বাংলাদেশে ১২ লাখ টন এলএনজি রপ্তানি করবে কাতার পেট্রোলিয়াম

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন (২ দিন আগে) ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২১, মঙ্গলবার, ১১:৩৪ পূর্বাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ৫:৪৬ অপরাহ্ন

ডাচ কোম্পানি ভিটলের সঙ্গে একটি দীর্ঘকালীন বিক্রয় ও ক্রয় চুক্তি (এসপিএ) স্বাক্ষর করেছে কাতার পেট্রোলিয়াম। চুক্তির অধীনে কোম্পানিটি বাংলাদেশে প্রতি বছর ১২ লাখ ৫০ হাজার টন এলএনজি (লিকুইড ন্যাচারাল গ্যাস) সরবরাহ করবে। এ নিয়ে সোমবার একটি বিবৃতি দিয়েছে কাতার পেট্রোলিয়াম। এতে জানানো হয়েছে, ২০২১ সালের শেষ দিকে এই এলএনজি রপ্তানি শুরু হবে।
এ চুক্তিকে স্বাগত জানিয়েছেন কাতারের জ্বালানীমন্ত্রী ও কাতার পেট্রোলিয়ামের সিইও সাদ বিন শেরিদা আল-কাবি। তিনি বলেন, ভিটলের সঙ্গে এই এসপিএ চুক্তি করে আমরা আনন্দিত। বাংলাদেশের জ্বালানী চাহিদা পুরনে আমরা এলএনজি সরবরাহ অব্যাহত রাখবো। বিশ্বজুড়ে আমাদের অংশীদার ও ক্রেতাদের কাছে পছন্দের সরবরাহকারী হওয়ায় আমরা গর্বিত।

ভিটল একটি ডাচ জ্বালানী কোম্পানি। এটি বিশ্বের সবথেকে বড় স্বাধীন তেল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। এর বাৎসরিক আয় অ্যাপলের সমান প্রায়। ব্লুমবার্গের দেয়া তথ্যমতে ২০১৯ সালে কোম্পানিটি গড়ে প্রতিদিন ৮ মিলিয়ন ব্যারেলেরও বেশি অপরিশোধিত তেল সরবরাহ করেছে। বিশ্বজুড়ে বাড়ছে জ্বালানীর চাহিদা। ভিটল তাই গ্যাস ও বিদ্যুতের ব্যবসায় প্রবেশ করছে।
বাংলাদেশের আভ্যন্তরীণ গ্যাসের যোগান কমে আসায় আমদানি বাড়ছে গ্যাসের। তাই ভারত ও পাকিস্তানের মতো বাংলাদেশও অন্যতম প্রধান গ্যাস আমদানিকারক রাষ্ট্রে পরিণত হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। বর্তমানে প্রতিদিন ২ কোটি ৮০ লাখ কিউবিক মিটার গ্যাস উৎপাদন করতে পারে বাংলাদেশ। অর্থাৎ বছরে প্রায় ৭৫ লাখ টন গ্যাস উৎপাদন হয় দেশে। ২০১৯ সালে বাংলাদেশ প্রায় ৩৮ লাখ টন এলএনজি আমদানি করেছিল।

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর

শ্রীলঙ্কা-পাকিস্তান দহরম-মহরম

২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status