সিনহুয়ার প্রতিবেদন

করোনা মোকাবিলায় বহুপক্ষীয় ব্যবস্থার ওপর গুরুত্ব চীনের, বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরা যা বললেন

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন (৪ সপ্তাহ আগে) জানুয়ারি ২৮, ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১১:৩৮ পূর্বাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ১:৩৭ অপরাহ্ন

করোনা মহামারির চ্যালেঞ্জ কাটিয়ে উঠার ক্ষেত্রে মাল্টিলেটারিজম বা বহুপক্ষীয় ব্যবস্থার ওপর জোর দিয়েছে চীন। সোমবার ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম ভার্চ্যুয়াল ইভেন্ট অব দ্য ডাভোস এজেন্ডায় এমন ধারণার পর জোর দিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। তিনি বিশ্বের সবার সঙ্গে উন্নয়ন সম্ভাবনাকে শেয়ার করার প্রুতিশ্রুতি ব্যক্ত করেছেন। তার এমন অবস্থানের পক্ষে মত দিয়েছেন বাংলাদেশি কিছু ব্যবসায়ী। তারা বলেছেন, করোনা ভাইরাস মহামারি থেকে যেসব চ্যালেঞ্জ সব দেশ ও অঞ্চলের ওপর আরোপিত হয়েছে, তা কাটিয়ে উঠার একমাত্র পথ হতে পারে বহুপক্ষীয় ব্যবস্থা। এ খবর দিয়েছে চীনের সরকারি বার্তা সংস্থা সিনহুয়া। এতে বলা হয়, প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের বক্তব্যের পক্ষে অবস্থান নিয়েছেন বাংলাদেশি বেশ কিছু ব্যবসায়ী নেতা। ওই বৈঠকে শি জিনপিং আদর্শগত কুসংস্কার ঝেড়ে ফেলার জন্য বিশ্বের প্রতি আহ্বান জানান।
একই সঙ্গে তিনি পারস্পরিক সহাবস্থান, পারস্পরিক সুবিধা ও সহযোগিতামূলক ‘উইন-উইন’ প্রক্রিয়ায় যুক্ত হওয়ার আহ্বান জানান। শি জিনপিং আরো বলেন, বৈশ্বিক কোনো সমস্যাই একক কোনো দেশের পক্ষে সমাধান করা সম্ভব নয়। এমন কোনো সমস্যার সমাধান করতে প্রয়োজন বৈশ্বিক অ্যাকশন, বৈশ্বিক সাড়া এবং বৈশ্বিক সহযোগিতা।
তার এ বক্তব্যের বিষয়ে মত দিয়েছেন অর্থনীতিবিদ এবং বাংলাদেশ ইন্ডেন্টিং এজেন্টস এসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ শাহজাহান সিদ্দিকী। তিনি বলেছেন, করোনা মহামারি বৈশ্বিক অর্থনীতি ও আর্থিক বাজারের জন্য সবচেয়ে বড় হুমকি হয়ে দেখা দিয়েছে। এই মহামারি বিশ্বের জন্য মারাত্মক ক্ষতি বয়ে এনেছে। বিঘœ সৃষ্টি হয়েছে বৈশ্বিক সরবরাহ চেইনে। আমদানি করা পণ্য ও সেবার চাহিদা কমে গেছে। একই সঙ্গে কমে গেছে বৈশ্বিক পর্যটন ও ব্যবসাভিত্তিক সফর। সারা বিশ্বে উৎপাদন কমে গেছে। এক্ষেত্রে চীন বিশ্বের সরবরাহ চেইন, ভ্রমণ এবং পণ্যবাজারে বড় ভূমিকা রাখছিল। করোনা মহামারি একই সঙ্গে মানুষের দুর্ভোগ বৃদ্ধি করেছে। সারাবিশ্বের অর্থনীতি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তিনি উল্লেখ করেন, মহামারি একটি বৈশ্বিক সমস্যা। এর কোনো সীমান্ত নেই। তিনি বলেন, সমন্বিত প্রচেষ্টা ও বহুপক্ষীয় কর্মপরিকল্পনা ছাড়া করোনা ভাইরাস মোকাবিলা করতে পারে না বিশ্ব।
বাংলাদেশ চায়না চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির জয়েন্ট সেক্রেটারি জেনারেল আল মামুন মৃধা। তিনি বলেন, শি জিনপিংয়ের বক্তব্য এই বার্তাই দিয়েছে যে, বহুপক্ষীয় ব্যবস্থা গুরুত্বপূর্ণ। এই বিশ্বায়ন এবং আধুনিক যোগাযোগ ব্যবস্থার যুগে বিশ্বকে শান্তি ও উন্নয়নের জন্য একত্রিতভাবে কাজ করা উচিত। তিনি আশা প্রকাশ করেন বাংলাদেশ এবং চীন পাশাপাশি অবস্থান করে দীর্ঘদিনের জন্য অত্যন্ত বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখবে। শি জিনপিংয়ের ভূমিকা বহুপক্ষীয় ব্যবস্থায় সহায়ক বলে মন্তব্য করেছেন পেঙ্গুইন আইস অ্যান্ড ফিশ প্রসেসিংয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক লায়ন মশিউর আহম্মেদ। তিনি বলেন, এরই মধ্যে বাণিজ্য ও বিনিয়োগের জন্য চীন তার দরজা উন্মুক্ত করে দিয়েছে। উল্লেখ্য, বাংলাদেশ থেকে আমদানি করা শতকরা ৯৭ ভাগ পণ্যের ওপর শুল্কমুক্ত সুবিধা দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে চীন। তিনি আরো বলেন, আমরা আশা করি নিকট ভবিষ্যতে চীনের বাজারে আরো সুবিধা পাবেন বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরা। তিনি বলেন, তারা এখন চীনে অধিক পণ্য পাঠাচ্ছেন।

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর

মার্কিন গোয়েন্দা রিপোর্ট

খাসোগি হত্যার অনুমোদন দিয়েছিলেন সৌদি ক্রাউন প্রিন্স

২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status