ভিক্ষার ছলে যৌন হয়রানি, বৃদ্ধ গ্রেপ্তার

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী থেকে

অনলাইন (১ মাস আগে) জানুয়ারি ২৫, ২০২১, সোমবার, ৭:৩৫ অপরাহ্ন

রাজশাহীতে ভিক্ষা নেয়ার ছলে নগরীর প্রাণকেন্দ্র সাহেববাজার ও আরডিএ মার্কেট এলাকায় যৌন হয়রানি করে বেড়ান এক বৃদ্ধ। ওই বৃদ্ধের কর্মকাণ্ড নিয়ে মুঠোফোনে ধারণ করা একটি ভিডিও ক্লিপ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে পুলিশ তৎপর হয়ে উঠে। গত রোববার রাতে নগরীর পাঁচানী মাঠ এলাকা থেকে বুলু নামের ওই বৃদ্ধকে আটক করে বোয়ালিয়া পুলিশ। যৌন হয়রানির অভিযোগে দায়েরকৃত একটি মামলায় তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃত বৃদ্ধের নাম বুলু (৬২)। নগরীর পাঁচানী মাঠ এলাকায় তার দোতলা একটি বাসা আছে। তিনি নারীদের যৌন হয়রানি করার উদ্দেশ্যে ভিক্ষুক সাজেন। সম্প্রতি বৃদ্ধের ভিক্ষাবৃত্তির ছলে যৌন হয়রানির কৌশলগুলো সাইফুল ইসলাম দুলাল নামের এক যুবকের দৃষ্টিগোচর হলে গোপনে প্রায় ৬ মিনিটের একটি ভিডিও ধারণ করে ফেসবুকে পোস্ট দেন তিনি।
গত রোববার সন্ধ্যার দিকে দেয়া ওই পোস্ট মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যায়। এসময় ওই বৃদ্ধকে দ্রুত গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় এনে শাস্তির দাবি জানিয়ে অনেকেই কমেন্ট করতে থাকেন। ভিডিওতে দেখা গেছে, সাহেব বাজার এলাকায় ওই বৃদ্ধ কৌশলে স্কুল-কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীসহ সব বয়সী নারীদের যৌন হয়রানি করছেন। না দেখার বাহানা করে হঠাৎ নারীদের শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানে হাত দিচ্ছেন। ভিডিও ক্লিপটি দিয়ে সাইফুল ইসলাম দুলাল নামের ওই যুবক তার ফেসবুকে পোস্টে লিখেছেন, ‘আজ (রোববার) দুপুর আনুমানিক পৌনে দুইটার দিকে রাজশাহীর সাহেববাজার এলাকায় এই বৃদ্ধ লোকটিকে আমি লক্ষ্য করি। লোকটি সাহায্যের জন্য মূলত মেয়ে/নারীদের কাছে যায় এবং তাদের শরীরে স্পর্শ করে এমনভাবে যেন সে অজ্ঞাতসারে বা ভুল করে করে ফেলেছে। সন্দেহ হওয়ায় তার পিছু নিই এবং একই জঘন্য কাজ সবার সঙ্গে করছে দেখা যায়। লোকটি বয়স্ক, না বুঝে করেছে ভেবে অনেকেই এড়িয়ে যাচ্ছে।’ ‘কিন্তু সজ্ঞানে এবং কুৎসিত লক্ষ্য নিয়েই এই কাজ করছে তা সুস্পষ্ট। তার আসল উদ্দেশ্য জানার জন্যই আমি মুঠোফোনে ভিডিও ধারণ করতে থাকি কিন্তু কোনো রকম ব্যবস্থা গ্রহণের পূর্বেই ভিড়ের মধ্যে হারিয়ে ফেলি। এই লোক এবং এরকম আরো যারা আছে তাদের হতে সকলকে সাবধান হতে হবে এবং তাদের যত দ্রুত সম্ভব প্রশাসনের (আইনের) আওতায় আনার অনুরোধ জানাই। তা না হলে রোজই রাস্তায় নারীরা হেনস্তার শিকার হতে থাকবে।’ বোয়ালিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারণ চন্দ্র বর্মণ বলেন, ভিডিও দেখে ওই বৃদ্ধকে শনাক্ত ও গ্রেপ্তার করা হয়েছে। যারা তার যৌন হয়রানির শিকার হয়েছেন তাদের মধ্যে থেকে একজন মামলা করেছেন। সেই মামলায় তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। ওসি আরো বলেন, প্রাথমিকভাবে তথ্য পাওয়া গেছে তিনি সচ্ছল। তবে বৃদ্ধ। হাঁটতে চলতে অন্যকে ধরেন। মানসিক প্রতিবন্ধিতার কোনো তথ্য মেলেনি। স্ত্রীসহ তার দুই সন্তান রয়েছে।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Sarwar

২০২১-০১-২৬ ০৯:০৩:৪৪

আমি তাকে ঠিক ধিক্কার জানাইনা কারণ আমার মনে হয় লোকটা মানসিক বিকারগস্ত। সে জানেই না আসলে তার অসভ্যতা কতটা ভয়াবহ। এসব লোকদের মানসিক চিকিৎসা প্রয়োজন এবং এদেরকে রোগী হিসেবে বিবেচনা করতে অনুরোধ করছি।

ইউসুফ

২০২১-০১-২৫ ২২:১৫:১১

ধিক্কার জানাই।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



তালাকের পরও পাসপোর্টে রাকিবের নাম

পুলিশের জেরার মুখে পড়তে হচ্ছে তামিমাকে

DMCA.com Protection Status