এবার আলোচনায় তামিমার পাসপোর্ট ও তালাকনামা

স্টাফ রিপোর্টার

অনলাইন (১ মাস আগে) ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১২:৩৭ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ৮:২৬ অপরাহ্ন

ক্রিকেটার নাসির হোসেনের বিয়ে নিয়ে তোলপাড় সর্বত্র। তৈরি হচ্ছে নানা আলোচনা। বিয়ের দ্বিতীয় সপ্তাহেই এই নয়া দম্পতির বিরুদ্ধে মামলা করেন রাকিব হাসান নামের এক ব্যক্তি। নিজেকে তামিমার স্বামী দাবি করেন তিনি। এরই জের ধরে তামিমা ও নাসিরের সংবাদ সম্মেলন। তাতে সাংবাদিকদের কাছে তামিমা তার অবস্থান পরিস্কার করেন। তিনি দাবি করেন, ক্রিকেটার নাসিরকে বিয়ের অনেক আগেই  রাকিবকে তালাকের নোটিশ দেন। সব রীতিনীতি মেনেই নাসিরের ঘরণী হন তামিমা।
কিন্তু তার সাবেক স্বামী কেন এসব করে বেড়াচ্ছেন তা তিনি নিজেও জানেন না।
এদিকে তামিমার সংবাদ সম্মেলনের কিছুক্ষণ বাদেই তার সবশেষ ইস্যু করা পাসপোর্টের ছবি ভাইরাল হয় সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে। সাংবাদিকদের কাছে তিনি বলেছেন, রাকিবকে ২০১৬ সালে তালাক নোটিশ দেন। কিন্তু ২০১৮ সালে ইস্যু করা পাসপোর্টে তামিমার স্বামীর নামের জায়গায় রাকিবের নামই উল্লেখ করা রয়েছে। এ নিয়ে নেটিজেনরা বিভিন্ন প্রশ্ন তুলছেন। যদিও কেউ কেউ বলছেন, তখন পর্যন্ত পাসপোর্টে বিষয়টি সংশোধন নাও হয়ে থাকতে পারে।
বুধবার সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের হাতে একটি কাগজ দিয়েছেন তামিমা তাম্মী, এসময় ক্রিকেটার নাসির ও তাদের আইনজীবী ব্যারিস্টার আসিফ বিন আনওয়ারও উপস্থিত ছিলেন। যে কাগজের শিরোনাম ছিলো ‘স্ত্রী কর্তৃক স্বামীকে তালাকে নোটিশ’।
ওই নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে, ২০১৬ সালের ২৩ ডিসেম্বর তামিমা সুলতানা তাম্মী তার স্বামী রাকিব হাসানকে তালাক প্রদানের নোটিশ দিয়েছেন। তবে রাকিব এটি পুরোপুরি অস্বীকার করে আদালতে মামলা দায়ের করেছেন। এদিকে, আদালতে ক্রিকেটার নাসির ও তামিমা সুলতানার বিরুদ্ধে মামলার ডকেটে একটি নথী সংযুক্ত করেছেন আইনজীবী ইশরাত হাসান। যেটিতে তামিমার স্বামীর নাম উল্লেখ রয়েছে ‘রাকিব হাসান’। একই সঙ্গে ইমার্জেন্সি কন্ট্রাকেও স্বামী রাকিব হাসানের নাম উল্লেখ রয়েছে।
পাসপোর্টটি প্রদান করার তারিখ হিসেবে উল্লেখ রয়েছে- ৪ মার্চ ২০১৮ সাল। যেটির মেয়াদোত্তীর্ণ ৩ মার্চ ২০২৩ সালের কথাও উল্লেখ রয়েছে। পাসপোর্টের ধরণ বলছে, এটি রি-ইস্যু করা। পাসপোর্টটির বর্তমান নম্বর বিআর দিয়ে শুরু হয়ে ৫৩ ডিজিট উল্লেখ করে শেষ হয়েছে। অন্যদিকে তার পুরাতন পাসপোর্টটি বিএ দিয়ে শুরু হয়ে ১১ ডিজিট উল্লেখ করে শেষ হয়েছে।
রাকিব হাসানের আইনজীবী ইশারত হাসান এ ব্যাপারে গণমাধ্যমে বলেন, তামিমা সুলতানা আমার মক্কেল রাকিবের স্ত্রী হয়েও তাকে তালাক না দিয়ে ক্রিকেটার নাসিরকে বিয়ে করেছেন। যা আইনসিদ্ধ নয়। এখানে রাকিব হাসান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন, তার সঙ্গে প্রতারণা করা হয়েছে এবং তার মানহানি হয়েছে। এ সংক্রান্তে পাসপোর্টের কপিসহ অন্যান্য নথী আমরা মামলার ডকেটে সংযুক্ত করেছি। ইতোমধ্যে মামলাটি তদন্তের জন্য পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। মামলাটি তদন্ত করে আগামি ৩০ মার্চ প্রদিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

