‘রাজ্জাক ভাইয়ের চলে যাওয়ার দিন কবরী আপার সঙ্গে শেষ দেখা হয়’

স্টাফ রিপোর্টার

বিনোদন ১৭ এপ্রিল ২০২১, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৬:২১ অপরাহ্ন

করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে  গতকাল দিবাগত রাত ১২টা ২০ মিনিটে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন বাংলা চলচ্চিত্রের মিষ্টি মেয়ে কবরী সারোয়ার। এদিকে প্রয়াণের খবরটি কিছুইতেই বিশ্বাস করতে পারছেন না কবরীর ঘনিষ্ঠজন, দীর্ঘদিনের সহকর্মী অভিনেত্রী ববিতা। ভীষণ মন খারাপ তার। মানসিকভাবেও ভেঙে পড়েছেন তিনি। বিশ্বাস করতে পারছেন না, কবরী নেই! অবেগজড়িতে কন্ঠে ববিতা মানবজমিনকে বলেন, কানাডা থেকে রাজ্জাক ভাইয়ের ছেলের বউ জানালো এই দুঃসংবাদটা। তারপর থেকে বুক ধরফর করছে। একটা সেকেন্ডও আর ঘুম হয়নি। আমার আশা ছিল কবরী আপা ফেরত আসবেন।
কারণ জুয়েল আইচ লাইফ সাপোর্ট থেকে ফেরত এসেছে। আরো অনেকে এসেছে। আমার ধারণা ছিল কবরী আপাও চলে আসবেন। আমাকে কাল বা পরশু একজন জিজ্ঞেস করলো, তখন বলেছিলাম নিশ্চয়ই ফিরে আসবেন। কিছু হবে না দেখবেন। শরীরটা ভালো লাগছে না। ভীষণ মন খারাপ। আল্লাহ তাকে বেহেশত নসীব করুক। এটাই দোয়া করি। সর্বশেষ দুইটা ছবিতে একসঙ্গে কাজ করেছিলেন কবরী-ববিতা। যখন কথা হচ্ছিল তখন সিনেমাটির নাম মনে না করতে পারলেও শুটিংয়ের সেই স্মৃতি মনে পড়ছে ববিতার। তিনি বললেন, এক সাথে অনেক গল্পগুজব করে  শুটিং করলাম। কত স্মৃতি। বলে শেষ করতে পারবো না। ববিতার সঙ্গে কবরীর শেষ দেখা হয়েছিল কবে সেটা জানতে চাইলে  বলেন, রাজ্জাক ভাই যেদিন মারা গেলেন এফডিসিতে গেলাম দেখতে। ঐদিনই কবরী আপার সাথে শেষ দেখা হয়। তারপর আর দেখা হলো না। রাজ্জাক আর কবরীর শেষ দেখার এই স্মৃতি যেভাবে ববিতা ভুলবেন না তেমনি রাজ্জাক-কবরীর মতো কালজয়ী জুটির কথাও এদেশের মানুষ কখনই ভুলবেন না।

আপনার মতামত দিন



বিনোদন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status