের রিপোর্ট

মহানবী (স.)-এর অবমাননাকারীদেরও শাস্তি হওয়া উচিত- ইমরান খান

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন (৩ সপ্তাহ আগে) এপ্রিল ১৮, ২০২১, রোববার, ১০:৪০ পূর্বাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ৫:৫২ অপরাহ্ন

শনিবার পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, হলোকাস্ট (ব্যাপক হত্যাযজ্ঞ) চালানোকে অস্বীকার করার কারণে পশ্চিমা সরকারগুলোকে শাস্তি দেয়া উচিত। অন্যদিকে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (স.)কে অবমাননাকারীদের বিরুদ্ধেও একই রকম শাস্তির ব্যবস্থা করা উচিত। এ খবর দিয়েছে অনলাইন ডয়েচে ভেলে। ইমরান খান মনে করেন জার্মানি এবং ফ্রান্সসহ ইউরোপের কিছু দেশে হলোকাষ্টকে অস্বীকার করা হয়। এটা একটা অপরাধ এবং এর জন্য দায়ীদের জেল হওয়া উচিত। একইভাবে নবী মুহাম্মদ (স.)-কে যারা অবমাননা করে, তাকে বিদ্রুপ করে, তাদেরও একই শাস্তি হওয়া উচিত। ইমরান খান এক টুইটে বলেছেন, পশ্চিমা সরকারগুলো, যারা হলোকাস্টের বিরুদ্ধে নেতিবাচক মন্তব্য করাকে নিষিদ্ধ করেছে, তাদের কাছে আমি আহ্বান জানাই যেসব মানুষ বা সরকার মহানবী হযরত মুহাম্মদ (স.)-এর বিরুদ্ধে ঘৃণা বা অবমাননাসূচক বার্তা ইচ্ছাকৃতভাবে ছড়িয়ে দেয় তাদের বিরুদ্ধেও একই মানের শাস্তির ব্যবস্থা করুন। তিনি আরো বলেন, আমাদের নবী মুহাম্মদ (স.)-এর প্রতি আমাদের মুসলিমদের রয়েছে গভীর ভালবাসা ও শ্রদ্ধা।
তাই আমরা তার বিরুদ্ধে ওই রকম কোনো অশ্রদ্ধা এবং অবমাননা সহ্য করতে পারি না।

উল্লেখ্য, মহানবী হযরত মুহাম্মদ (স.) এর ব্যাঙ্গচিত্রের প্রতি ফরাসি সরকারের সমর্থনের বিরুদ্ধে কিছুদিন ধরে উত্তপ্ত পাকিস্তান। এ জন্য গত এক সপ্তাহের বিক্ষোভে বেশ কিছু প্রাণ ঝরে গেছে। এই বিক্ষোভ করেছে তেহরিকে লাব্বায়েক পাকিস্তান (টিএলপি)। তাদের বিক্ষোভ থেকে কমপক্ষে চারজন পুলিশ কর্মকর্তা নিহত হওয়ার পর ওই দলটিকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে সরকার। ইমরান খান বলেছেন, দেশে ও বিদেশে মানুষের কাছে আমাকে একটি বিষয় পরিষ্কার করতে দিন। তাহলো যখন রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে রিট করে চ্যালেঞ্জ জানিয়েছে, রাজপথে সহিংসতা করেছে, জনগণ এবং আইন প্রয়োগকারীদের বিরুদ্ধে হামলা করেছে, তখনই সন্ত্রাস বিরোধী আইনের অধীনে টিএলপির বিরুদ্ধে সরকার ব্যবস্থা নিয়েছে। কেউই আইনের ঊর্ধ্বে নন।

ফ্রান্সের একটি শ্রেণিকক্ষে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (স.)-এর ব্যাঙ্গচিত্র ব্যবহার এবং ম্যাগাজিনে ওই ব্যাঙ্গচিত্র প্রকাশের অধিকারের পক্ষে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রন অবস্থান নেয়ার পর নিষিদ্ধ টিএলপি দলটি এক মাস ধরে ইসলামাবাদ থেকে ফরাসি রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কারের দাবিতে আন্দোলন করেছে। এ অবস্থায় ইসলামাবাদে অবস্থিত ফরাসি দূতাবাস তার দেশের জনগণকে পাকিস্তান ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছে।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

ভেসেল

২০২১-০৪-১৮ ০৬:০৯:৩২

ধন্যবাদ ইমরান খান । আপনার প্রজ্ঞাদীপ্ত যৌক্তিক মন্তব্যের জন্য । অধিকাংশ মুসলিম জানেন না হলোকাস্ট কি ? অজ্ঞতা মূর্খতা মুসলিমদের জন্যই প্রযোজ্য । আল্লাহ্ মুসলিমদের মধ্যে ইমরান খান, এরদোয়ানদের মতো রাষ্ট্রনায়ক আরো সৃষ্টি করে দিন ।

delwar hossain

২০২১-০৪-১৮ ১২:২১:৪৩

Dear @Dr AZM Shakhawat Hos, No one can make any bad comments on any Prophet. It is not democracy. It is not a matter of decent. He has right not to loves prophets but can not disobey Muslims's sentiment. Thanks.

সুলতান

২০২১-০৪-১৭ ২৩:১৯:৩৫

আলহামদুলিল্লা মিঃ এরদোগানের পর ইমরানখানের ইসলামী আঁকিদর প্রকশ হল। অন্য ধর্মকে গালি দেওয়া ইসলামের শিক্ষা নয়। শুধুমাত্র মেরুদণ্ডহীন কাফের বেইমানেরা ইসলামকে গালি দিয়ে শান্তি ও আনন্দ উপভোগ করে। ওরা সত্যকে অস্বীকারকারী ওদের জন্য আল্লাহ্রর জাহান্নম অবধারিত। আল্লাহ্ হু আকবর। লা-ইলাহা ইল্লালা মোহাম্মদ রাসুল আল্লাহ্।

Dr AZM Shakhawat Hos

২০২১-০৪-১৮ ১১:৩২:০৩

যারা অমুসলিম তারা চাইলেই শেষ নবী হযরত মুহাম্মাদ (সাঃ) সম্মন্ধে বিরূপ মন্তব্য করতে পারে। কিন্তু মুসলিম জনগুসষ্টির সমস্যা হল সকল পুর্ববর্তী নবীদের প্রতি বিশ্বাস রাকখা ঈমানের অঙ্গ, তদুপরি কোরআন অন্য ধর্মালম্বিদের ধর্ম বা তাদের প্রভু/দেবদেবী নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করা নিষেধ।

Faruque Ahmed

২০২১-০৪-১৮ ১০:৫৭:৫৪

France is passing their last time..... People will say " one day there was a country named France)" ফ্রান্স তাদের শেষ সময় পার করছে ..... লোকেরা বলবে "একদিন ফ্রান্স নামে একটি দেশ ছিল)"

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status