কাজী এনাম উদ্দীন

২০২১-০২-২৫ ১৮:২৩:২৮

বাংলাদেশের ক্রিকেটে যদি কোন মহা লম্পট থেকেই থাকে তার নাম হচ্ছে নাসির। এই নাসির কতই কিইনা দেখাল! বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডও নোংরা নাসিরের কারণে লজ্জিত। আগামীতে ক্রিকেট বোর্ডে নাসির নামক কাউকে নিতে সিদ্ধান্তহীনতায় ভোগবে। কারণ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডে নাসির নামটি মীর জাফর এর মত কলংকিত একটি নাম। ধিক নাসির তোমাকে ধিক। ধিক তামিমা নামক এই ----------------------- ভাষাটা গেফ এ থাক। -আবুধাবি থেকে।

khaled

২০২১-০২-২৫ ১৫:৩২:১৬

i believe from the bottom of my heart, Nasir and Tamima is liar. there is lots of question need to be answered. As per Bangladesh divorce procedure- there would be 3 session with municipality official- i am hundred percent sure it is not happened. so divorce is not done properly. Divorce letter which has been showed it is fake document,

Advocate Md. Abdus S

২০২১-০২-২৫ ১৪:৩৫:৫৮

স্ত্রী কি সরাসরি তালাক দিতে পারেন? যদি স্ত্রীকে তালাক দেবার ক্ষমতা না দেওয়া হয় তাহলে স্ত্রী সরাসরি তালাক দিতে পারেন না। এজন্য তাকে আদালতের দারস্থ হতে হয়। কেউ কেউ বলছেন পাসপোর্ট রিইস্যু করা, কেউ যদি মিথ্যা তথ্য দিতে পাসপোর্ট নেয়, সেটাও শাস্তিযোগ্য অপরাধ, এজন্য ছয় মাস জেলের বিধান আছে পাসপোর্ট আইনে।

Sanaful Sohel

২০২১-০২-২৫ ১৪:০৬:৩৭

মিডিয়ার দৃষ্টি আকর্ষণ করছি, যেহেতু নাছির ও তার বর্তমান ওয়াইফ অনেক টাকার মালিক, অন্যদিকে রাকিব অর্থনৈতিক ভাবে দুর্বল, যেহেতু টাকা দিয়ে অনেক কিছুই পরিবর্তন করা যায়। সেহেতু টাকার বিনিময়ে তথ্য পরিবর্তন করে যেন রাকিবের মত একজন দরিদ্র পরিবারের সন্তান যাহাতে জাহাআলমের মত না হয়। তাই মিডিয়ার সচেতনতা অবলম্বন করা অতিবজরুরী।

Md. Fazlul hoque

২০২১-০২-২৫ ০০:০৪:১৫

প্রথমত তামিমা যে তালাকনামাটি দেখাচ্ছেন সেটি genuine কিনা অথবা কাজী কে দিয়ে back date দিয়ে বানানো হয়েছে কিনা, এটি প্রথম তদন্তের বিষয় । তারপর ঐ তালাকনামাটি যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে রাকিবের নিকটে পৌঁছানো হয়েছে কিনা । আরেক ছেলের সাথে ছয়মাস সংসার করার পরে রাকিব সেসময় আইনের দারস্হ হলেন কিনা এইসব তদন্ত করলেই বিরাট গাপলা পাওয়া যাবে ।তামিমা যেহেতু international airlines এ চাকুরি করেন আর যেহেতু ঐ passport দিয়েই তিনি travel করেন তাই passport টি reissue করার সময় চাকুরির জামেলা এড়ানোর জন্যই হয়ত স্বামীর নাম পরিবর্তন না করেই reissue করে থাকতে পারেন । তামিমার দুর্বল point গুলো ও রাকিবের জানা ছিল তাই রাকিব সেটি ও কাজে লাগাতে পারেন । সর্বোপরি তামিমা ও রাকিবের নিষ্পাপ বাচ্চাটার কথা ভেবে নিয়ে এ ব্যাপারটির একটি সঠিক সমাধান হওয়া উচিত ।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

ব্যাংক হিসাব রক্ষণাবেক্ষণে খরচ অর্ধেক কমলো

১১ এপ্রিল ২০২১

ব্যাংক আমানতকারীদের হিসাব রক্ষণাবেক্ষণ মাশুল অর্ধেক কমিয়ে দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। ২ লাখ থেকে ১০ লাখ ...



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



২২ সদস্যের সাংস্কৃতিক দলের ১৫ জন আক্রান্ত

ভুটানের প্রধানমন্ত্রীর ২ সফরসঙ্গী করোনা আক্রান্ত

মেডিকেলে চান্স পাওয়া দুই যমজ ভাইয়ের পিতা অটোরিকশা চালক বিল্লাল

'আল্লাহর কাছে যা চাইছি, তার চেয়ে বেশি পাইছি'

DMCA.com Protection Status