শুভ জন্মদিন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, ফিরে দেখা অভিনেতার শেষ পাঁচটি ছবি!

অনলাইন (১ মাস আগে) জানুয়ারি ১৯, ২০২১, মঙ্গলবার, ১২:৫৬ অপরাহ্ন

গত বছর তিনি বলেছিলেন যে জন্মদিনে 'আদিখ্যেতা' ভালো লাগে না। তাই জন্মদিনের আগেই অন্য কোথাও চলে যাবেন তিনি! সেই অন্য কোথাও যে এতটা দূর হবে সেটা ভাবতে পারেননি তাঁর পরিবার ও ভক্তরা। আজ সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের (Soumitra Chatterjee) ছিয়াশিতম জন্মদিন। দাদাসাহেব ফালকে পুরষ্কার বিজয়ী অভিনেতা সত্যজিৎ রায়ের (Satyajit Ray) অপুর সংসার (Apur Sansar) ছবি দিয়ে নিজের কেরিয়ার শুরু করেছিলেন তিনি। এর পর বিশ্ববরেণ্য পরিচালকের সঙ্গে আরও অনেক ছবি করেন পর্দার অপু। তবে বাঙালির কাছে তিনি শুধুই একজন অভিনেতা নন। সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় একজন কবি, নাট্যকার, লেখক, পরিচালক ও বাচিকশিল্পীও বটে। আজীবন তাঁর প্রিয় শহর কলকাতায় কাটানো ধুতি-পাঞ্জাবি পরা এক আদ্যোপান্ত বাঙালি।
গত বছর নভেম্বর মাসে কোভিড (Covid 19) আক্রান্ত হয়ে দক্ষিণ কলকাতার একটি হাসপাতালে ভর্তি হন প্রবীণ অভিনেতা।
নান আনুষঙ্গিক অসুখের সঙ্গে প্রায় ৪০ দিন লড়াই করে ১৫ নভেম্বর চিরঘুমের দেশে চলে যান তিনি।
আজ তাঁর জন্মদিনে ফিরে দেখা যাক তাঁর অভিনীত শেষ পাঁচটি ছবি।

অবলম্বন (Abalamban)
এই বছরেই ৮ তারিখে মুক্তি পেয়েছে নাড়ুগোপাল মণ্ডল (Narugopal Mandal) পরিচালিত এই ছবি। পারিবারিক ছবিতে দয়াল বাবুর চরিত্রে ছিলেন সৌমিত্র। তবে কোনও ওটিটি প্ল্যাটফর্মে ছবিটি দেখা যায় না।
সাক্ষী অ্যান আই উইটনেস (Sakkhee an Eye Witness)
সুশান্ত সাহার (Susanta Saha) পরিচালনায় এই ছবি একটি থ্রিলার। একটি ছোট ছেলে একটি খুন দেখে ফেলায় গণ্ডগোল বাঁধে। খুনিরা পাগলের মতো খুঁজতে থাকে ছেলেটিকে। কী ভাবে সে নিজের জীবন বাঁচায়, সেই নিয়েই এগিয়ে চলে ছবির গল্প।
শ্রাবণের ধারা (Sraboner Dhara)
গত বছর ফেব্রুয়ারি মাসে মুক্তি পেয়েছে এই ছবিটি। জনপ্রিয় পরিচালক-জুটি সুদেষ্ণা রায় (Sudeshna Roy) ও অভিজিৎ গুহর (Abhijit Guha) পরিচালিত ছবি এটি। পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় (Parambrata Chattopadhyay) ও সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ছিলেন ছবির মুখ্য চরিত্রে। অ্যালঝাইমার্স (Alzheimers) রোগ হল ছবির মূল সূত্র। ডক্টর শুভেন্দু সেনের (Dr. Subhendu Sen) ছোট গল্প বিটুইন রেনড্রপস (Between Raindrops) অবলম্বনে ছবিটি নির্মিত।
কিছু কিছু জায়গায় ছবিটি অ্যামাজন প্রাইম (Amazon Prime ) প্ল্যাটফর্মে দেখা যায়।
তুমি ও তুমি (Tumi O Tumi)
অরুণিমা দে (Arunima Dey) পরিচালিত এই ছবি তিনজন মহিলা ও তাঁদের লড়াইয়ের গল্প বলে। বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন পরিস্থিতিতে এই মহিলাদের জীবন তুলে ধরে এই ছবি।
তখন কুয়াশা ছিল (Tokhon Kuasa Chilo)
সৈয়দ মুস্তাফা সিরাজের (Syed Mustafa Siraj) গল্প অবলম্বনে এই ছবি তৈরি করেছেন শৈবাল মিত্র (Saibal Mitra)। একজন অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক কী ভাবে সমাজে নানা অন্যায়ের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান সেই নিয়েই ছবির গল্প। শিক্ষকের চরিত্রে ছিলেন সৌমিত্র।

সূত্র- নিউজ ১৮

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

সাংবাদিক নির্যাতন

কুড়িগ্রামের সাবেক ডিসির বিরুদ্ধে মামলা চলতে বাধা নেই

৭ মার্চ ২০২১

মধ্যরাতে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে বাংলা ট্রিবিউনের কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি সাংবাদিক আরিফুল ইসলামকে ...

বিএনপি’র ৭ই মার্চের আলোচনা সভায় বক্তারা-

মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃত করা হচ্ছে

৭ মার্চ ২০২১



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



তালাকের পরও পাসপোর্টে রাকিবের নাম

পুলিশের জেরার মুখে পড়তে হচ্ছে তামিমাকে

গাজীপুর আইনজীবী সমিতির নির্বাচন

সভাপতি-সম্পাদকসহ ৫ পদে বিএনপি বিজয়ী

DMCA.com Protection Status