টিকা নেয়ার ১২ দিন পর ত্রাণ সচিব করোনায় আক্রান্ত

স্টাফ রিপোর্টার

প্রথম পাতা ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ২:১১ অপরাহ্ন

৭ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১। করোনাবিরোধী লড়াইয়ে নতুন অধ্যায়ে প্রবেশ করে বাংলাদেশ। শুরু হয় গণটিকাদান কর্মসূচি। এরপর এখন পর্যন্ত টিকা দেয়া হয়েছে ২৬ লাখের বেশি মানুষকে। স্বল্পসংখ্যক মানুষের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার খবরও পাওয়া গেছে। কিন্তু টিকা নেয়ার পর কারও করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর মেলেনি এতোদিন। প্রথমবারের মতো এই ধরনের একটি ঘটনার খবর পাওয়া গেছে। শীর্ষ স্থানীয় এক সরকারি কর্মকর্তার ক্ষেত্রে ঘটেছে এই ঘটনা।
টিকা নেয়ার ১২ দিন পর করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোহসীন। বর্তমানে তিনি রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এই ঘটনায় রীতিমতো চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। শুরু হয়েছে নানা আলোচনা। পাওয়া গেছে ভিন্ন ভিন্ন মত।
এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য অফিসার মো. সেলিম হোসেন মানবজমিনকে জানান, সচিব স্যার অসুস্থবোধ করলে ১৮ই ফেব্রুয়ারি করোনার পরীক্ষার নমুনা দেন। এরপর ১৯শে ফেব্রুয়ারি করোনা পজেটিভ হওয়ার খবর আসে। ৭ই ফেব্রুয়ারি রাজধানীর জাতীয় ক্যান্সার গবেষণা ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে টিকা নিয়েছিলেন তিনি। বর্তমানে তার সামান্য কাশি আছে। জ্বর নেই। শরীরটা একটু দুর্বল।
টিকা নেয়ার পর করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ব্যাপারে জানতে চাইলে- দেশের বিশিষ্ট ভাইরোলজিস্ট, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি অধ্যাপক ডা. নজরুল ইসলাম বলেন, ভাইরাসটির শক্তিকালীন সময় ১৫ দিন। এর আগেই তিনি সংক্রমিত হয়ে থাকতে পারেন। তিনি হয়তো টের পাননি। তার লক্ষণ প্রকাশ পায়নি। কিন্তু তিনি সংক্রমিত হয়েছেন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার সাবেক পরিচালক অধ্যাপক ডা. বে-নজির আহমেদ এ ব্যাপারে বলেন,  বিষয়টি এ রকম যে আমরা টিকা দিলে করোনার প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে। টিকার একটি কার্যকর সময় আছে। ৭ দিন পর অ্যান্টিবডি তৈরি শুরু হয়। তারমানে এমন নয় যে করোনা হবে না। ধীরে ধীরে অ্যান্টিবডি বৃদ্ধি পাবে। সুরক্ষা দেবে। তিনি বলেন, করোনার টিকার প্রথম ডোজ দেয়ার ৮ সপ্তাহ পর দ্বিতীয় ডোজ। তখন দেখা যাবে ৭০ থেকে ৮০ ভাগ ক্ষেত্রে তার এ সংক্রমণটা হবে না। তিনি তো এখনো দ্বিতীয় ডোজ নেননি। তার সুরক্ষা হয়নি। এই জনস্বাস্থ্যবিদ আরো বলেন, ভাইরাসটির একটি শক্তিকালীন সময় থাকে ১৪ দিন।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Montosh Sarker

২০২১-০২-২৫ ১৮:৫৫:৫৭

স্যার যেন তারাতারি ভালো হয়ে যায়।

এইচ আফজাল

২০২১-০২-২৫ ০৯:৩৩:৩৫

খবরের মিডিয়াগুলোর মাধ্যমের বা দায়িত্বে নিয়োজিত ব্যক্তিদের কথায় আস্তা হারিয়েছি।

Dr.Mohammad Abdur Ra

২০২১-০২-২৫ ০৮:১০:১৭

Even after the second dose corona can affect but the percentage and virulence is less.

shafiqul islam

২০২১-০২-২৫ ১১:০১:০৭

টিকার প্রথম ডোজ দেওয়ার ১২ দিনের মধ্যে প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরী হবে এমন কথা নাই। পুর্ন দুই ডোজ টিকা নেবার পর পুর্ন প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি হবার কথা।

Ashraful Haque

২০২১-০২-২৪ ২১:৫৮:১২

বিশদ পরীক্ষা-নিরীক্ষার প্রয়োজন আছে। প্রয়োজনে w.h.o. এর সহায়তা নেয়া যেতে পারে। w.h.o. কে বিষয়টি জানানো উচিত বলে মনে করছি। জনমনে বিভ্রান্তির সৃষ্টি না হয় সেই লক্ষ্যে সঠিক তথ্য ও বিশ্লেষণ উপস্থাপন করা জরুরি।

NASRIN RUMA

২০২১-০২-২৪ ২১:৪১:৫৪

টিকা দেয়ার পর ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা বাধ্যতামূলক করা উচিৎ।

ডা সাইদ রুবায়েত

২০২১-০২-২৪ ২১:২০:২৫

টিকা কার্যকর হতে সময় লাগে। টিকার প্রথম ডোজ নেয়ার দু সপ্তাহের মধ্যে এর কার্যকারিতা আশা করার কোন কারন নেই। তাই এ সময়ে কোভিড আক্রান্ত হওয়া অত্যন্ত স্বাভাবিক।

Dr. Gour Gobinda Go

২০২১-০২-২৫ ০৯:৪০:৫২

I hope researchers will find an appropriate answer to this puzzle.

Md. Shahid ullah

২০২১-০২-২৫ ০৮:৩৩:০৭

জয়নাল আবেদীন ফারুক যেন ভয় না পায়!

কাজি

২০২১-০২-২৪ ১৮:৫০:৫১

যদিও যুক্তি আছে তথাপি বিষয়টি WHO এর গোচরে আনা প্রয়োজন। এতে বিশদ পরীক্ষা নিরীক্ষা হতে পারে । টিকার উন্নয়নে সহায়তা করতে পারে।

আপনার মতামত দিন

প্রথম পাতা অন্যান্য খবর

দুর্দশা

২১ এপ্রিল ২০২১

বেসরকারি হাসপাতাল

লাগামহীন চিকিৎসা ব্যয়

২১ এপ্রিল ২০২১

বাড়ছে মানুষ-গাড়ি

সড়কে ভিন্ন চিত্র

২০ এপ্রিল ২০২১



প্রথম পাতা সর্বাধিক পঠিত



রায়েরবাজার কবরস্থানে একদিন

গোরখোদকের কষ্টকথা

বাড়ছে মানুষ-গাড়ি

সড়কে ভিন্ন চিত্র

বেসরকারি হাসপাতাল

লাগামহীন চিকিৎসা ব্যয়

DMCA.com Protection Status