শুক্রবার থেকে খোলা থাকবে দোকানপাট

স্টাফ রিপোর্টার

অনলাইন (১ সপ্তাহ আগে) এপ্রিল ৮, ২০২১, বৃহস্পতিবার, ২:০৯ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ১০:৪১ পূর্বাহ্ন

আগামীকাল শুক্রবার থেকে ১৩ই এপ্রিল পর্যন্ত দোকানপাট ও শপিংমল খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

আজ বৃহস্পতিবার মন্ত্রী পরিষদ বিভাগ থেকে জারিকৃত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, আগামী ৯ই এপ্রিল থেকে ১৩ই এপ্রিল পর্যন্ত সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত কঠোর স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন সাপেক্ষে দোকানপাট ও শপিংমল খোলা রাখা যাবে। তবে স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন না করলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Badsha Wazed Ali

২০২১-০৪-০৮ ১৯:৪৯:২৬

করোনা সহজে যাবে না। তবে, কঠোর লকডাউনের জন্য দরকার সামরিক বাহিনী। আমার ধারনা, মৃত্যুহার সেদিকেই নিয়ে যাচ্ছে।

আবুল কাসেম

২০২১-০৪-০৮ ০৩:২৬:০৬

আমরা পড়েছি এক মহা সংকটে। ঘরে থাকলে খাবার জোটেনা। আবার বাইরে গেলে মহামারীর ভয়। যেনো শাঁখের করাত। এমতাবস্থায় মানিয়ে চলার বিকল্প নেই। কেউ কেউ বলেছেন বই মেলায় করোনাকে শিক্ষিত করা হবে। এখন আবার কেউ বলতে পারেন করোনাকে দোকানদারি শেখানো হবে। কিন্তু যারা দোকানে কেনাকাটা করতে যাবেন তাঁরা কি শিখবেন। জীবনের ঝুঁকি নিয়েও খাবার জোগাড় করা ফরজ। একজনর রোজগারে কয়েকজন চলে। মা, বাবা, ভাই, বোন, স্ত্রী, সন্তান। এক বেলা আধা বেলা খেয়ে না খেয়ে বেশিদিন থাকলে অপুষ্টির ভয় আছে। তাই দোকান না খুলে আর কি-ইবা বিকল্প আছে। দোয়া দুরুদ পড়ে আল্লাহর ওপর ভরষা করে কাজও করতে হবে সুরক্ষিতও থাকতে হবে। সেই পরিকল্পনা সবাইকে গ্রহণ করতে হবে।

Md. Abbas Uddin

২০২১-০৪-০৮ ১৬:০১:০৮

সরকার যদি মাস্ক পরতে ও ৩ ফুট শারীরিক দুরত্ব বজায় রাখতে অসচেতন জনগণকে বাধ্য করতে পারত তবে লকডাউনের প্রয়োজন লাগতো না। মহামারী মোকাবিলায় যুগে-যুগে মাস্ক পরিধান একটি কার্যকরী ব্যবস্থা হিসাবে প্রমানিত হয়ে আসছে। জনগনের উদ্দেশ্যে সরকারের একটি আহবান থাকা উচিত ছিল যে, সকলে যদি সঠিকভাবে নিয়মিত মাস্ক পরে এবং ৩ ফুট শারীরিক দুরত্ব বজায় রেখে চলে সর্বোপরি স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলে তবে সরকারের লকডাউন দেওয়ার প্রয়োজন হবে না ইনশাল্লাহ।

Shuvo biswas

২০২১-০৪-০৮ ০২:৫৯:৪৪

Oitatik sidantoniyescen sorkar

Islam

২০২১-০৪-০৮ ০১:৫৭:৫৬

শপিংমল খোলার সিদ্ধান্ত সঠিক। করোনা সহসা যাবেনা। করোনার অজুহাতে অর্থনৈতিক কর্মকান্ড স্থবির করা যাবে না। আমাদের hard immunity এর দিকে যেতে হবে। শারীরিক পরিশ্রম, শরীরে রোদ্র লাগানো, পুষ্টিকর খাবার, টিকা গ্রহণ ইত্যাদির মাধ্যমে করোনা প্রতিরোধ করতে হবে।

ক্ষুদিরাম

২০২১-০৪-০৮ ১৪:৫৭:৩০

কি চমৎকার দেখা গেল !!

Md. Abbas Uddin

২০২১-০৪-০৮ ১৪:৫৭:২৬

রাস্তা-ঘাট, পাড়া-,মহল্লায় কোথাও স্বাস্থ্যবিধি মানতে দেখছি না। জনগণকে মাস্ক পরিধান, ৩ ফুট শারীরিক দুরত্ব বজায় রাখতে বাধ্য করতে সরকার ব্যর্থ ? সরকারের কাছে পুলিশ, বিজিবি, সেনাবাহিনী অর্থভান্ডার থাকা সত্ত্বেও যদি ব্যর্থ হয় তবে জনগন যাবে কোথায় ? জরুরী ভিত্তিতে কঠোর আইনের প্রয়োগ চাই। পাশা-পাশি করনায় স্বাস্থ্যবিধি সম্পর্কে জনসচেতনতার জন্য সারা দেশ জুড়ে জনপ্রতিনিধিদের সম্পৃক্ত করে নিয়মিতভাবে ব্যাপক মাইকিং চালাতে হবে

LISA

২০২১-০৪-০৮ ১৪:৫৫:১১

এটা কেমন লকডাউন, স্বাস্থ্যবিধি কি কেউ মানে ? মনে প্রশ্ন জাগে আধো করোনা কি আছে ?

LISA

২০২১-০৪-০৮ ১৪:৫৩:২২

এটা কেমন লকডাউন, স্বাস্থ্যবিধি কি কেউ মানে ? মনে প্রশ্ন জাগে আধো করোনা কি আছে ?

LISA

২০২১-০৪-০৮ ১৪:৩৮:৫৮

এটা কেমন লকডাউন, স্বাস্থ্যবিধি কি কেউ মানে ? মনে প্রশ্ন জাগে আধো করোনা কি আছে ?

Md.Elyas

২০২১-০৪-০৮ ১৪:২২:২৪

NEED FULL APRIL MONTH OPEN THE SHOP OTHERWISE MANY PEOPLE GO TO MARKET AT A TIME AND SPARED THE COVID-19 RAPIDLY .

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

‘অ্যাকুয়াকালচার সেক্টর স্টাডি বাংলাদেশ’ শীর্ষক গবেষণা

করোনা পরিস্থিতিতে সঙ্কটে মাছ চাষীরা

২১ এপ্রিল ২০২১



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



রণক্ষেত্র বাঁশখালী বিদ্যুৎকেন্দ্র

শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ, গুলিতে নিহত ৫

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে হেফাজত নেতাদের বৈঠক-

গ্রেপ্তারকৃত নেতাকর্মীদের মুক্তি ও হয়রানি বন্ধের দাবি

করোনায় আক্রান্ত পুরো পরিবার

২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু

DMCA.com Protection Status