সিঙ্গাপুরে নির্যাতিত বাংলাদেশি জাহিদুল, বিচার চলছে

মানবজমিন ডেস্ক

শেষের পাতা ১ ডিসেম্বর ২০২০, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ৬:০০ পূর্বাহ্ন

সিঙ্গাপুরে এক বাংলাদেশি পরিচ্ছন্নতাকর্মী জাহিদুলের ওপর নির্যাতন চালানোর জন্য তাকে নিয়োগদাতা অবসরপ্রাপ্ত অভিনেতা-পরিচালক নগ আইক লিওঙ্গের বিচার হচ্ছে। জাহিদুল সোমবার আদালতে দাঁড়িয়ে বলেছেন, নগ আইক লিওঙ্গের জন্য যখন তিনি কাজ করতেন তখন প্রায়ই কাজের ত্রুটি ধরে তাকে প্রহার করা হতো। এ খবর দিয়েছে অনলাইন স্ট্রেইটস টাইমস। তবে জাহিদুলের পুরো নাম, ঠিকানা প্রকাশ করা হয় নি। ২০১৮ সালের ১১ই ডিসেম্বর জাহিদুলকে একটি ধাতব পদার্থ দিয়ে পেটে ও মাথায় আঘাত করেছিলেন নগ আইক লিওঙ্গ। তাতে কোনোমতে বেঁচে যান জাহিদুল। এ নিয়ে মামলা হয়েছে। সেই মামলায় স্বেচ্ছায় জাহিদুলকে প্রহার করার অভিযোগ করা হয়েছে নগ আইক লিওঙ্গের বিরুদ্ধে।
এ নিয়ে মামলার শুনানি শুরু হয়েছে ২৭শে জুলাই থেকে। সোমবার এর শুনানিতে জাহিদুল আদালতে বলেছেন, তাকে প্রায়ই মারার হুমকি দিতেন নগ আইক লিওঙ্গ। জাহিদুলের দাবি, নগ আইক লিওঙ্গের তত্ত্বাবধানে চলে সিঙ্গাপুর ইসলামিক হাব। সেখানে পরিচ্ছন্নকর্মী হিসেবে কাজ করতেন জাহিদুল। কিন্তু নগ আইক তার কাছে একটি রশি চান। জাহিদুল তাকে একটি রশি এনে দেন। কিন্তু এটি তার চাহিদার চেয়ে ছিল ছোট। এরপরই শুরু হয় তার ওপর নির্যাতন। জাহিদুল আরো বলেন, একবার তার দিকে প্লাস্টিকের একটি স্তূপ ছুড়ে মারেন নগ আইক। আবার কাঠ ছুড়ে মারেন। প্লাস্টিক গিয়ে আঘাত করে তার পিঠে। এ সময় জাহিদুল ছিলেন একটি মইয়ের ওপর। ভয়ে তিনি নেমে আসেন। এরপরই ধাতব পদার্থ দিয়ে তার পেটে ও মাথায় আঘাত করতে থাকেন। এতে জাহিদুলের মাথার খুলি ফেটে যায়। থেঁতলে যায় অনেক স্থান।
এ অবস্থায় পুলিশে কল দিতে বেরিয়ে আসেন জাহিদুল। তখন তাকে হুমকি দেন নগ আইক লিওঙ্গ। তিনি বলেন, কাজে ফিরলেই তাকে আরো প্রহার করা হবে। জাহিদুল বলেছেন, তিনি বাইরে যেতে পারতেন না। কারণ, তাদেরকে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরার মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ করা হতো। আদালতে অডিও ক্লিপও উপস্থাপন করেছেন জাহিদুল। তাতে তার ওপর হামলার সময়কার তথ্যপ্রমাণ রয়েছে। এর মধ্যে একটি রেকর্ডিং আদালতে বাজিয়ে শোনানো হয়। তাতে নগ আইক লিওঙ্গকে বলতে শোনা যায়, জাহিদুলকে তিনি গালি দিচ্ছেন। বলছেন, এক হতদরিদ্র গ্রামের মানুষ সে। জানেন না কীভাবে কাজ করতে হয়। নগ আইকের এক বন্ধুর দোকান থেকে কিছু একটা কিনতে পাঠিয়েছিলেন জাহিদুলকে। এতে দাম ৫০ সেন্ট বেশি রাখা হয়। এতেও ক্ষুব্ধ হন নগ আইক লিওঙ্গ। একটি ভিডিওতে জাহিদুলকে উদ্দেশ্য করে নগ আইক লিওঙ্গকে বলতে শোনা যায়, তোমার বস খুবই বিপজ্জনক মানুষ। তিনি তোমাকে হত্যা করতে পারে। বুঝেছ?
এ অবস্থায় আদালতে নগ আইক লিওঙ্গ বলেছেন, তিনি জাহিদুলকে বন্ধু ভেবে তার সঙ্গে অমন আচরণ করেছেন। তার সঙ্গে মিথ্যা ঘুষাঘুষি করেছেন। এ ছাড়া তাকে জাহিদুল মেন্টর হিসেবে মানেন বলে ধন্যবাদ জানান নক আইক। তবে এ মামলায় অভিযোগ গঠন করা হয়নি। পরবর্তী শুনানি হবে ১লা ডিসেম্বর।

আপনার মতামত দিন

শেষের পাতা অন্যান্য খবর

দুই বছর পর ফের গ্রেপ্তার

সিলেটে রোকন-রিমার বেসামাল অপরাধকাণ্ড

২০ জানুয়ারি ২০২১

বাসচাপায় দম্পতি নিহত

লাইসেন্স ছাড়াই বাস চালাতেন তসিকুল

২০ জানুয়ারি ২০২১

‘পাওয়ার আলীর’ বিরুদ্ধে দুদকে অভিযোগ

গৃহকর্মী থেকে শতকোটি টাকার মালিক

১৯ জানুয়ারি ২০২১

ব্যবসায়ীর বাসায় গৃহকর্মী হিসেবে কাজ শুরু করেছিলেন পাঠশালা অবধি পড়াশোনা করা সৈয়দ মোহাম্মদ আলী। পরবর্তীতে ...



শেষের পাতা সর্বাধিক পঠিত



দুই বছর পর ফের গ্রেপ্তার

সিলেটে রোকন-রিমার বেসামাল অপরাধকাণ্ড

DMCA.com Protection Status