‘স্মার্ট প্ল্যান’ এর সন্ধানে

যুক্তরাজ্য থেকে ডা: আলী জাহান

মত-মতান্তর ২৯ মার্চ ২০২১, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ৯:১০ অপরাহ্ন

১. বৃটেনে একটি হাসপাতালের ছোটখাটো একটি ইউনিট (৩২ জন রোগী) আমাকে দেখাশোনা করতে হয়। প্রতিদিন সকাল ৯ টায় আমাদের হ্যান্ডওভার মিটিং বসে। সেই মিটিং-এ সবগুলো রোগীর ছোট-বড় কোনো ইস্যু থাকলে তা নিয়ে আলোচনা হয়। চারটি ডিসিপ্লিনের চারজন প্রতিনিধি থাকেন। কে, কোন কাজ করবে তা নির্দিষ্ট করে দেয়া হয়। ডাক্তারি কোনোকিছু হলে তা আমাকেই বা নির্দিষ্ট ডাক্তারকে করতে হয়। ধরা যাক, কোনো রোগীর ঔষধ পরিবর্তন করতে হবে অথবা শারীরিক বা মানসিক পরীক্ষা করতে হবে। সেখানে আমি আমাকেই নির্দিষ্ট করে দেই- আমি এটি করবো- I am responsible for that. রোগী হয়তো ঔষধ সময়মতো পাচ্ছে না।
সেখানে আমরা নার্সকে নির্দিষ্ট করে দেই।সময় মতো ওষুধ দেয়ার জন্য কী করতে হবে তা আমরা সুনির্দিষ্টভাবে নার্সকে বলে দেই।'করতে হবে' বলে কোনো কথা নেই। কী করতে হবে তা স্পষ্ট করে বলে দেয়া হয়। কে করবে তাও বলে দেয়া হয়। কখন বা কতক্ষণের ভেতরে করতে হবে তাও বলে দেয়া হয়। ঐ মিটিংয়ে বসে আমি বলতে পারিনা ‘রোগীকে এই ঔষধ লিখতে হবে’। বরং আমাকে বলতে হয়, রোগীকে আমি এই ঔষধ লিখে দিচ্ছি বা অন্য ডাক্তার লিখে দিচ্ছে। কারণ ঔষধ লেখার দায়িত্ব ডাক্তারদের। এখানে ‘করতে হবে’ বলে ফাইজলামি করার সুযোগ নেই। ঔষধ লেখার দায়িত্ব আমার এবং আমাকে এই দায়িত্ব নিতে হবে। ঔষধ রোগীকে দেয়ার দায়িত্ব নার্সের, সেই দায়িত্ব নার্সকে সুনির্দিষ্টভাবে নিতে হবে। ‘ঔষধ রোগীকে নিয়মিত দিতে হবে’- এধরনের আজগুবি নির্দেশনা দিতে পারি না। সহজ ভাষায় বলতে গেলে, আমরা একে SMART (Specific Measurable Achievable Realistic Timely) care plan বলতে পারি।

২. SMART plan করার উদ্দেশ্য হচ্ছে, জবাবদিহিতা বাড়ানো। নির্দিষ্ট কাজ সুচারুভাবে সম্পন্ন না হলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে আপনি সেই জন্য দায়ী করতে পারবেন। কাজটি ভালো ভাবে সম্পন্ন হলে তাকে ধন্যবাদ দিতে পারবেন। কাজটি আশাতীতভাবে সম্পন্ন হলে তাকে পুরস্কৃত করতে পারবেন।

৩. করোনার নতুন ঢেউ সামলানোর জন্য বাংলাদেশের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে আজ একটি পরিপত্র জারি হয়েছে। খুব মনোযোগ দিয়ে পড়লাম। আবার পড়লাম। চশমাটা পরিষ্কার করে ফের পড়লাম। কিন্তু একই লেখা দেখতে পাচ্ছি। ‘করতে হবে’, ‘মানতে হবে’ জাতীয় শব্দের ছড়াছড়ি। কোথাও কোনো SMART plan নেই। কে করবে, কীভাবে করবে, না করলে কী হবে এসব কথা কি ওখানে বলা আছে? না, বলা নেই।

