‘কুমো জানতে চাইলেন আমাকে চুমু খেতে পারেন কিনা’

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন (১ মাস আগে) মার্চ ২, ২০২১, মঙ্গলবার, ১২:০৯ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ৫:৩৭ অপরাহ্ন

নিউ ইয়র্কের গভর্নর অ্যানড্রু কুমো’র বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ করেছেন একে একে তিন যুবতী। তার মধ্যে সর্বশেষ অভিযোগকারী আনা রুচ (৩৩)। তিনি প্রকাশ্যে কুমো’র আচরণ নিয়ে অভিযোগ করেছেন। সরকারি কর্মচারীর বাইরে তিনিই এমন অভিযোগ করা প্রথম নারী। আনা রুচ বলেছেন, ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে প্রথম গভর্নরের সঙ্গে তার সাক্ষাত হয়। সোমবার তিনি নিউ ইয়র্ক টাইমসকে বলেছেন, সেখানেই কুমো তার খোলা পিঠে হাত দেন। এ সময় তার হাত সরিয়ে দেন আনা রুচ। এরপর কুমো আবার তার মুখে হাত রাখেন এবং তাকে জিজ্ঞেস করেন, তিনি তাকে চুমু খেতে পারেন কিনা।
আনা রুচ বলেন, তার এ কথায় আমি ভীষণ উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ি। হতাশ হই এবং বিব্রতবোধ করি। আমি মাথা সরিয়ে নিই। তাৎক্ষণিকভাবে কোনো কথা বলিনি। এ সময়ের একটি ছবিতে দেখা যায়, অ্যানড্রু কুমো’র হাত আনা রুচের মুখে। আনা রুচ এ সময় অস্বস্তি বোধ করছিলেন তা ছবি দেখে বোঝা যায়। এসব খবর দিয়েছে অনলাইন ফ্রান্স ২৪। এতে আরো বলা হয়েছে, এর আগে আরো দু’যুবতী যৌন হয়রানির অভিযোগ আনেন। অভিযোগ অনুযায়ী, কুমো’ প্রশাসনে কাজ করতেন তারা। অভিযোগের বিষয়ে কুমো’র অফিস থেকে তদন্তের জন্য সোমবার চিঠি দেয়া হয়েছে এটর্নি জেনারেল লেতিতিয়া জেমসকে। এর আগে কে এ নিয়ে তদন্ত করবে তা নিয়ে একরকম তোলপাড় সৃষ্টি হয়। ওই চিঠির ক্ষমতাবলে লেতিতিয়া জেমস, যিনি নিজে একজন ডেমোক্রেট, তিনি পূর্ণাঙ্গ তদন্তের জন্য বাইরে কোনো আইনি প্রতিষ্ঠানকে নিয়োগ করতে পারবেন। চিঠিতে বলা হয়েছে, তদন্ত রিপোর্ট প্রকাশ্যে ঘোষণা করা হবে। এসব অভিযোগ যখন উঠছে তখন কুমো দাবি করেছেন তিনি কখনো কাউকে অন্যায়ভাবে স্পর্শ করেননি। কাউকে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলেননি। কিন্তু এমন দাবিকে সোমবার প্রত্যাখ্যান করেছেন তার সাবেক সহকারী চার্লটি বেনেট (২৫)। তিনি বলেছেন, গভর্নর তার শিকারি আচরণের দায় নিতে অথবা স্বীকার করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। চার্লটি বেনেটের দাবি, কুমো তার যৌনজীবন নিয়ে প্রশ্ন করতেন। জানতে চাইতেন, তিনি কি একজন বয়স্ক মানুষের সঙ্গে খোলা সম্পর্ক গড়তে চান কিনা। তিনি নিউ ইয়র্ক টাইমসে শনিবার বলেছেন, কুমো তার কাছে জানতে চাইতেন, তিনি একা কিনা। এ ছাড়া কুমো একজন মেয়ে বন্ধু খুঁজছেন। বেনেটের দাবি এমন ব্যক্তিরা সব সময়ই ভিকটিমদের অভিযুক্ত করে। অন্যায় প্রত্যাখ্যান করে। এর মধ্য দিয়ে তারা পরিণতি ভোগ করা থেকে দূরে থাকে।

ওদিকে কুমো’র সাবেক আরেক সহযোগী লিন্ডসে বয়লান অভিযোগ করেছেন, তার শারীরিক গঠন নিয়ে অনাকাঙ্খিত মন্তব্য করেছেন কুমো। একটি মিটিংয়ের শেষে তার সম্মতি ছাড়া তিনি তাকে চুমু দিয়েছেন। একবার তার রাষ্ট্র মালিকানাধীন জেটে বিদেশ সফরের সময় তারা ‘স্ট্রিপ’ পকার খেলেছেন। ম্যানহাটান বরো প্রেসিডেন্সির জন্য লড়াই করছেন বয়লান। গত ডিসেম্বরে তিনি প্রথম কুমো’র বিরুদ্ধে টুইট করেন। তবে এসব অভিযোগকে অসত্য বলে দাবি করেছেন কুমো। উল্লেখ্য, এসব অভিযোগ কুমো’র সুনামকে নষ্ট করে দিতে পারে। তিনি করোনা মহামারিকালে যে নেতৃত্ব দিয়েছেন তাকে ব্যাপকভাবে সেলিব্রেট করা হয়। বিশেষ করে তিনি প্রতিদিন সংবাদ সম্মেলন করেছেন। তথ্য জানিয়েছেন সবাইকে। নিশ্চয়তা দিয়েছেন জনগণকে।

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



রেডিও ফ্রি এশিয়ার রিপোর্ট

মিয়ানমারে রক্তের বন্যা, নিহত কমপক্ষে ৬০

DMCA.com Protection Status