আর্সেনাল থেকে ৮০ ভাগ কম বেতনে ফেনেরবাচে ওজিল

স্পোর্টস ডেস্ক

খেলা ২৬ জানুয়ারি ২০২১, মঙ্গলবার

আর্সেনালে মৌসুমের শুরু থেকেই দলের বাইরে ছিলেন মেসুত ওজিল। গত সপ্তাহে তুরস্কের ক্লাব ফেনেরবাচ ঘোষণা দেয়, তারা ওজিলকে দলে টানার চেষ্টা করছে। এবার এলো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা। জার্মান মিডফিল্ডারের তুরস্কে পাড়ি জমানোর বিষয়টি নিশ্চিত করে আর্সেনাল।
তবে নতুন ক্লাবে জার্মান মিডফিল্ডারের বেতন নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। বছরে মাত্র ৩০ লাখ ইউরোর বিনিময়ে তুরস্কের ক্লাবটির হয়ে খেলবেন ওজিল। আর্সেনালে বার্ষিক ১ কোটি ৬০ লাখ ইউরো বেতন পেতেন ওজিল। যেটি ফেনেরবাচের চেয়ে পাঁচ গুণ বেশি।
করোনার কারণে বিশে^র সব বড় বড় ফুটবল ক্লাবগুলো খেলোয়াড়দের বেতন কমাতে বাধ্য হয়।
আর্সেনালও সেই তাগিদ অনুভব করে খেলোয়াড়দের ৩০ শতাংশ বেতন কমায়। কিন্তু সপ্তাহে সাড়ে তিন লাখ ইউরো নেয়া ওজিল বেতন কমাতে নারাজ ছিলেন। অথচ সেই ওজিলই তুরস্কে যাওয়ার জন্য ৮০ ভাগের বেশি বেতন কমিয়েছেন। অবশ্য বেতন কমাতে বাধ্যও হয়েছেন এই জার্মান প্লেমেকার। গত মার্চের পর থেকে গানারদের হয়ে কোনো ম্যাচ খেলেননি তিনি। এক বছর মাঠে না নেমে ওজিলও অস্থির হয়ে ওঠেন। তাছাড়া আর্সেনালে যে বেতন পাচ্ছিলেন, সেটা ইউরোপে অন্য কোনো ক্লাব তাকে দিতে রাজি নয়।
এক বিবৃতিতে ফেনেরবাচ জানায়, ‘আর্সেনালে যে বেতন পেতেন ওজিল তুর্কিতে খেলতে এসে তার চেয়ে ১ কোটি ৩০ লাখ ইউরো কম নেবেন।’ এ চুক্তি থেকে আর্সেনালের অবশ্য লাভের সম্ভাবনা এখনো আছে। ক্লাবের সবচেয়ে বেশি বেতনভোগী হয়েও মাঠে নামছিলেন না ওজিল। না খেলেই সপ্তাহে সাড়ে তিন লাখ ইউরো কামিয়ে নিচ্ছিলেন। খেলছেন না এমন এক খেলোয়াড়ের বেতন দিতে হচ্ছে না তাদের। সে সঙ্গে কিছুু শর্ত পূরণ করলে ওজিলের কারণে আর্সেনালকে ২০ লাখ ইউরো দেবে ফেনেরবাচ।
বিদায়বেলায় অবশ্য আর্সেনালের প্রতি আরও একবার ভালোবাসার কথা জানান ওজিল। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেয়া সে বার্তায় লিখেন, ‘উত্তর লন্ডনেই আমি প্রাপ্তবয়স্ক হয়েছি। একে আমি সব সময় ঘর হিসেবেই জানবো। এ ক্লাব আর ভক্তদের জন্য যে ভালোবাসা, সেটা ভাষায় প্রকাশ করা কঠিন। যদিও এই ক্লাবের হয়ে আর খেলব না, প্রতিটি খেলায় তাদের সমর্থন দিয়ে যাব। আমি সারা জীবন গানার থাকব- এ ব্যাপারে কোনো সন্দেহ নেই।’

আপনার মতামত দিন

খেলা অন্যান্য খবর

বাংলাদেশ দলের নিউজিল্যান্ড সফর

অবশেষে মাঠের সুবাস নিচ্ছেন টাইগাররা

৪ মার্চ ২০২১



খেলা সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status