একটি উদাহরণ দেয়া যাক। প্রথম নির্দেশনায় বলা হয়েছে ' সকল ধরনের জনসমাগম (সামাজিক/রাজনৈতিক/ধর্মীয়) সীমিত করতে হবে। দ্বিতীয় নির্দেশনায় বলা হয়েছে, মসজিদসহ সকল ধর্মীয় উপাসনালয়ে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি পরিপালন নিশ্চিত করতে হবে।' এখানে 'সীমিত' বলতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কী বুঝিয়েছেন? এই সীমিত শব্দটিকে ডিফাইন করতে হবে। যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি বলতে আপনারা কী বুঝাচ্ছেন তা পরিষ্কার করতে হবে। তৃতীয় প্রস্তাবনায় বলা হয়েছে, পর্যটন/ বিনোদন কেন্দ্রের ভেতর জনসমাগম সীমিত করতে হবে। খেয়াল করে দেখুন এখানেও সীমিত শব্দটিকে ডিফাইন করা হয়নি। পুরো ১৮টি নির্দেশনা যদি আপনি পড়েন তাহলে দেখতে পাবেন ‘করতে হবে’ ‘মানতে হবে’ শব্দগুলো বারবার ফিরে আসছে। কোন নির্দেশনার কোথাও SMART plan নেই।

৪. বাংলাদেশের মানুষ এমনিতেই স্মার্ট। তাই তাদের আর SMART plan করতে হয় না। ‘করতে হবে’- এই দুই শব্দের সাথে আপনারা নিশ্চয়ই পরিচিত। কে করবে, কখন করবে, কীভাবে করবে, না করলে কী পরিণতি ভোগ করতে হবে- তা নির্দিষ্ট করে দেয়া হয়? অধিকাংশ ক্ষেত্রেই দেয়া হয় না। দেয়া হয় না বলেই কাউকে আপনি ধরতে পারবেন না। এই টেবিল থেকে ওই টেবিল, এই টেলিফোন থেকে ওই টেলিফোন, এই বিল্ডিং থেকে ওই বিল্ডিং, এই স্যার থেকে ওই স্যারের কাছ থেকে অন্য স্যারের কাছে আপনাকে দৌড়াতেই হবে। দিনশেষে আপনি হয়তো চিন্তা করবেন কার কাছে আপনি দৌড়াচ্ছিলেন? তিনি কি আসলেই আপনার কাজ করে দিতে পারতেন? কিন্তু কাজটি করে দিলেন না, এখন আপনি কী করবেন? যিনি কাজটি করে দিলেন না তাকে সেজন্য দায়ী করতে পারবেন? পারবেন না। অবশ্য ক্ষমতার কাছাকাছি থাকলে হয়তো পারবেন।

৫. বাংলাদেশের পরিপ্রেক্ষিতে SMART প্ল্যানের কিছু কাল্পনিক উদাহরণ দিতে পারি। কর্তৃপক্ষ ভেবে দেখতে পারেন।

উদাহরণ ১- পুলিশের জন্য স্মার্ট প্ল্যান। রাস্তাঘাটের কোথাও কোনো সমাবেশ হলে পুলিশ পিটুনি দিতে পারবে। ধরা যাক, প্রেসক্লাবের সামনে একটি রাজনৈতিক সমাবেশ হচ্ছে। সেখানে পুলিশের কোনো কর্মকর্তা (ওসি)কে বলে দিতে পারেন কোন স্লোগান দিলে প্রথমে টিয়ার গ্যাস ছুড়ে মারতে হবে। এতেও কাজ না হলে গজারি কাঠের লাঠি দিয়ে পিটুনি দিতে হবে। তাতেও কাজ না হলে গুলি করতে হবে। রাবার বুলেটে কাজ না হলে তাজা গুলি ব্যবহার করতে হবে। গুলি কি হাতে করবে, মাথায় করবে, না বুক বরাবর করবে তাও বলে দিন। গ্রেপ্তার করার পর বন্দুকের বাট বা লাঠি দিয়ে শরীরে কোথায় কোথায় মারতে হবে তাও বলে দিন। মারতে মারতে বেহুশ করে ফেললে কী করতে হবে তাও বলে দিন। মারা গেলে লাশ কোথায় নিয়ে যেতে হবে তাও বলে দিতে পারেন। সাংবাদিকরা ধরলে কী বলতে হবে তাও বলে দিতে পারেন। এসব কিছু হচ্ছে স্মার্ট প্ল্যান। যিনি বা যারা এ কাজ সুচারুভাবে সম্পন্ন করতে পারেন তাদেরকে পুরস্কৃত করুন। যারা করতে পারবে না তাদেরকে ধরুন। প্রয়োজনে ট্রেনিং দেন। না হলে শাস্তির ব্যবস্থা করুন! নতুন উৎসাহে পুরস্কারের আশায় তারা এই কাজ প্রথমবার না পারলেও পরবর্তীতে সম্পন্ন করতে ঝাঁপিয়ে পড়বেন।

