করোনা: দুটি জীবন রক্ষাকারী ওষুধ পেয়েছেন বৃটিশ চিকিৎসকরা

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন (৫ দিন আগে) জানুয়ারি ১১, ২০২১, সোমবার, ৪:১২ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ১১:১২ পূর্বাহ্ন

কোভিড-১৯ চিকিৎসায় কার্যকরি দুটি ওষুধের কথা ঘোষণা করেছেন বৃটিশ গবেষকরা। এর আগে ওষুধ দুটি নিয়ে ব্যাপক গবেষণা করেছেন তারা। গবেষকরা বলছেন, এই ওষুধ প্রয়োগে গুরুতর আক্রান্ত রোগিদের জীবন রক্ষা করা সম্ভব। ওষুধ দুটি হচ্ছে টোসিলিজুমাব এবং সারিলুমাব। গত নভেম্বরেই টোসিলিজুমাব নিয়ে গবেষণা শুরু করেন গবেষকরা। সেসময়ই তারা জানিয়েছিলেন, ওষুধটি করোনাভাইরাস চিকিৎসায় বেশ কার্যকরি। তবে তখন তাদের কাছে যথাযথ তথ্য ছিলনা। তবে নতুন প্রকাশিত তথ্যানুযায়ী, টোসিলিজুমাব এবং সারিলুমাব প্রতি ১২ জন গুরুতর আক্রান্ত রোগীর একজনকে বাঁচাতে সক্ষম।
বিজিআরের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, টোসিলিজুমাব মূলত প্রদাহজনক রোগের চিকিৎসায় ব্যবহৃত ওষুধ।
মহামারি চলাকালীন একাধিকবার এই ওষুধের করোনার বিরুদ্ধে কার্যকরিতার গবেষণা করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে এর কার্যকরিতার তেমন কোনো ¯পষ্ট প্রমাণ পাওয়া যায়নি। তবে চিকিৎসকরা হাল ছেরে দেননি। গত নভেম্বর থেকে বৃটিশ গবেষকরা এ নিয়ে গবেষণা শুরু করেন। এরপর থেকেই মূলত এর কার্যকরিতার সম্ভাবনা ¯পষ্ট হতে শুরু করে। গবেষকরা এখন বুঝতে পারছেন, কীভাবে এই ওষুধ করোনার বিরুদ্ধে কাজ করে। শুধু টোসিলিজুমাবই নয় একই ধারার আরেক ওষুধ সারিলুমাবও সমহারে কার্যকরি। উভয় ওষুধই মূলত আর্থ্রিটিস বা বাত রোগের চিকিৎসায় ব্যবহৃত হয়।
এদিকে বিবিসি জানিয়েছে, বৃটিশ সরকার টোসিলিজুমাব ও সারিলুমাব উৎপাদনে ওষুধ কো¤পানিগুলোর সঙ্গে কাজ শুরু করেছে। এই ওষুধ শুধু মানুষের জীবনই বাঁচায় না এটি রোগীর চিকিৎসাকালীন সময়ও কমিয়ে আনে। যদিও এই ওষুধ দুটির দাম অত্যন্ত বেশি। বিবিসি বলছে, রোগি প্রতি এই ওষুধ প্রয়োগে খরচ হবে ৭৫০ ইউরো থেকে ১০০০ ইউরো পর্যন্ত।

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status