সৌদি তেল স্থাপনায় হুতিদের ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন (১ মাস আগে) মার্চ ৮, ২০২১, সোমবার, ৪:৫১ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ১১:২০ পূর্বাহ্ন

ইয়েমেনের হুতিরা সৌদি আরবের তেল শিল্পে রোববার ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান সৌদি আরামকো’র রাস তানুরায় অবস্থিত একটি স্থাপনা। পেট্রোলিয়াম রপ্তানির জন্য এই স্থাপনাটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তবে রিয়াদ থেকে বলা হয়েছে, এতে তেমন কোন ক্ষতি হয়নি। হুতিদের হামলা ব্যর্থ হয়েছে। তারা বিশ্বের জ্বালানি নির্ভরতার ওপর ব্যর্থ হামলা চালিয়েছে। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। সৌদি আরবের জ্বালানি মন্ত্রণালয় বলেছে, এই হামলায় কোনো প্রাণহানি বা সম্পদের ক্ষতি হয়নি।
প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, তারা সমুদ্র থেকে ছুটে যাওয়া সশস্ত্র একটি ড্রোন আকাশেই বিকল করে দিয়েছে। এটি রাস তানুরায় অবস্থিত তেলশোধনাগারকে টার্গেট করেছিল। এটাকে বলা হয় বিশ্বের সবচেয়ে বড় অফশোর তেল লোডিং ফ্যাসিলিটি। রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত সৌদি আরামকোর ব্যবহৃত দাহরানে একটি আবাসিক কম্পাউন্ডের কাছে পতিত হয়েছেন একটি বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র। এর ফলে ব্রেন্ট ক্রুডের দাম প্রতি ব্যারেলের দাম ৭০ ডলারের ওপরে উঠে গেছে। ২০২০ সালের জানুয়ারি পর এই দাম সর্বোচ্চ।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Sa alim

২০২১-০৩-০৮ ১৬:২৮:১৬

তেলের দাম বারানোর একটা কৌশল

Dr. Md. Abdur Rahman

২০২১-০৩-০৮ ২১:১০:২০

This war must be stopped.

AMIR

২০২১-০৩-০৮ ১৭:৩৪:৪১

রিয়াদ থেকে বলা হয়েছে, এতে তেমন কোন ক্ষতি হয়নি। হুতিদের হামলা ব্যর্থ হয়েছে। -----এর ফলে ব্রেন্ট ক্রুডের দাম প্রতি ব্যারেলের দাম ৭০ ডলারের ওপরে উঠে গেছে। ------ক্ষতি হয়নি কিন্তু তেলের দাম বেড়ে গেল! সেই 'গোয়েবলস' এর প্রচারণা এখনও কি জনগণ বিশ্বাস করে ?

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status