বাবার কথিত অপহরণকৃত ২ শিশু উদ্ধার

ভোলা প্রতিনিধি

বাংলারজমিন ৭ এপ্রিল ২০২১, বুধবার

পিতার দায়ের করা কথিত অপহরণ মামলার অপহৃত দুই সন্তানকে তিন বছর পর নারায়ণগঞ্জ থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। উদ্ধারকৃতরা হলেন, ভোলার রাজাপুর ইউনিয়নের শ্যামপুর এলাকার ঈমাম হোসেন ইমন ( ১০) ও তার ভাই নিজাম উদ্দিন ( ২৫)। উদ্ধারপ্রাপ্তরা স্বীকার করেন, জমিজামার বিরোধে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে পুরো ঘটনাই ছিল পিতার সাজানো মামলা । ভোলার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজেস্ট্রেট কোর্টে ঘটনার সত্যতা স্বীকারের পর মঙ্গলবার বিচারক ফরিদ আলম দুই পুত্রকে সেইভ কাস্টুরিতে পাঠান। একই সঙ্গে বাদি রফিকুল ইসলাম বেপারীকে আটক করে তার বিরুদ্ধে মামলা নেয়ার নির্দেশ দেন পুলিশকে। ২০১৭ সালের ২১ ডিসেম্বর শিশু পুত্র ঈমন ও ২০১৮ সালের ২৫ মে বড় ছেলে নিজামউদ্দিনকে মারধর করে অপহরণ করা হয়ে উল্লেখ করে পৃথক সময়েই দুটি অপহরণ মামলা করেন ভোলা সদর উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের শ্যামপুর গ্রামের রফিকুল ইসলাম বেপারী। দুটি মামলায় নিজ তিন ভাইসহ ৯ জনকে আসামী করা হয়। প্রথম মামলার আসামীরা ছিলেন মো. রহিম, মো. সেলিম, মো. আলমগীর, মো. আক্তার ও আলী আকবর।
পরের মামলায়ও প্রথম মামলার ৫ জনসহ আসামী করেন মো. ধলু, মো. জামাল ঢালি, মো. সেলিম ঢালি ও মো. হোসেনকে। রফিকুল ইসলামের দায়ের করা মামলায় নিজ তিন ভাইসহ ৯জন বিভিন্ন সময়ে গ্রেপ্তার হন। মাসের পর মাস কারাগারে থাকেন এরা। মামলার এক পর্যায়ে দুটি অপহরণ ঘটনা সাজানো হতে পারে বলে সন্দেহ প্রকাশ করেন বিচারক সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফরিদ আলম। তিনি বাদিকে জিজ্ঞাসাবাদসহ তার মোবাইল ফোন ট্রাকিং করার নির্দেশ দেন তদন্তকারী কর্মকর্তাকে। আর এতেই বের হয়ে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য। তিন বছর ৩ মাসে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়েও পুলিশ অপহৃতদের উদ্ধার করতে পারেন নি। পরে গত মাসে বিচারকের নির্দেশে পুলিশ মোবাইল ফোন ট্রাকিং করেন। নারায়নগঞ্জ এলাকায় শিশু ঈমান হোসেন ইমন ও নিজাম উদ্দিনের অবস্থান নিশ্চিত হওয়ার পর এসআই মিজানুর রহমান অভিযান চালিয়ে তাদের উদ্ধার করেন। সোমবার ভোলায় নিয়ে আসেন। আদালতকে শিশু ইমন জানায়, জমিজামর বিরোধের কারনে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে তার বাবা প্রথমে তার নাম পাল্টে চট্টগ্রামের একটি মাদ্রাসায় ভর্তি করান। একইভাবে নাম পরিবর্তন করে ভাই নিজাম চাকুরি নেন। পরে তারা ঢাকা ও নারায়নগঞ্জে চলে আসেন। নারায়নগঞ্জেও ঈমনকে সিরাজ নামে একটি মাদ্রাসায় ভর্তি করানো হয়। তাদেও সঙ্গে তার পিতা মোবাইল ফোনে কথা বলতেন। একই সঙ্গে কয়েক মাস পর পর দেখা করতেও যেতেন। আদালত এদের বক্তব্য রেকর্ড করেন। পরে এতের নিরাপদ হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেন। রহস্যের জট উন্মোচনের জন্য আদালত মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তাকে ধন্যবাদ জানান। একই সঙ্গে অভিযুক্ত আসামীদের মামলা থেকে রেহাই দেয়ার নির্দেশ দেন।

আপনার মতামত দিন

বাংলারজমিন অন্যান্য খবর

রাজৈরে কেমিক্যাল ড্রাম বিস্ফোরণে নিহত ১

১৮ এপ্রিল ২০২১

মাদারীপুরের রাজৈরে কেমিক্যালের ড্রাম বিস্ফোরণে ঘটনাস্থলেই ইমন মুন্সী (২৫) নামে এক নির্মাণ শ্রমিক নিহত হয়েছে। ...

পাটক্ষেতে ছাগল ঢোকায় কৃষককে গলাটিপে হত্যা

১৮ এপ্রিল ২০২১

রংপুরে পাটক্ষেতে ছাগল ঢোকার জেরে নিবারণ রায় (৪৫) নামে এক কৃষককে গলাটিপে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। ...

সাভারে চাকরিতে পুনর্বহাল ও বেতনের দাবিতে শ্রমিকদের বিক্ষোভ

১৮ এপ্রিল ২০২১

চাকরিতে পুনর্বহাল ও বকেয়া বেতন পরিশোধের দাবিতে সাভারের বিরুলিয়ায় মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছেন ...

হাটহাজারীতে ছেলের দায়ের কোপে বাবা জখম

১৮ এপ্রিল ২০২১

চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে ইফতারের সময় বৃদ্ধ বাবা মো. কামালকে দা দিয়ে কুপিয়ে জখম করেছে ছেলে মো. ...

রামেক হাসপাতালে একদিনে ৬ জনের মৃত্যু

১৮ এপ্রিল ২০২১

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে ...

সুন্দরবনের বনরক্ষীদের বিরুদ্ধে মৌয়াল নির্যাতনের অভিযোগ

১৮ এপ্রিল ২০২১

চাহিদামতো মধু না পেয়ে পাঁচ মৌয়ালকে আটক করে নির্যাতন করার অভিযোগ উঠেছে সুন্দরবনের কতিপয় বনরক্ষীর ...

পুলিশের জেরার মুখে সড়কে নামাজ আদায়!

১৮ এপ্রিল ২০২১

 লকডাউনে বাইরে বের হওয়ায় পুলিশের জেরার মুখে কোনো জবাব না দিয়ে রাস্তায় দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় ...



বাংলারজমিন সর্বাধিক পঠিত



ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডব

ক্ষয়ক্ষতিতেও লুটের আয়োজন

DMCA.com Protection Status