একাই চালিয়ে গেছেন লড়াইটি

কাজল ঘোষ

শেষের পাতা ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:০২ অপরাহ্ন

একেবারে অকস্মাৎ চলে গেলেন। বিশ্বাস হচ্ছিল না। কীভাবে সম্ভব? এটা হতেই পারে না। তিনি খুব একটা শারীরিক সমস্যায় ছিলেন তা-ও নয়। যতদূর জানি ক’দিন আগেই টিকা নিয়েছেন। টিকাদান কেন্দ্রে দেখা হওয়া রিপোর্টারদের সঙ্গে এর ভালো দিকগুলো নিয়ে কথাও বলেছেন। আর এখন তিনি অতীত।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় খবরটি যখন পেলাম সেদিন সকালেও তিনি একটি ওয়েবিনারে অংশ নিয়েছেন।
কথা বলেছেন। কিন্তু ছেলে সৈয়দ নাসিফ মকসুদ যখন গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন তখন আর এ নিয়ে নির্বাক, হতবাক হওয়া ছাড়া কিছু বলার নেই। সকল টেবিলে এটিই আলোচনা। কি এমন হলো তাকে এত দ্রুতই চলে যেতে হলো?   
তিনি ছিলেন ব্যতিক্রম। নানা ভাবেই। পরিচিতি পেয়েছিলেন গান্ধীবাদী মানুষ হিসেবে। তার জীবন দর্শনে ছিল সব সময়ই মহাত্মা গান্ধী এবং রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। নীরবে কাজ করে গেছেন। সাংবাদিকতা পেশা থেকে কিছুটা দূরে সরলেও নিয়মিত কলাম লিখতেন। সমসাময়িক ইস্যু নিয়ে টেলিভিশন বা সেমিনারে; রাজপথের মিছিলে সবসময় সাধারণ মানুষের কাতারে ছিলেন। ব্যক্তিগতভাবে টকশো প্রযোজক হিসেবে স্যারের সঙ্গে নানা বিষয়ে কথা বলার সুযোগ হয়েছে। দীর্ঘদিন তিনি মোবাইল ফোন ব্যবহার করতেন না এই আধুনিক সময়েও। কিন্তু সময়ের কোনো নড়চড় হয়নি। ঠিক সময়ে শ্বেত শুভ্র পোশাকে তিনি পৌঁছে যেতেন স্টুডিওতে। আর প্রতিটি ইস্যুতে যুক্তিগ্রাহ্য কথা বলতে কখনো আপস করতে দেখিনি।

সৈয়দ আবুল মকসুদ কে? তিনি কি করতেন? অনেক ফিরিস্তি দেয়া যাবে এই সর্বজন শ্রদ্ধেয় মানুষটিকে নিয়ে। তিনি গবেষক। তিনি প্রাবন্ধিক। তিনি দেশসেরা কলাম লেখক। সব ছাপিয়ে তাকে নিয়ে যে প্রশ্নের উত্তর অনেককেই দিতে হতো, তিনি কেন কাফনের কাপড় পরেন?

টকশোতে আসতেন আর বেরিয়ে গেলে অনেকেই ফোন করতেন এই প্রশ্ন জানতে। অনেক আগেই তার নিজের জবানিতেই জেনে নিয়েছিলাম এর উত্তর। ইরাকে আমেরিকান আগ্রাসনের বিরুদ্ধে তিনি একাই লড়াইটা করে যাচ্ছিলেন সেই ২০০৩ সাল থেকে। অনাহূত যুক্তিতে, অযৌক্তিকভাবে আমেরিকা ইরাকে হামলা চালিয়েছিল। অসংখ্য সাধারণ মানুষকে হত্যা করা হয়েছিল। সেই নারী, শিশু হত্যার প্রতিবাদে গান্ধীবাদী এই মানুষটি প্রতিবাদ বেছে নিয়েছিলেন ‘অহিংস’। সাদা কাপড়ে জড়িয়েছিলেন নিজেকে। সেলাই ছাড়া এ পোশাকেই তিনি এরপর সকল আন্দোলন, সংগ্রামে ছুটেছেন। লড়াইটা একাই চালিয়ে গেছেন। এ যেন কবিগুরুর সেই গানের মতোই- ‘যদি তোর ডাক শুনে কেউ নাই আসে তবে একলা চলো রে...’।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

আনিস উল হক

২০২১-০২-২৫ ০৪:০০:১৯

সৈয়দ আবুল মকসুদ কে? আমাদের মনিক দাদা কি বলেন? মানিকদাদা নিঃসন্দেহে কালের গহ্বরে দ্রুত হারিয়ে যাবেন কিন্তু সৈয়দ আবুল মকসুদ অনেক কাল টিকে থাকবেন।মানিক দাদারা বৎসরান্তে আসেন যান।আহমদ শরীফ আবুল মকসুদের জন্য জাতিকে শত বছর অপেক্ষায় থাকতে হয়।

আপনার মতামত দিন

শেষের পাতা অন্যান্য খবর

নির্বাচনী সহিংসতা মেহেন্দিগঞ্জে নিহত ২

১২ এপ্রিল ২০২১

করোনার কারণে স্থগিত হওয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সহিংসতায় বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে দুইজন ...

সয়াবিন ও পাম অয়েলের অগ্রিম কর কমালো এনবিআর

১২ এপ্রিল ২০২১

 রমজানে দ্রব্যমূল্য সহনীয় রাখতে আমদানিকৃত অপরিশোধিত সয়াবিন ও পাম অয়েলের ওপর ৪ শতাংশ অগ্রিম কর ...

পশ্চিমবঙ্গে রক্তাক্ত ভোট নিহত ৫

১১ এপ্রিল ২০২১

পশ্চিমবঙ্গের চতুর্থ দফার ভোটে সহিংসতায় প্রাণ হারিয়েছেন কমপক্ষে ৫ জন। এরমধ্যে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে ...

জেএসডি’র আলোচনা সভায় বক্তারা

বৃহত্তর ঐক্যের মাধ্যমে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে

১১ এপ্রিল ২০২১

বৃহত্তর জাতীয় ঐক্যের মাধ্যমে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠার আহ্বান জানিয়েছেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা গতকাল শনিবার ...

রেডিও ফ্রি এশিয়ার রিপোর্ট

মিয়ানমারে রক্তের বন্যা নিহত কমপক্ষে ৬০

১১ এপ্রিল ২০২১

রাতভর গুলি। এখানে-ওখানে পড়ে আছে রক্তাক্ত মৃতদেহ। রাতের অন্ধকারেই সেসব মৃতদেহ সরিয়ে নিচ্ছিল সামরিক জান্তার ...

বিএনপি’র উস্কানিতে অনেকে স্বাস্থ্যবিধি নিয়ে উদাসীনতা দেখাচ্ছে

১১ এপ্রিল ২০২১

বিএনপি’র উস্কানিতে অনেকে স্বাস্থ্যবিধি পালনে উদাসীনতা দেখাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল ...



শেষের পাতা সর্বাধিক পঠিত



সিলেটের ব্যবসায়ীদের ঘোষণা

আর লকডাউন নয়, দোকান খোলা থাকবে

এক লাখ ডোজ টিকা হস্তান্তর

৫ দিনের সফরে ভারতীয় সেনাপ্রধান ঢাকায়

চট্টগ্রামে রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত

খালি নেই আইসিইউ সাধারণ বেড

ডি-৮ নেতাদের প্রধানমন্ত্রী

রোহিঙ্গাদের ফেরাতে মিয়ানমারকে চাপ দিন

DMCA.com Protection Status