স্বাস্থ্যের মহাপরিচালক করোনায় আক্রান্ত

স্টাফ রিপোর্টার

অনলাইন (১ মাস আগে) মার্চ ২০, ২০২১, শনিবার, ১:৩৬ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ১১:১৮ পূর্বাহ্ন

টিকা নেয়ার পর করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম। এছাড়া স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এমআইএস’র পরিচালক ডা. মিজানুর রহমানও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। সূত্র জানিয়েছে, দুদিন আগে তাদের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এই মুহূর্তে তারা নিজ বাসায় অবস্থান করছেন। অধিদপ্তরের এমআইএস’র পরিচালক ডা. মিজানুর রহমান নিজেই গণমাধ্যমকে নিজের আক্রান্ত হওয়ার খবর জানিয়েছেন।
 জানা গেছে, প্রথমে অধিদপ্তরের অফিসের ৬ জন কর্মচারী করোনা আক্রান্ত হন। যারা সব সময়  ডিজির  আশপাশে থাকেন। একজন কর্মচারী গত শনিবার তার নিজের আক্রান্ত হওয়ার সত্যতা স্বীকার করেছেন মানবজমিন-এর কাছে। উল্লেখ্য, গত ৭ই ফেব্রুয়ারি স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক টিকা নিয়েছেন ।।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

জামশেদ পাটোয়ারী

২০২১-০৩-২০ ১৯:৪৩:১৮

এই টিকাতে কিছুই নাই। ভালোও নাই খারাপও নাই। টিকা নিয়েছি এই বলে মানসিকভাবে একটু চাঙ্গা থাকা ছাড়া আর কিছু না।

মুহা: ওয়াহিদুর রহমান

২০২১-০৩-২০ ০৬:২১:১৪

বুঝা যাচ্ছে টিকার কোন কার্যকারিতা নেই ৷আল্লাহ তা'য়ালা আমাদের প্রতি রহম করুন৷

Faruque Ahmed

২০২১-০৩-২০ ১৭:০৬:৩৩

টিকা নেয়ার পর করোনায় আক্রান্ত স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক..... oh Allah we need vaccine , directly from You.

এ,টি,এম, তোহা

২০২১-০৩-২০ ১৫:৩১:১০

খবরটি প্রচার না করলে হতোনা। এমনিতেই অধিকাংশ মানুষ এই টিকার প্রতি আস্থা রাখতে পারছেনা। তারপর যদি খবর হয় স্বাস্থ্যর ডিজি টিকা নেয়ার পর আক্রান্ত হয়েছেন, তাহলে কী প্রতিক্রিয়া হবে তা সহজেই অনুমেয়। এসব খবর ছাপেন কেন? টিকা নেয়ার পর কিছুলোকতো মারা গেছে। আমার পরিচিত এবং এলাকার লোকও তার মধ্যে আছে। তারা কেন মারা গেল ? টিকার প্রতিক্রিয়ায় না অন্যকোন রোগে সে গবেষনা কী হয়েছে? পত্রিকাওয়ালারাও কী লিখেছে টিকার পর কয়জন মারা গেছে? যদি মারা যাওয়ার ব্যাপারে সেল্প সেন্সর থাকে তাহলে স্বাস্থ্যের ডিজির আক্রান্ত হওয়ার খবরটাও সেন্সরে থাকা দরকার ছিল। যেদিন শুনলাম এলাকার সেলিম, জহির , রাধারানী (ছদ্মনাম) টিকা নেয়ার 5/7 দিন পর মারা গেল সেদিন থেকে দ্বিধায় পড়েছি দ্বিতীয় ডোজ মারবো কীনা। আপনারা ডিজির রোগাক্রান্তের খবর ছেপে আমার উদ্বেগ আরো বাড়িয়ে দিয়েছেন।

Mohiuddin Palash

২০২১-০৩-২০ ১৫:০২:২৯

করোনার সংক্রমণ কি কারণে ঊর্ধ্বমুখী বেসকারি হাসপাতালে করোনা টেস্ট করতে ৪-৫ হাজার টাকা লাগে তাই নিম্ন মধ্যবিত্তরা কিভাবে এই খরচ চালাবে। খরচের ভয়ে অনেকে করোনা টেস্ট করে না এবং করোনা হয়নি বুঝানুর জন্য বাহিরে গুরে ভেড়ায়। সরকার কঠোর লকডাউনে যাওয়া উচিত বলে মনে করি। সরকার লকডাউনে যাচ্ছে কেন সিটা ব্যাখ্যা করা জরুলী হয়ে পরেছে।

Sk.Shamim Ahmmed

২০২১-০৩-২০ ০১:৩৫:১৩

The case is same to me.i was take covit vaccine 7 March & be positive 10 March.But i personally belive that may be i was affected before taken of vaccine, i was passing incubation period so nothing to be warry Everyone should takes vaccine. & Now i am getting recovered insaAllah.

কাজি

২০২১-০৩-২০ ০১:২৩:০০

الحمد لله ، الحمد لله، الحمد لله. কেন শিখলাম? যদি সাধারণ জনগণ আক্রান্ত হয় কেউ বিশ্বাস করবে না। বিতর্ক হবে। তাই খোদ মহাপরিচালক আক্রান্ত হওয়ায় বিতর্কের সুযোগ নাই। এই টিকা অকার্যকর তা এখন তিনি নিজেই মানবেন। তাই الحمد لله লিখেছি। যারা টিকা নিয়ে অসুস্থ হবে না তারা এমনিতেও অসুস্থ হত না। কারণ তারা ভাইরাসের সংস্পর্শে যায় নি। টিকা নেওয়ার আগে ও এরা অসুস্থ হয় নি। সতর্কতার কারণে অথবা অসুস্থ ব্যক্তির সংস্পর্শে না আসার ফলে। সরকারি টাকা নষ্ট হল। সরকার দায়ী নয়। কারণ ব্যবহার করার আগে মূল্যায়ন সম্ভব নয়। কোম্পানি দাবি করবে টিকা নেওয়া য় অনেক অসুস্থ হয় নি।এরা এমনিতেও অসুস্থ হত না। কারণ এরা ভাইরাসের কাছে যায় নি। অথবা স্বাস্থ্য বিধি মেনে রক্ষা পাচ্ছে। 62% কার্যকর মানে কোন কার্যকর নয়। তাড়াতাড়ি বাজার জাত করার জন্য অন্য পরীক্ষিত টিকা সঙ্গে সঙ্গে পরিপূর্ণ পরীক্ষা নিরীক্ষা ছাড়াই AstraZeneca টিকাটি বাজারে ছেড়ে দিয়েছে ব্যবসা করার জন্য। চিকিত্সার মনোবৃত্তি নাই এই কোম্পানির। এই টিকার উপর আস্থা রেখে যারা অবাধ চলাফেরা করবে বিপদে পড়বে।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

দেয়া হয় হোম ডেলিভারি

অনলাইনে ছদ্মনামে বিক্রি হচ্ছে মাদক

১৪ মে ২০২১



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status