মাদকে সয়লাব দৌলতদিয়া

গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) সংবাদদাতা

বাংলারজমিন ৭ এপ্রিল ২০২১, বুধবার

রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ ঘাটের দৌলতদিয়া পতিতাপল্লীসহ চারপাশ এখন মাদক ব্যবসায় সয়লাব। গাঁজা, ইয়াবা-হেরোইনসহ এমন কোনো মাদক নেই যা দৌলতদিয়ায় পাওয়া যায় না। আর এই মাদক ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ করছেন এলাকার প্রভাবশালীরা। মাঝে আবগারিসহ বিভিন্ন আইন প্রয়োগকারী সংস্থা আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করলেও ধরাছোঁয়ার বাইরে থাকছে চিহ্নিত ব্যবসায়ীরা।
দৌলতদিয়ার মাদক সম্রাজ্ঞী নামে পরিচিত পতিতাপল্লীর গাঁজা ব্যবসায়ী মুন্নি ফরিদ স্থানীয় প্রশাসনের তোয়াক্কা করেন না। তিনি দিনে কয়েক কেজি গাঁজা বিক্রি করেন। এ ব্যাপারে মুন্নি বলেন, আমার বিরুদ্ধে নিউজ করে লাভ নেই, আমি গাঁজা বিক্রি করবোই। পরোয়া করি না জেল-জুলুম-মামলার।
মাদক ব্যবসায়ী নয়ন বলেন, আমি সকলকে ম্যানেজ করেই গাঁজা বিক্রি করছি। দৌলতদিয়া ৫ নম্বর ওয়ার্ড সামসু মাস্টার পাড়ার বাসিন্দা ব্যবসায়ী মোতালেব বিগত সময়ে মাদক ব্যবসা করে কোটিপতি বনে গেছেন। তবে এখন আড়ালে থেকে প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন। স্থানীয়রা জানান, জিরো থেকে হিরো হওয়া মাদক ব্যবসায়ী মোতালেব এবং তার ছেলে নাজমুলের দাপটে এলাকাবাসী তটস্থ। আরেক ইয়াবা সম্রাট শহীদ আম্বিয়া ১০-১২টা মামলা মাথায় নিয়ে হরহামেশাই বিক্রি করে যাচ্ছেন ইয়াবা। বারবার গ্রেপ্তার হলেও থেমে নেই তার মাদক ব্যবসা। সামসু মাস্টারপাড়ায় আরেক বাসিন্দা নাসিরের পরিবারের সবাই এ ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। এ ব্যাপারে নাসির বলেন, আগে আমরা বেশি ইয়াবা বিক্রি করতাম। এখন অল্প অল্প বিক্রি করি। পতিতালয়ের আয়ুব কাকুলি এখন দৌলতদিয়ায় পাইকারি ইয়াবা ব্যবসায়ী হিসেবে পরিচিত। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মাদক বিক্রির নির্ভরযোগ্য স্থান দৌলতদিয়া পোড়াভিটা। এখানে হরহামেশাই বিক্রি হয় হেরোইনসহ, সব ধরনের মাদক। হেরোইন বিক্রেতা হিসেবে পরিচিতি রয়েছে সাথী, বেবি, রহিমা বুড়ি, ওসমান, রোজি আরিফ, লাইলি ইব্রাহিম, শাহনাজ সুবান। এরা জনসমক্ষেই হেরোইন বিক্রি করেন। বারবার এদেরকে গ্রেপ্তার করা হলেও মাদক ব্যবসায় ভাটা পড়েনি তাদের।
এ ব্যাপারে মাদক নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তা ধনঞ্জয় মণ্ডল বলেন, মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তাদের গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠানো হচ্ছে। এ ব্যাপারে উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি রফিকুল ইসলাম বলেন, গোয়ালন্দ ও দৌলতদিয়ায় মাদক কারবার চলছেই। আমরা নিয়মিতই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে মাদক সেবনকারী ও বিক্রয়কারীকে জেল-জরিমানা করছি। এই অভিযান অব্যাহত থাকবে। গোয়ালন্দ ঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহ আল তায়েরির জানান, আমরা মাদকের ব্যাপারে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছি। মাদকের বিরুদ্ধে আমাদের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

আপনার মতামত দিন

বাংলারজমিন অন্যান্য খবর

মৌলভীবাজারে ছুরিকাঘাত করে টাকা ছিনতাই

২২ এপ্রিল ২০২১

মৌলভীবাজার শহরের কুসুমবাগ এলাকা থেকে রিপন দেব নাথ (২৮) নামের এক ব্যক্তিকে ছুরিকাঘাত করে ৪ ...

দুই টাকার ইফতার

২২ এপ্রিল ২০২১

খুমেক’র পিসিআর ল্যাবে দুই শতাধিক নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট হয়নি, পুনঃসংগ্রহের উদ্যোগ

২২ এপ্রিল ২০২১

এক বছরেরও বেশি সময় ধরে খুলনা মেডিকেল কলেজের আরটি-পিসিআর ল্যাবে করোনাভাইরাস শনাক্তের জন্য নমুনা পরীক্ষা ...

মাগুরায় তালের রস খেয়ে...

২২ এপ্রিল ২০২১

মাগুরায় তালের রস খেয়ে এক গ্রামের অর্ধশতাধিক মানুষ ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্তদের মাগুরা সদর হাসপাতাল ...

ধোবাউড়ায় পাচারকালে কৃষি প্রণোদনার সার-বীজ জব্দ

২২ এপ্রিল ২০২১

ময়মনসিংহের ধোবাউড়ায় কৃষকদের জন্য প্রণোদনার সার ও বীজ পাচার করার সময় জব্দ করেছে স্থানীয় জনতা। ...

রূপগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা

২২ এপ্রিল ২০২১

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে এক মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। হামলাকারীরা মুক্তিযোদ্ধার দুই সন্তানকে চাপাতি দিয়ে ...



বাংলারজমিন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status