উদাহরণ ২- পুলিশকে সাহায্য করার জন্য কারা এগিয়ে আসতে পারবে তাদেরকে ডিফাইন করুন। যারা আসতে পারবে তাদের দলীয় পরিচয় কী তাও নির্ধারণ করে দেন। আসার সময় মাথায় হেলমেট দিয়ে আসবে না কাউবয় হেট দিয়ে আসবে তাও বলে দেন। জিন্সের প্যান্ট পরে আসবে না পায়জামা পাঞ্জাবি পরে আসবে তাও বলে দিতে পারেন।হাতে লাঠি বা হাতুড়ি থাকলেও কোমরে পিস্তল রাখা যাবে কিনা সেই ধারণাও দিতে পারেন। প্রথমে লাঠি দিয়ে মারবে নাকি গুলি ছুড়বে তাও বলে দিতে পারেন। কাজ সঠিকভাবে সম্পন্ন করতে পারলে তাদেরকে পুরস্কৃত করতে পারেন। যারা পারবে না তাদেরকে ধরুন। ট্রেনিং দিতে পারেন। উৎসাহ দিতে পারেন। পুরস্কারের কথা বলতে পারেন। আমি নিশ্চিত প্রথমবার বিফল হলেও দ্বিতীয়বার তারা সফলকাম হবে!

৬. কেউ কেউ বলতে পারেন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় আজ যে পরিপত্র জারি করেছে তা সরকারের জন্য একটি পরামর্শ। সরকার এই পরামর্শ গ্রহণ করবে কিনা, করলে কীভাবে বাস্তবায়ন করবে তা তাদের দেখার ব্যাপার নয়। এখানেও ঘাপলা আছে। পত্রিকার রিপোর্টে বলা হয়েছে, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডাক. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা আজকের জারি করা প্রজ্ঞাপনের নির্দেশাবলী জনগণকে পালন করার আহ্বান জানিয়েছেন। স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়’র পরামর্শ প্রধানমন্ত্রী অনুমোদন দিলে বাস্তবায়ন করা হবে। তাহলে প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনের আগে এই পরামর্শ জনগণকে মেনে চলার জন্য আদেশ দিচ্ছেন কীভাবে? দিতেই পারেন। আপনাদেরকে ধরার জন্য কেউ নেই। যদি ‘ করতে হবে, মানতে হবে’ এই শব্দগুলো সরিয়ে SMART proposal and plan দিতেন, তাহলে আপনাদের ধরা যেত। আপনারা বুদ্ধিমান। তাই স্মার্ট প্ল্যান দেননি। সে কারণেই বোকা জনগণ কখনো আপনাদেরকে ধরতে পারবে না।

ডা: আলী জাহান
কনসালটেন্ট সাইকিয়াট্রিস্ট, যুক্তরাজ্য।
প্রাক্তন ফরেনসিক মেডিকেল এক্সামিনার (পুলিশ সার্জন), যুক্তরাজ্য।
[email protected]

আপনার মতামত দিন

মত-মতান্তর অন্যান্য খবর

করোনা আক্রান্ত হালখাতা

বিদায় নিয়েছে পান্তা ইলিশ, পুরনো ছবিতেই বৈশাখ

১৫ এপ্রিল ২০২১

আশুগঞ্জ গণহত্যা দিবস

১৩ এপ্রিল ২০২১

যাত্রীরা যাবে কোথায়?

১ এপ্রিল ২০২১

এটাও দেখতে হলো!

২৭ মার্চ ২০২১



মত-মতান্তর সর্বাধিক পঠিত



হাজী সেলিমপুত্র ইরফানকাণ্ড

আল্লাহর মাইর, দুনিয়ার বাইর

ড্রাইভার মালেকের বালাখানা

দরজা আছে, দরজা নেই

আইন পেশায় বিরল এক মানুষ ব্যারিস্টার রফিক-উল-হক

অ্যাটর্নি জেনারেল পদে বেতন নেননি, লড়েছেন দু'নেত্রীর মামলা নিয়ে

DMCA.com Protection Status