আনুশকা ‘ধর্ষণ-হত্যা’ মামলা

নিরাপত্তারক্ষীর জবানবন্দি

স্টাফ রিপোর্টার

শেষের পাতা ১৩ জানুয়ারি ২০২১, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:২০ পূর্বাহ্ন

ঢাকার কলাবাগানে বন্ধুর বাসায় আনুশকা নুর আমিন ‘ধর্ষণের পর হত্যা’ মামলায় প্রত্যক্ষদর্শী সাক্ষী হিসেবে জবানবন্দি দিয়েছেন ফারদিন ইফতেখার দিহানের বাসার নিরাপত্তাকর্মী দুলাল হোসেন। গতকাল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ১৬৪ ধারায় দুলালের জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়েছে। জবানবন্দিতে দুলাল এই মামলার গুরুত্বপূর্ণ অনেক তথ্য দিয়েছেন। এর আগে সোমবার দুপুরে দুলালকে মিরপুর রোডের ডলফিন গলির সামনে থেকে হেফাজতে নেয় পুলিশ। আনুশকার মৃত্যুর ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর থেকেই পলাতক ছিলেন দুলাল।
তদন্ত সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, দুলাল এই মামলার গুরুত্বপূর্ণ সাক্ষী। কারণ তিনি ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী। ঘটনার পরপরই গা-ঢাকা দেন দুলাল।
তাই তাকে খোঁজার জন্য পুলিশের একটি টিম কাজ করেছে। দুলাল প্রত্যক্ষদর্শী সাক্ষী হিসেবেই জবানবন্দি দিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, ওইদিন বাসা থেকে যখন আনুশকাকে নিচে নামানোর জন্য তার সহযোগিতা নিয়েছিল দিহান। তারা দু’জন মিলেই বাসার তিন তলা থেকে সিঁড়ি দিয়ে আনুশকাকে ধরে নিচে নামিয়ে গাড়িতে তুলেছিল। তবে দিহান বাসার ভেতরে গিয়ে কি দেখেছে সেটি জানাতে অপরাগতা দেখান তদন্ত সংশ্লিষ্টরা।
গত বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর আনোয়ার খান মডার্ন মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে আনুশকার মরদেহ উদ্ধার করে কলাবাগান থানা পুলিশ। এ ঘটনায় আনুশকার কথিত বন্ধু দিহানকে আটক করে পুলিশ। এছাড়া ওই সময় হাসপাতালে থাকা দিহানের তিন বন্ধুকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়। ঘটনার সঙ্গে তাদের প্রাথমিকভাবে সম্পৃক্ততা না পাওয়ায় পরদিন মুচলেকা নিয়ে পরিবারের জিম্মায় ছেড়ে দেয় পুলিশ। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার গভীর রাতে আনুশকার বাবা বাদী হয়ে কলাবাগান থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। মামলায় ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ আনা হয় শুধু দিহানের বিরুদ্ধে। দিহান বর্তমানে কারাগারে রয়েছে।
ডিএমপি’র রমনা বিভাগের নিউ মার্কেট জোনের সহকারী কমিশনার (এসি) ও মামলার তদন্ত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা আবুল হাসান বলেন, মামলার সাক্ষী হিসেবে দুলাল বিজ্ঞ ম্যাজিট্রেটের কাছে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন। তার কাছ থেকে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য মিলেছে।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

abdullah

২০২১-০১-১৩ ১০:১৪:০৬

Dear editor, saying to you, it is clearly a murder, she is killed, by normal rape a girl can not die. every body should understand it. judiciary should understand it also.

Islam

২০২১-০১-১২ ২০:৫৪:৩৪

অনুশকার মা বলেছেন,হাসপাতালে দিহান বলে , দিহানের বাসায় তার সাথে তার তিন বন্ধু ছিল। এই তিন বন্ধুকে কেন গ্রেপ্তার করা হচ্ছেনা? তারা কি খুব প্রভাবশালী? দিহানের বাবা সাধারণ সরকারি চাকরি করে কিভাবে ৪/৫ টা বাড়ির মালিক হলো?

আপনার মতামত দিন

শেষের পাতা অন্যান্য খবর

সেক্সুয়াল ফ্যান্টাসি এবং আনুশকার করুণ মৃত্যু

পর্নোগ্রাফি যখন যৌন শিক্ষার মূল উৎস

২৮ জানুয়ারি ২০২১

১০ কোটি ছাড়ালো করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা

২৮ জানুয়ারি ২০২১

বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১০ কোটি ছাড়ালো। রয়টার্স ট্যালির হিসাব অনুযায়ী বুধবার এই মাইলফলক ছুঁয়েছে ...

করোনার শতভাগ কার্যকরী ওষুধ আবিষ্কারের দাবি মার্কিন কোম্পানির

২৮ জানুয়ারি ২০২১

করোনাভাইরাসের শতভাগ কার্যকরী ওষুধ আবিষ্কারের দাবি করেছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক কোম্পানি রেজেনারন ফার্মাসিউটিক্যালস। বর্তমানে বৃটেনে এই ওষুধটির ...

টিআইবি’র ক্ষোভ

দুদকের ভুল তদন্তে নির্দোষ ব্যক্তির সাজা

২৮ জানুয়ারি ২০২১

ভোটারদের ইভিএম ভোগান্তি

২৮ জানুয়ারি ২০২১

৪০তম বিসিএসের ফল প্রকাশ

২৮ জানুয়ারি ২০২১

৪০তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষার ফল প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। গতকাল সন্ধ্যায় পিএসসি’র ...

ঢাবি স্বাস্থ্য অর্থনীতি ইনস্টিটিউটের জরিপ

৮৪ শতাংশ লোক টিকা নিতে আগ্রহী, তবে...

২৭ জানুয়ারি ২০২১

বিনামূল্যে দেয়া হলে ৮৪ শতাংশ মানুষ টিকা নিতে আগ্রহী। কিন্তু বেশির ভাগ লোকই টিকাদান কর্মসূচি ...

স্মরণসভায় বক্তারা

মিজানুর রহমান খান সাংবাদিকতায় অনুকরণীয় হয়ে থাকবেন

২৭ জানুয়ারি ২০২১

বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তান ভ্রমণে যুক্তরাষ্ট্রের সতর্কতা

২৭ জানুয়ারি ২০২১

বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তানে নাগরিকদের ভ্রমণের ক্ষেত্রে সতর্কতা জারি করেছে যুক্তরাষ্ট্র। ভ্রমণ সতর্কতা বিষয়ক এক ...



শেষের পাতা সর্বাধিক পঠিত



১০ বছরে শিক্ষার্থী বেড়েছে তিনগুণ

যুক্তরাষ্ট্রে পড়ছে ৮৮০০ বাংলাদেশি

সেক্সুয়াল ফ্যান্টাসি এবং আনুশকার করুণ মৃত্যু

পর্নোগ্রাফি যখন যৌন শিক্ষার মূল উৎস

ঢাকা-দিল্লি কন্স্যুলার ডায়ালগ

যেসব ইস্যু আলোচনায় থাকছে

DMCA.com Protection Status