আরও কঠোর লকডাউনের হুঁশিয়ারি বৃটেনে

খালেদ মাসুদ রনি, ইংল্যান্ড থেকে

অনলাইন (৫ দিন আগে) জানুয়ারি ১৩, ২০২১, বুধবার, ১১:৩৪ পূর্বাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ৭:৪২ অপরাহ্ন

ফাইল ফটো
বৃটেনে করোনা ভাইরাসের নিয়ম যথাযথভাবে না মানলে আরও কঠোর লকডাউনের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। তিনি সতর্ক করে বলেছেন, বর্তমান যুক্তরাজ্যে করোনা ভাইরাস সর্বোচ্চ সতর্কতার মুহুর্তে রয়েছে। এখন আমরা যদি আমরা মনে করি যে, বিষয়গুলি যথাযথভাবে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে না, তবে আরও কঠোর লকডাউনের প্রয়োজন হতে পারে।

প্রধানমন্ত্রী সাংবাদিকদের আরও বলেছেন, আমি মনে করি আজকে সকালে অধ্যাপক ক্রিস হুইটি (ইংল্যান্ডের প্রধান মেডিকেল অফিসার) যা বলেছিলেন তা একদম ঠিক ছিল। তিনি বলেন, বর্তমান সময়টি বৃটেনের জন্য অত্যন্ত বিপজ্জনক মুহুর্ত, কারণ প্রত্যেকে বুঝতে পারে যে, ভ্যাকসিনটি আসছে এবং ইউকেতে যাদের সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন তাদের বেশিরভাগকে টিকা দেয়া হবে। যার ফলে লকডাউন ভাঙ্গার প্রবণতা বেড়ে যাবে।

এদিকে, প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের আগে ইংল্যান্ডের প্রধান মেডিকেল অফিসার সতর্ক করে বলেছিলেন, আগামী কয়েক সপ্তাহ এনএইচএসের জন্য ‘সবচেয়ে খারাপ’ সময় হবে। ক্রিস হুইটি ভ্যাকসিনের কার্যক্রম চলাকালে অপ্রয়োজনীয় যোগাযোগ’ বন্ধ করার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি সতর্ক করে দিয়েছেন যে এটি একটি গুরুতর সমস্যা এবং ইংল্যান্ডের প্রতিটি অঞ্চলে এটি বাড়ছে।
এটি সবারই সমস্যা। তিনি বলেন, অপ্রয়োজনীয় যোগাযোগ হল সংক্রমণের একটি সম্ভাব্য যোগসূত্র, যা ছড়িয়ে দেবে দুর্বল ব্যক্তির কাছে।

বর্তমানে হাসপাতালের রোগীদের সংখ্যা ইংল্যান্ডে রেকর্ড উচ্চতায় পৌঁছেছে। সরকারী হিসাব মতে, করোনা ভাইরাসে মৃত্যুর সংখ্যা ৮০ হাজার হলেও দেশটির পরিসংখ্যান সংস্থাগুলির দ্বারা প্রকাশিত সর্বশেষ প্রতিবেদনে দেখা গেছে করোনায়  এ প্রর্যন্ত ৯৩ হাজার ৩০ জন মারা গেছেন।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

কোর্ট রিপোটার্স ইউনিটির

সভাপতি হাসিব, সম্পাদক জাহাঙ্গীর

১৮ জানুয়ারি ২০২১

আর জীবনে ভোট করবো না

নির্বাচনে হেরে প্রার্থীর কান ধরে পানিতে ডুব (ভিডিও)

১৮ জানুয়ারি ২০২১

কবিতা

জীবনের অভিযাত্রা

১৮ জানুয়ারি ২০২১

সাকারায় প্রাচীন ইতিহাস

১৮ জানুয়ারি ২০২১

দেশে জনশুমারি অক্টোবরে

১৮ জানুয়ারি ২০২১

কক্সবাজারের ‘পাওয়ার আলী’

গৃহপরিচারক থেকে হাজার কোটি টাকার মালিক

১৮ জানুয়ারি ২০২১



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status