বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠানের নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা

হেলাল উদ্দীন রানা, যুক্তরাষ্ট্র থেকে

অনলাইন (১ মাস আগে) জানুয়ারি ১৯, ২০২১, মঙ্গলবার, ১০:৫৫ পূর্বাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ৪:৫২ অপরাহ্ন

প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত জো বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠানের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ উৎকন্ঠা দেখা দিয়েছে সর্বত্র। অভিষেক অনুষ্ঠানে নিয়োজিত নিরাপত্তা রক্ষীদের ভেতর থেকেই হামলার আশংকা করছেন প্রতিরক্ষা কর্মকর্তারা। কড়া নজরদারি করা হচ্ছে নিরাপত্তা রক্ষীদের উপর। ক্যাপিটল হিলে হামলার ঘটনায় ভেতরের নিরাপত্তা রক্ষীদের মৌন সমর্থন ছিল এমন অভিযোগ উঠার পর এখন কাউকেই নজরদারির বাইরে রাখা হচ্ছে না। ক্যাপিটল হিলে নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত সদস্যরা বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠানকে সমর্থন করে কি না তা এফবিআইয়ের সঙ্গে যৌথভাবে খতিয়ে দেখছে সেনাবাহিনীর কর্মকর্তারা ।

প্রেসিডেন্ট বাইডেনের কন্যা অ্যাশলি বাইডেন শপথ অনুষ্ঠানের নিরাপত্তার বিষয়ে তার উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। তবে ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী ক্রিস্টোফার মিলার বলেছেন, বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠান ঘিরে ভেতরের কোন হুমকি রয়েছে গোয়েন্দা তথ্যে এরকম কিছুই পাওয়া যায়নি। তারপরেও নিরাপত্তা ব্যবস্থায় কোন প্রকারের ত্রুটি রাখা হয়নি। ইউএস আর্মি সেক্রেটারি রায়ান ম্যাকারথি ন্যাশনাল গার্ড কমান্ডারের প্রতি বাহিনীর ভেতর থেকে শপথ অনুষ্ঠানে কোন রকমের নিরাপত্তার হুমকি আছে কিনা তা সতর্কতার সঙ্গে খতিয়ে দেখার আহবান জানিয়েছেন।
তবে ন্যাশনাল গার্ড কর্মকর্তারা এমন আশংকা উড়িয়ে দিয়েছেন।

বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসিতে সর্বোচ্চ সতর্কাবস্থা জারি করা হয়েছে। সম্ভাব্য ড্রোন হামলার জন্য সজাগ রয়েছে নিরাপত্তা বাহিনী। এফবিআই-এর জারি করা এলার্টের প্রেক্ষিতে ২১টি রাজ্যে ন্যাশনাল গার্ড নামানো হয়েছে। এফবিআই বলছে এখনও হুমকির মাত্রা রয়েছে সর্বোচ্চ পর্যায়ে।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প হোয়াইট হাউসে প্রায় একা হয়ে পড়েছেন বিদায়বেলায়। ইতিমধ্যে হোয়াইট হাউসের সিনিয়র-জুনিয়র স্টাফরা প্রেসিডেন্টকে ছেড়ে চলে গেছেন। তবে ট্রাম্প এখনও নির্বাচনে জয়লাভ করেছেন বলে দাবি করছেন।

ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্যেও আজ সোমবার ওয়াশিংটন ডিসির নিকটবর্তী ভার্জিনিয়ার রিচমন্ডে স্বল্প সংখ্যক উগ্রবাদী সশস্ত্র ট্রাম্প সমর্থক বিক্ষোভ করেছে। সিটিজেন ডিফেন্স লিগের ব্যানারে জড়ো হলেও এই গ্রুপ কট্টর শ্বেতাঙ্গবাদী প্রাউড বয়, বগালো ও ব্ল্যাক প্যান্থারের সাথে জড়িত।
তারা তাদের সংবিধানের দ্বিতীয় সংশোধনীর অধিকারের বলে এই বিক্ষোভ করে।

অন্যদিকে, ৬ জানুয়ারি ক্যাপিটল ভবনে হামলার সময় পেনসেলভেনিয়ার মহিলা রেইলি জুন উইলিয়ামস স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির অফিস থেকে তার ল্যাপটপ চুরি করে নিয়ে যায়। পরে উইলিয়ামস এই ল্যাপটপ রাশিয়ায় তার বন্ধুর কাছে পাঠিয়ে দেয়। এফবিআই এই ডিভাইস রাশিয়ান ফরেন ইন্টিলিজেন্সের কাছে বিক্রি করা হয়েছে বলে ধারনা করছে। এফবিআইয়ের হাতে একটি ভিডিও ফুটেজ রয়েছে, যাতে  স্পিকার অফিসে উইলিয়ামসকে সন্ত্রাসীদের নানা নির্দেশ দিতে দেখা যাচ্ছে। স্থানীয় আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী হ্যারিসবার্গ পেনসেলভেনিয়ায় অভিযান চালিয়েও উইলিয়ামসকে আটক করতে পারেনি। উইলিয়ামস এখন পলাতক রয়েছে। এফবিআই এ বিষয়ে আরো তদন্ত করছে।

কোর্টে দাখিল করা একটি নথি থেকে  এই তথ্য পাওয়া গেছে। এনিয়ে ইউএসএ টুডে একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছে। ক্যাপিটল হিলে হামলার ঘটনায় এ পর্যন্ত শতাধিক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মামলা হয়েছে দুই শতাধিক। এফবিআই হামলার ফুটেজ, ছবি ও সেল ফোনের ডাটা বিশ্লেষণ করে সন্ত্রাসীদের দরোজা দরোজায় টোকা দিচ্ছে এখন।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

মঙ্গলে রহস্যের ঝড়

২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১

খুলনায় বিএনপির সমাবেশ

নেতাকর্মীদের সমাবেশস্থলে আসতে পুলিশি বাধার অভিযোগ

২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১

লেখক মুশতাকের মৃত্যু

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবি ঢাবিতে বিক্ষোভ

২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১

আজিমপুরে সমাহিত লেখক মুশতাক

২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১

রাতে সড়কে ঝরলো আরো ৮ প্রাণ

২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১

ঢাকা বার নির্বাচন

সভাপতি বাতেন, সেক্রেটারি হযরত

২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status