সিনেমা দেখে কাটছে তামিমের দিন

স্পোর্টস রিপোর্টার

খেলা ২ মার্চ ২০২১, মঙ্গলবার

করোনা মহামারি ঠেকাতে বিশ্বের সবচেয়ে তৎপর দেশের একটি নিউজিল্যান্ড। কঠোর করোনা নীতি তাদের দিয়েছে দারুণ সাফল্যও। এর মধ্যে বিদেশ থেকে আসা নিজেদের নাগরিক হোক আর অতিথি, সবার জন্য কোয়ারেন্টিনে থাকার শক্ত নিয়ম। আর তা থেকে বাদ যায়নি ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে নিউজিল্যান্ড সফররত বাংলাদেশ দলও। ১৪ দিন কোয়ারেন্টিন, এর মধ্যে এক সপ্তাহ সেলফ আইসোলেশনে থাকতে হবে। যেখানে রুম থেকে বের হওয়ার কোন উপায় নেই। দিনে মাত্র ৩০ মিনিট খোলা হাওয়া-ই এখন টাইগারদের ভরসা। দেশের ওয়ানডে অধিনায়ক হিসেবে এটি তামিম ইকবালের প্রথম বিদেশ সফর।
শুরুতেই তিনি পড়েছেন কোয়ারেন্টিনে নিজেদের ফিট রাখার চ্যালেঞ্জে। উপায় অবশ্য খুব একটা নেই। তাই নেটফ্লিক্স ও অ্যামাজন প্রাইমে মুভি দেখেই দিন কাটছে। আর তা ভালো না লাগলে ঘুম। এরই মধ্যে ৬ দিন কাটিয়েছেন। আরো ৮ দিন বাকি। আর সেই দিকেই তাকিয়ে অধিনায়ক। গতকাল নিউজিল্যান্ড থেকে পাঠানো এক ভিডিও বার্তায় তামিম ইকবাল বলেন, ‘আসলে দিনে সাড়ে ২৩ ঘণ্টাই আমাদের হোটেল রুমের মধ্যে থাকতে হয়। ৩০ মিনিট বাইরে খোলা হাওয়ায় যাওয়ার সুযোগ পাই। সৌভাগ্য যে আমাদেরকে সাইকেল দিয়েছে, আর দেশ থেকে কিছু ব্যান্ড পেয়েছি। যা দিয়ে রুমে কিছুটা ফ্রি হ্যান্ড ব্যায়াম করছি। তবে সত্যি কথা আমার দিন পার হচ্ছে নেটফ্লিক্স-অ্যামাজন প্রাইম দেখে। আর ঘুমানো ছাড়া কি আছে। এখনতো কিছু করার নেই। কারণ কারো সঙ্গে দেখা হচ্ছে না। তবে সেলফ আইসোলেশন যতটা কঠিন মনে হয়েছিল ততোটাও না। আশা করি দ্রুতই দিনগুলো শেষ হয়ে যাবে।’

নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসে নিউজিল্যান্ডে মাটিতে ক্রিকেটের কোনো ফরম্যাটেই জয় পায়নি টাইগাররা। এবার তা বদলের পালা। আর তামিম বিশ্বাস করেন তাদের সেই যোগ্যতা আছে। তিনি বলেন, ‘অধিনায়ক হিসেবে এটি আমার প্রথম বিদেশ সফর। আমি আশাবাদী প্রথম ওয়ানডের আগে দল হিসেবে প্রস্তুতি সম্পন্ন করতে পারবো। আমি নিজে বিশ্বাস করি ও দলের ক্রিকেটারদের সঙ্গে কথা বলে যেটি বুঝতে পারি যে সবাই ভালো কিছু করতে প্রস্তুত। সবাই ভালো করতে চায় বাংলাদেশ দলের জন্য। আমি সব সময় বলি আমাদের সেই যোগ্যতা আছে। যদি আমরা সবাই পরিকল্পনাগুলো বাস্তবায়ন করতে পারি, এক হয়ে খেলতে পারি তাহলে আমরা যে কোনো দলকে হারাতে পারি।’

আরো একটি করোনা পরীক্ষার ফলের অপেক্ষায় আছে টাইগাররা। যদি আজ রিপোর্ট নেগেটিভ আসে তাহলে কয়েকটি গ্রুপে ভাগ হয়ে জিম ও অনুশীলনের সুযোগ পাবে বাংলাদেশ দল। ওয়ানডে অধিনায়ক তামিমও সেই অপেক্ষায়। তিনি বলেন, ‘কাল (আজ) যদি আমাদের সবার কোভিড-১৯ এর ফলাফল নেগেটিভ আসে তাহলে ৮ নাম্বার দিন থেকে সব ঠিক থাকলে আমরা জিম শুরু করতে পারবো কয়েকটি গ্রুপে। আমরা মাঠে যেয়েই অনুশীলন করতে পারবো। আমি সামনের দিকে তাকিয়ে আছি। তবে যখন সব কিছু শুরু হয়ে যাবে, আমাদের সব দৃষ্টি ক্রিকেটে ফিরে আসবে বলেই আশা করি।’
 

আপনার মতামত দিন

খেলা অন্যান্য খবর

ছোট পর্দায় আজকের খেলা

২১ এপ্রিল ২০২১

জয়বঞ্চিত লিভারপুল

২১ এপ্রিল ২০২১

‘সাংবাদিকদের মিস করি’

২১ এপ্রিল ২০২১

২০১৯-এর মার্চ থেকে দেশের ক্রিকেটে করোনাভাইরাসের হানা। এরপর থেকে বদলে গেছে অনেক কিছুই। মাঠে ক্রিকেট ...

পরিসংখ্যানে ‘বাংলাদেশ শ্রীলঙ্কা’ টেস্ট সিরিজ

২১ এপ্রিল ২০২১

আজ শুরু হচ্ছে শ্রীলঙ্কা-বাংলাদেশের মধ্যকার দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। আইসিসি আয়োজিত বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ ...

চার তরুণে লঙ্কান ভবিষ্যৎ দেখছেন আর্থার

২১ এপ্রিল ২০২১

দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আজ মাঠে নামছে বাংলাদেশ। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ম্যাচে ...

নির্ধারিত সময়েই টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল আইসিসির আশাবাদ

২১ এপ্রিল ২০২১

আগামী জুনে ইংল্যান্ডের সাউদাম্পটনে ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি হওয়ার কথা কোহলিদের। ভারতের করোনা ...



খেলা সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status