বিতর্কে না জড়িয়ে গণতন্ত্রের আন্দোলনে আসেন: আলেমদের উদ্দেশে জাফরুল্লাহ

অনলাইন ডেস্ক

অনলাইন (১ মাস আগে) ডিসেম্বর ৪, ২০২০, শুক্রবার, ৪:৪৮ অপরাহ্ন

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, অযথা বিতর্কে না জড়িয়ে গণতন্ত্রের আন্দোলনে আসেন। দেশে গণতন্ত্র নেই, দ্রব্যমূল্য কমছে না, গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা হচ্ছে না, সরকারের কিছু টাকা পেয়ে সরকারের কথায় নাচবেন না। তাদের কথায় না চলে আপনাদেরই ক্ষতি হবে।

শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে স্বাস্থ্য খাতে নৈরাজ্য-দুর্নীতি বন্ধ ও ওষুধের লাগামহীন মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে বাংলাদেশ লেবার পার্টি আয়োজিত সমাবেশে ভাস্কর্য ও মূর্তি ইস্যুতে আলেমদের উদ্দেশে করে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, ওষুধ থেকে শুরু করে প্রতিটি ক্ষেত্রেই আজ থেকে ১৫ দিনের মধ্যে সরকার যদি নিয়ম-নীতি মানে তাহলে ওষুধের দাম কমপক্ষে অর্ধেক হবে। দ্রব্যমূল্য চক্রাকারে বৃদ্ধি পাচ্ছে, ওষুধের মূল্যবৃদ্ধি কমানো হয়নি। এসবের সুবিধা পাচ্ছে মধ্যস্বত্বভোগীরা।

করোনার ভ্যাকসিন প্রসঙ্গে ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, সরকার আজ ব্যবসায়ীদের সরকার। ভ্যাকসিন যথার্থ প্রমাণিত না হওয়া পর্যন্ত তাড়াহুড়োর কোনো কারণ নেই।

অনুমতি ছাড়া সভা-সমাবেশে নিষেধাজ্ঞা প্রসঙ্গে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, পুলিশকে দিয়ে হঠাৎ নোটিশ, পুলিশ সরকারের খাদেম না, জনগণের খাদেম। পুলিশেরও অভাব-অভিযোগ আছে। আজকে পুলিশ অফিসারদের বাড়ি-ঘর নেই।
তাদের বাইরে গিয়ে বেতনের বেশি ভাড়া দিয়ে থাকতে হয়। এই অবস্থায় থাকলে ঘুষ খাবে না তো কী করবে?

লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরানের সভাপতিত্বে সমাবেশে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকারসহ লেবার পার্টির অন্যান্যরা বক্তব্য দেন।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

আনিস উল হক

২০২০-১২-০৪ ০৮:০০:৫১

আলেমরা নানা মজহাব ফেরকায় বিভক্ত।তাদের দিয়ে সমাজ দেশের গুণগত মান উন্নয়ন করা সম্ভব নয়।

Jamshed Patwari

২০২০-১২-০৪ ১৮:৩২:৫৮

আলেমদের উচিত মূর্তি ভাস্কর্য ছাড়াও নিত্য পণ্যের অস্বাভাবিক উর্ধগতির কঠোর প্রতিবাদ করা, তাতে সাধারণ মানুষের সমর্থন পাওয়া যাবে। রাজনীতি না বুঝে রাজনীতি করতে গিয়ে শাপলা তত্বরে মার খেতে হয়েছে। বর্তমানে আলেমদের ঐক্যবদ্ধতাই দেশের সর্ব বৃহৎ শক্তি। কিন্তু তারা রাজনীতি না করে তাদের শক্তি শুধু ধর্মীয় দৃষ্টিকোনে ব্যবহার করার ফলে সাম্প্রদায়িকতার অভিযোগে দমন করে।

আবুল কাসেম

২০২০-১২-০৪ ০৪:০৯:২৭

বাংলাদেশের আলেমদের এক চরম ব্যর্থতা এখানেই যে, তাঁরা সমাজের বাসিন্দা হয়েও সমাজ সংশ্লিষ্ট কোনো সমস্যা নিয়ে কথা বলতে পারেননা। অযৌক্তিক ভাবে দ্রব্য মূল্যের ঊর্ধ্বগতি , মুনাফা খোরি, মজুমদারি, মাপে কম দেওয়া, ধর্ষণ, ব্যভিচার, চুরি, ডাকাতি, হত্যা, গুম, গণতন্ত্রহীনতার সংস্কৃতির উদ্ভাবন, নদী ভাঙা মানুষের জীবন সমাস্যা, কনকনে ঠান্ডার মধ্যে ফুটপাতে বনী আদমের বসবাস, দুর্নীতি, ইত্যাকার বহু সমস্যায় জর্জরিত আজকের সমাজ। এসকল সমস্যা নিয়ে তাঁদের কথা বলা বাঞ্ছনীয়। কুরআনে শুধু মূর্তি বা ভাস্কর্যই নিষিদ্ধ নয় বরং মানব জীবনের সকল সমস্যার সমাধানও কুরআন মজিদে রয়েছে। সেসব নিয়ে আলেমদের কথা বলতে হবে। অযথা হট্টগোল সৃষ্টি করে দেশ অশান্ত করলে আলেম সমাজ এবং তৎসংশ্লিষ্টদের ক্ষতি ছাড়া লাভ হওয়ার সম্ভাবনা নেই।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

ট্রাম্পের মেয়াদ শেষ হওয়ায় অভিবাদন চীনের

বাইডেনের অভিষেকে মোদি-ইমরানের অভিনন্দন, দু’জনই তার সাথে কাজের অপেক্ষায়

২১ জানুয়ারি ২০২১

ভ্যাকসিন কূটনীতি

দক্ষিণ এশিয়ায় ভারত-চীন প্রতিযোগিতা

২১ জানুয়ারি ২০২১



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত

DMCA.com Protection Status